রোববার, ২৫ জুলাই ২০২১
logo
হালদা নদীতে চবি ছাত্র নিখোঁজ
প্রকাশ : ২৩ এপ্রিল, ২০১৬ ১১:৪১:৫১
প্রিন্টঅ-অ+
শিক্ষা ওয়েব

চট্টগ্রাম: হালদা নদীতে গোসল করতে নেমে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের (চবি) নোমান নামের এক ছাত্র নিখোঁজ হয়েছেন। শুক্রবার বেলা সাড়ে ১২টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। নিখোঁজ নোমান বিশ্ববিদ্যালয়ের আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র।
 
ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরিরা দুপুর সোয়া ২টার দিকে নোমান চৌধুরীর খোঁজে হালদা নদীতে অনুসন্ধান শুরু করেছে। তবে সন্ধা ৬টা পর্যন্ত তার খোঁজ পাওয়া যায়নি।
 
সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, হাটহাজারী থানার লাঙ্গলমোড়া এলাকায় বন্ধুর বাড়িতে বিয়ের অনুষ্ঠানে বন্ধুদের সাথে যায় নোমান। বেড়ানোরর সুযোগে শুক্রবার বেলা ১২টার দিকে নোমান ও তারবন্ধুরা হালদা নদীতে গোসল করতে নামে। নদীতে সাঁতার কাটার এক পর্যায়ে নোমান চৌধুরী মোড়ে  স্রোতের টানে হঠাৎ করেই ডুবে যায়। এর পর থেকে তার আর কোনো সন্ধান পাওয়া যাচ্ছে না। দুর্ঘটনার পর পরই হাটহাজারী ফায়ার সার্ভিস স্টেশনে খবর দেওয়া হয়। সেখানে ডুবুরি না থাকায় দুই ঘণ্টা পর নগরীর আগ্রাবাদ ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি গিয়ে অনুসন্ধান শুরু করে। তবে সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত ডুবে যাওয়া নোমানের কোন সন্ধান পাওয়া যায়নি বলে তারা জানান।  
 
এদিকে নোমান চৌধুরী হালদা নদীতে নিখোঁজ হওয়ার ঘটনায় চবি ছাত্ররা নাঙ্গলমোড়া হালদা নদীর তীরে ভীড় করতে শুরু করেছে। ক্যাম্পাস জুড়ে চলছে শোক। নোমানের বন্ধুরা নিখোজের পিছনে সময় মত ফায়ার সার্ভিস না আসাকেই দায়ী করছে। নিহত নোমান চবি আন্তুর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের ২য় বর্ষের ছাত্র। তার বাড়ি চট্টগ্রামের রাঙ্গুনিয়ায়।
 
নোমানের বন্ধু আতাউল বলেন, লাঙ্গলমোড়া এলাকায় বন্ধুর বাড়ি বিয়ের অনুষ্ঠানে আসে ওরা কয়েকজন। শুক্রবার বেলা ১২টার দিকে নোমান ও বন্ধু হালদা নদীতে গোসল করতে নামে। নদীতে সাঁতার কাটার এক পর্যায়ে হঠাৎ করেই ডুবে যায় নোমান। তবে দ্রুত উদ্ধার তৎপরতা শুরু করলে হয়ত তাকে পাওয়া যেত বলে তিনি জানান।
 
এ ব্যাপারে হাটহাজারী ইসমাইল হোসেন  জানান, হালদায় শিক্ষার্থী ডুবে যাওয়ার ঘটনায় সাথে সাথে ফায়ার সার্ভিসকে খবর দেওয়া হয়। এখন উদ্ধার কাজ চলছে।

শিক্ষাঙ্গন এর আরো খবর