সোমবার, ২৬ জুলাই ২০২১
logo
কলম যখন শিক্ষক
প্রকাশ : ০২ ফেব্রুয়ারি, ২০১৬ ১৫:২৩:৫৯
প্রিন্টঅ-অ+
তথ্য ওয়েব

ঢাকা: শিক্ষা জাতির মেরুদন্ড। জাতিকে শিক্ষিত করতে সঠিক শিক্ষার বিকল্প নেই। প্রাথমিক শিক্ষা যুগোপযোগী না হলে শিশুর ভবিষ্যৎ শিক্ষার ভীত মজবুত হয় না। শিশুদের পড়ানো খুব কষ্টের ব্যাপার। দেশের প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষকদের সঠিক মূল্যায়ন না হওয়ায় যোগ্য শিক্ষকদের অভাব রয়েছে। তাছাড়াও জেলাভিত্তিক অথবা অঞ্চলভিত্তিক উচ্চারণে ভিন্নতা থাকায় শিশুরা অনেকক্ষেত্রে সঠিক উচ্চারণ শেখা থেকে বঞ্চিত হয়। বাবা-মার ব্যস্ততাও শিশুর শিক্ষার অন্তরায়। এসব বিষয় মাথায় রেখে দেশের তরুণ সফটওয়্যার ইঞ্জিনিয়ার জাফর সাদেক উদ্ভাবন করলো নতুন এক কলম। তিনি এই কলমটির নাম দিয়েছেন  ‘কিডস মাস্টার ম্যাজিক পেন’।
শিশুর প্রাথমিক শিক্ষা শুরু হয় অক্ষর জ্ঞান দিয়ে। বাংলায় স্বরবর্ণ অথবা ব্যঞ্জনবর্ণ, ইংরেজির এ, বি, সি, অংকের এক, দুই, তিন থেকে শুরু করে আরবি আলিফ, বা, তা, ছা পর্যন্ত বর্ণ চেনা থেকে শুরু করে শিশু ধীরে ধীরে শব্দ পড়তে এবং বলতে শুরু করে। প্রতিটি অক্ষর চেনা, শোনা, বলা এবং লেখায় পারদর্শীতা আসলেই শিশু পরের ধাপে নিজেকে উন্নত করতে পারে।
কিডস মাস্টার পেনটি বইয়ের পাতায় স্পর্শ করলেই কলম পড়তে শুরু করবে। যে অক্ষরের ওপর কলমটি ধরা হবে তার বাংলা, ইংরেজি, হিন্দি, আরবি এবং উর্দু উচ্চারণ কলমটি পড়ে শোনাবে। যতবার ধরবেন ততবার পড়বে। পড়ার সাথে সাথে আনন্দ দেয়ার জন্য এই কলমে রয়েছে ছড়া, গান ও গল্প শোনার ব্যবস্থা। শিশু ঠিক মতো উচ্চারণ করছে কি না তা রেকর্ড করে শোনার ব্যবস্থাও রয়েছে এই কলমে।
কলমটি উদ্ভাবনের আকাঙ্খা কিভাবে সৃষ্টি হলো এ প্রশ্নের জবাবে জাফর সাদেক বাংলামেইলকে বলেন, ‘মালয়েশিয়া বেড়াতে গিয়ে আশ্চর্য ধরণের একটি কলমের সন্ধান পাই। যেটি বইয়ের অক্ষর পড়ে শোনাতে পারে। যন্ত্রটি দেখে আমার আগ্রহ তৈরি হয়। সেই আগ্রহের বশেই সিংগাপুরে যাই। আগেই শুনেছিলাম সেখানে এই যন্ত্রটি তৈরি হয়। সেখানে গিয়ে জানলাম এটি মূলত চীন দেশেই বেশি তৈরি হচ্ছে। এরপর দেশে ফিরে কিছু দিন পর গেলাম চীনে। সেখানে গিয়ে দেখলাম যন্ত্রটি সেখানে ঠিকই পাওয়া যাচ্ছে। কিন্তু এটি পড়ার জন্য বাংলায় কোন সফটওয়্যার বা বই নেই। খোঁজ খবর নিয়ে দেখলাম বাংলা ভাষার জন্য সফটওয়্যার তৈরি করা বেশ দুরূহ কাজ। তবুও একটা প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে কথা হলো সফটওয়্যার তৈরি করে দেয়ার জন্য। তারাও বেশ মোটা অংকের টাকার বিনিময়ে রাজী হলো কাজটা করে দিতে। কিছুদিন তাদের সঙ্গে কাজ করার পর আমার মনে হলো এই ধরণের সফটওয়্যার তো আমি নিজেই তৈরি করতে পারি। তাই চীনে প্রবাসী বাঙালিদের সহায়তায় খোঁজ খবর নিয়ে সেনজেন বিশ্ববিদ্যালয়ে এই ধরণের সফটওয়্যার তৈরির ডিপ্লোমা কোর্সে ভর্তি হলাম। দীর্ঘ ছয়মাসের প্রশিক্ষণ শেষে কাজটা রপ্ত করতে পারলাম।’
প্রশিক্ষণ শেষে সফটওয়্যার তৈরির জন্য আগে থেকে ঠিক করা ঐ প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে একজোট হয়ে জাফর নিজেই সফটওয়্যারটির ডিজাইন তৈরির কাজ শুরু করলেন। বাংলা সফটওয়্যার তৈরি করতে গিয়ে তিনি দেখলেন এই সফটওয়্যারে যেকোনো ভাষা যোগ করে দেয়ার সুযোগ রয়েছে। সেটা ইংরেজি, আরবি বা অন্য যেকোনো ভাষাও হতে পারে।
জাফর ঠিক করলেন  বাংলা, ইংরেজি ও আরবি এই তিনটি ভাষায় সফটওয়্যার বানানোর। চীন থেকে তিনি দেশে ফিরে দেশের স্বনামধন্য স্কুলগুলোর জ্যেষ্ঠ শিক্ষকদের নিয়ে একটি সম্পাদনা পরিষদ গঠন করেন। তাদের কাছ থেকে পরামর্শ নিয়ে সবার আগে একটি প্লে-নার্সারি ক্লাসের সিলেবাস তৈরি করা হয়। ভিকারুননিসা স্কুল, মতিঝিল আইডিয়াল, অগ্রণী স্কুল ও সাউথ পয়েন্ট স্কুল এর (বতর্মান ও প্রাক্তন) সিনিয়র শিক্ষকদের দিক নির্দেশনায় ২টি ইংলিশ, ১টি বাংলা, একটি অংক, একটি সাধারণ জ্ঞান ও একটি আরবি মোট ৬টি বই তৈরি করা হয়।
বই তৈরি শেষ। এবার প্রতিটা বই এর লেখাকে উচ্চারণ করে তা রেকর্ড করার কাজ শুরু হয়। এনটিভি মার্কস অলরাউন্ডার ২০১৪ সালের চ্যাম্পিয়ান ত্রিবেণী রায় কে বাংলা, স্কলাস্টিকা স্কুল ধানমন্ডি শাখার সপ্তম শ্রেণীর ছাত্রী আদ্রিতা ওবায়েদকে ইংরেজি ও রেডিও টুডে র প্রোগ্রাম উপস্থাপক খালিদ সাইফুল্লাহ বকশিকে দিয়ে আরবি ভয়েস রেকর্ড করার জন্য ঠিক করা হল। তাদের পাশাপাশি রেডিও টেলিভিশন এর সংবাদ উপস্থাপকসহ প্রায় ২০ জন আবৃত্তি শিল্পীকে দিয়ে তিনমাস ধরে এই ছয়টি বইয়ের সকল শব্দ ও বর্ণ রেকর্ড করা হয়।
জাফর সাদেক বলেন,  ‘ঈদের ছুটিতে ইন্ডিয়াতে বেড়াতে গিয়েছিলাম। সেখানে আমার কয়েকজন ফ্রেন্ডকে আমার এই প্রজেক্টটি দেখালে তাদের উৎসাহে বাংলা, ইংরেজি, আরবির পাশাপাশি হিন্দি, উর্দুতেও সফটওয়্যার তৈরি করি। এভাবেই তৈরি হলো ‘কিডস মাস্টার ম্যাজিক পেন’।
সত্যি বিস্ময়কর ব্যাপার। যা আপনি কখনো ভাবেননি ঠিক তেমন এটি দেখতে কলমের মত হলেও এটি একটি মিনি কম্পিউটার। মাদারবোর্ড, প্রসেসর, র‌্যাম, মেমরি ও সেন্সর দিয়ে কলমের আকৃতিতে এটি তৈরি করা হয়েছে। ছয়টি বই পড়া যাবে এই কলম দিয়ে। বাংলা বই এর অ,আ,ক,খ কবিতা, ছড়া গল্প গান, ইংরেজি বইয়ের অ্যালফাবেট, কাউন্টিং, রাইমস, চিলড্রেন সং, অংক বইয়ের এক দু তিন শতকিয়া, ছবির সাহায্যে সহজ নিয়মে যোগ-বিয়োগ, আরবি বই এর আলিফ বা তা, কালিমা, সুরা, ছোটদের দোয়া, ইসলামী গল্প ও ইসলামী সংগীত সহ আরো রয়েছে সাধারণ জ্ঞান বই। ইংলিশ বই দুটি ৫ ভাষায় পড়া যাবে।
ধরুন আপনি কলমটি স্পর্শ করলেন ইংলিশ বই এর যেকোনো পেজের যেকোনো লেখায়, সঙ্গে সঙ্গে কলমটি স্পস্ট উচ্চারণে লেখাটা কি তা বলে দেবে। আপনি যদি একই লেখা বাংলা, আরবি, হিন্দী ও উর্দুতে পড়তে চান তাও পারবেন। বইয়ের প্রত্যেক পাতার উপরের অংশে ৫ ভাষার জন্য ৫টি লোগো দেয়া আছে। লেখাটি যে ভাষায় পড়তে চান সে ভাষার লোগোতে প্রথমে কলম স্পর্শ করে তার পর লেখায় টাচ করুন, সঙ্গে সঙ্গে কলমটি নির্ভুল উচ্চারণে আপনার কাঙ্খিত ভাষায় লেখাটি পড়ে শোনাবে।  
 
কতক্ষণ শেখা যাবে এই কলম দিয়ে? এমন প্রশ্নের জবাবে দীর্ঘ দিন ধরে ইলেকট্রোনিক মিডিয়ায় কাজ করা তরুণ এই উদ্ভাবক জানান, ‘একবার পূর্ণচার্জে আট ঘন্টা পর্যন্ত শিশুকে পড়াতে পারবে ম্যাজিক কলমটি। এতে আছে রিচার্জেবল লিথিয়াম আয়ন পলিমার ব্যাটারি। কলমটি চালু করার পর বেশ কিছু সময় ধরে অব্যবহৃত থাকলে স্বয়ংক্রিয়ভাবে এটি বন্ধ হয়ে যাবে।’
ম্যাজিক পেনটিতে রয়েছে একটি শক্তিশালি স্পিকার। হেডফোন বা সাউন্ড বক্স লাগিয়েও এই কলমের সব শব্দ শোনা যাবে। মাত্র তিন সেকেন্ড চেপে ধরে রাখলে ম্যাজিক পেনটি অন হয়ে যাবে। এটি দেখতে যেমন আকর্ষণীয় তেমনি শক্তপোক্তও।
বাংলাদেশে ও ভারতে কলমটি বাজারজাত করার দায়িত্ব নিয়েছেন এফবিসিসিআই এর পরিচালক খন্দকার রুহুল আমিন। এজন্য ইতোমধ্যে প্রকাশনা সংস্থা খোলা হয়েছে।
এত ভালো শিক্ষকের মূল্যও নিশ্চয়ই আকাশ ছোঁয়া। কিন্তু না। কলমটির মূল্য হাতের নাগালেই। দেশের শিশুদের শিক্ষার কথা মাথায় রেখে ১টি কলম, চার্জার, ৬টি বই, ১টি ফিতা ও ১টি ব্যাগসহ মূল্য মাত্র দুই হাজার টাকা। সাথে রয়েছে এক বছরের বিক্রয়োত্তর সেবা।
এবারের বইমেলায় বইসহ কলমটি পাওয়া যাবে। দেশের প্রতিটি জেলা এবং উপজেলায় পরিবেশক নিয়োগ দেয়া হচ্ছে। দেশের সকল লাইব্রেরিতে কিডস মাস্টার ম্যাজেক পেনটি সেট সহ পাওয়া যাবে শিগগিরই।
আপনার শিশুকে সঠিক শিক্ষায় শিক্ষিত করতে বাসায় আসুক নতুন কলম শিক্ষক।
যোগাযোগ: ডিজিটাল পাবলিকেশন, ০১৯১৫৪৪৯৯৪৪,০১৯১৫৪৪৯৯৩৩
ইউটিউব লিঙ্ক: www.youtub.com/kidsmastermagicpen
ফেসবুক: www.facebook.com/kidsmastermagicpen

তথ্য-প্রযুক্তি এর আরো খবর