বৃহস্পতিবার, ০৬ মে ২০২১
logo
সেলিম ওসমান সব বলবেন
প্রকাশ : ১৯ মে, ২০১৬ ১০:৩৩:২৬
প্রিন্টঅ-অ+
জেলা ওয়েব

নারায়ণগঞ্জ: নারায়ণগঞ্জের প্রধান শিক্ষক শ্যামল কান্তি ভক্তকে লাঞ্ছিত করার ঘটনা বিষয়ে নিজের বক্তব্য তুলে ধরবেন সংসদ সদস্য (এমপি) সেলিম ওসমান।
বন্দরের পিয়ার সাত্তার লতিফ উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষককে কেন ও কী কারণে অভিযুক্ত করা হয়েছে। কেনইবা জনরোষের মুখে পড়েছেন। আর কেনই বা তিনি তাকে কান ধরে উঠবস করাতে বাধ্য হয়েছেন। এসব বিষয়ে কথা বলবেন।
একই সঙ্গে প্রকৃত ঘটনার প্রেক্ষাপট কী? কি ঘটেছিল সেদিন। তার উদ্দেশ্য কী ছিল আর পরবর্তীতে মিডিয়ায় কী লেখা হয়েছে এসব বিষয়ে সাংবাদিকদের পরিষ্কার ধারনা দেবেন।
আগামীকাল বৃহস্পতিবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে নারায়ণগঞ্জ ক্লাব লিমিটেডে সংবাদ সম্মেলন করবেন। মুঠোফোন, ইমেইল ও প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে ওই সংবাদ সম্মেলন বিষয়ে বার্তা পাঠানো হয়েছে। সেখানে তিনি ঘটনা বিষয়ে তার অবস্থান ব্যাখ্যা করবেন বলেও উল্লেখ করেছেন।
সেলিম ওসমান বার্তায় বলেছেন, ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত দেয়ার অভিযোগে গত ১৩ মে (শুক্রবার) শিক্ষক শ্যামল কান্তি ভক্তকে নিয়ে যে অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা ঘটেছে তা নিয়ে বিভিন্ন মহলে নানা প্রশ্ন দেখা দিয়েছে। বিভিন্ন বক্তব্যও দেয়া হচ্ছে। কোথাও বা আমার বক্তব্যও জানতে চাওয়া হচ্ছে। কিন্তু এ পর্যন্ত আমি কোনো আনুষ্ঠানিক বক্তব্য উপস্থাপন করিনি। তাই বিষয়টি নিয়ে নানা ধরনের ভুল বোঝাবুঝির সৃষ্টি হয়েছে/হচ্ছে। তাই সমস্ত বিষয় নিয়ে সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করেছি।
 
এর আগে ঘটনার পর থেকে সেলিম ওসমান বিচ্ছিন্নভাবে বক্তব্য দিয়ে আসছিলেন। এর মধ্যে বুধবার নারায়ণগঞ্জ ক্লাব লিমিটেডে ৮টি জাতীয় ও ৩৫টি জেলা ভিত্তিক সংগঠন সংবাদ সম্মেলন করে প্রকৃত ঘটনা আড়াল করা হচ্ছে বলে অভিযোগ তোলেন।
এদিকে, নারায়ণগঞ্জের লাঞ্ছিত প্রধান শিক্ষক শ্যামল কান্তি ভক্তকে কান ধরে উঠবস করানোর ঘটনায় এমপি সেলিম ওসমানসহ জড়িতদের বিরুদ্ধে কেন আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে না তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেছেন হাইকোর্ট।
বুধবার বিচারপতি মইনুল ইসলাম চৌধুরী ও বিচারপতি ইকবাল কবিরের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ স্ব-প্রণোদিত হয়ে এ আদেশ দিয়েছেন। স্বরাষ্ট্র সচিব, আইজিপি, নারায়ণগঞ্জের ডিসি, এসপি, ইউএনও, সংশ্লিষ্ট থানার ওসিকে আগামী ২ সপ্তাহের মধ্যে রুলের জবাব দিতে বলা হয়েছে।
সাবেক অতিরিক্ত অ্যাটর্নি জেনারেল এমকে রহমান ও জ্যেষ্ঠ আইনজীবী মহসিন রশিদ কয়েকটি জাতীয় পত্রিকায় প্রকাশিত শিক্ষকের কান ধরে উঠবস করার ঘটনায় প্রতিবেদন আদালতে উপস্থাপন করেন। এরপর স্ব-প্রণোদিত হয়ে এ রুল জারি করেন আদালত।
একই সঙ্গে এ ঘটনায় কী পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে সে বিষয়ে নারায়ণগঞ্জ পুলিশ সুপারকে আগামী তিনদিনের মধ্যে জানাতে বলা হয়েছে।

জেলা এর আরো খবর