বুধবার, ২৮ জুলাই ২০২১
logo
যেখানে পথ নেই সেখানেও গুগল ম্যাপ
প্রকাশ : ৩০ জানুয়ারি, ২০১৬ ১২:৪২:৪৫
প্রিন্টঅ-অ+
তথ্য ওয়েব

ঢাকা: গুগলের স্ট্রিট ভিউ অথবা ইন্টারনেটে পথ দেখার জন্য জনপ্রিয় অ্যাপস হলো গুগল ম্যাপস। যেসব পথে গাড়ি চলে না সেসব পথও অন্তর্ভুক্ত হচ্ছে গুগল ম্যাপসে। পায়ে হাঁটা পথ বা উঁচু-নিচু পাহাড়ি পথের নির্দেশও থাকবে গুগল ম্যাপসে। এই পথগুলো গুগল ম্যাপে অন্তর্ভুক্ত করার জন্য ব্যবহার করা হবে ট্র্যাকার পিঠে বহন করা ব্যাকপ্যাক ক্যামেরা। এই ক্যামেরা দিয়ে ৩৬০ ডিগ্রিতে যেকোন ধরনের ছবি তোলা যাবে। গুগলের স্ট্রিট ভিউ কারের বিকল্প হিসেবে এই ব্যাক প্যাক ক্যামেরা ব্যবহৃত হবে।
গুগল স্ট্রিট ভিউ হলো গুগল ম্যাপসের একটি এক্সটেনশন, যেখানে অনেকগুলো ছবির সমন্বয় করে পথসহ অন্যান্য বিষয়বস্তুগুলোর প্যানারমিক ভিউ দেখানো হয়। যুক্তরাষ্ট্রের ছোট অঞ্চল যেমন বাকস কাউন্টি, পেনিসিলভেনিয়া এবং মিশিগানের কিছু অংশ ইতোমধ্যে স্ট্রিট ভিউয়ে সংযুক্ত হয়েছে। এই হেঁটে চলা ক্যামেরায় ধারণ করা ছবিগুলোর মধ্যে আরও অন্তভুক্ত হবে ফ্লোরিডার বিচ, হাডসন নদী এবং অস্ট্রেলিয়ার দুই ডজনের বেশি জাতীয় উদ্যান।
গুগল স্ট্রিট ভিউ প্রোগ্রামের ম্যানেজার ডিয়েননা ইয়াক বলেন, ‘গুগল এবং স্থানীয় সংগঠনগুলোর সহযোগিতায় স্ট্রিট ভিউ প্রোগ্রামের অগ্রগতি চলমান রয়েছে। গুগলের একার পক্ষে কাজগুলো বেশ কষ্ঠসাধ্য হতো। এই স্ট্রিট ভিউ করার লক্ষ্য হচ্ছে মানুষকে নতুন জায়গা সম্পর্কে জানার সুযোগ করে দেয়া। আর যেখানেই যাক আর হারানোর কোনো ভয় থাকবে না।’
তিনি আরো বলেন, ‘আমরা যেতে পারি এমন স্থান খুব সামান্যই। তবে এখনও অনেক চমকপ্রদ স্থান রয়েছে যেগুলোতে আমরা এখনও যেতে পারিনি।’
বাকস কাউন্টির দ্য ট্যুরিজম প্রমোশন এজেন্সি এক ডজনেরও বেশি আকর্ষণীয় স্থানের ছবি গুগলের এই ব্যাকপ্যাক ক্যামেরা দিয়ে ধারণ করেছে। এর মধ্যে বিভিন্ন পার্ক, মদ বানানোর স্থান ও ১২৫ ফুট লম্বা পাথরের টাওয়ার রয়েছে।
শুধুমাত্র গুগলের স্ট্রিট ভিউয়ে ছবিগুলো অন্তর্ভুক্ত করাই উদ্দেশ্য নয়, এর মাধ্যমে পর্যটকদের দৃষ্টি আকর্ষণ করার ব্যবস্থাও হবে বলে জানিয়েছে এজেন্সি কতৃপক্ষ।
দ্য ট্যুরিজম প্রমোশন এজেন্সির সহ-সভাপতি পল বেনসিভেঙ্গো বলেন, ‘কোথাও ভ্রমণ করতে যাওয়ার আগে সে স্থানকে দেখতে চায় দর্শনার্থীরা। দর্শনীয় স্থানগুলোর ছবিগুলো দর্শনার্থীদের ঘুরতে যাওয়ার পরিকল্পনাকে সহজ করবে। একটি স্কুল ছাত্রও ওয়াশিংটনে থেকে তার নিজের কম্পিউটারে বসে বাকস কাউন্টি সম্পর্কে ধারণা অর্জন করতে পারবে। জানতে পারবে স্থানটির ইতিহাস।’
২০১৩ সালে স্ট্রিট ভিউর কার্যক্রম শুরু হয় হাওয়াইয়ে। ২০০টি সংস্থারও বেশি সংগঠনের সঙ্গে যৌথভাবে কাজ করে যাচ্ছে স্ট্রিট ভিউ দল। এর মধ্যে ট্যুরিজম বোর্ড, বিশ্ববিদ্যালয় এবং অলাভজনক প্রতিষ্ঠানও রয়েছে।

তথ্য-প্রযুক্তি এর আরো খবর