বৃহস্পতিবার, ০৬ মে ২০২১
logo
হাতিয়ায় ডাকাত সন্দেহে গণপিটুনি, নিহত ৪
প্রকাশ : ১২ মার্চ, ২০১৬ ১২:১১:৩৬
প্রিন্টঅ-অ+
জেলা ওয়েব

নোয়াখালী: নোয়াখালীর হাতিয়ার চেয়ারম্যান ঘাটে ডাকাত সন্দেহে গণপিটুনিতে  ৪ জন  নিহত হয়েছে। আরও ২ জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক।
শুক্রবার রাতে এ ঘটনা ঘটে।
এ সময় ডাকাতের হামলায় তিন পুলিশ সদস্য আহত হয়।পুলিশ তাদের কাছ থেকে ধারালো অস্ত্রসহ একটি ফিশিংবোর্ট আটক করেছে।
স্থানীয়রা জানান, শুক্রবার বিকাল ৩টার দিকে হাতিয়া উপজেলার চেয়ারম্যান ঘাটের পুরাতন মাছ বাজার এলাকায় একটি ফিশিংবোর্ট নোঙ্গর করে।
এ সময় স্থানীয়দের বোটে থাকা লোকদের দেখে সন্দেহ সৃষ্টি হয় । তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করলে এক পর্যায়ে তারা কখনো নিজেদের কোস্টগার্ড আবার কখনো জেলে বলে পরিচয় দেয়। এতে সন্দেহ আরো বেড়ে যায়।
পরে নিকটবর্তী পুলিশ ফাঁড়িতে খবর দিলে পুলিশ এসে ৫ জনকে আটক করে এবং বোটটি তল্লাশি চালিয়ে বগি দা, ধামা, চাকুসহ ৭টি ধারালো অস্ত্র ও এক সেট হেন্ডকাপ এবং কয়েকটি লাইফ জ্যাকেট উদ্ধার করে ফাঁড়িতে নিয়ে যায়। সেখানে তাদের বেঁধে রাখা হয় ।
রাত ১১টার দিকে ফাঁড়িতে বিদ্যুৎ চলে গেলে ৫ ডাকাত তাদের নাগালে থাকা ধারালো অস্ত্রদিয়ে পুলিশের উপর হামলা চালায়।এ সময় তিন পুলিশ সদস্যকে ধারালো অস্ত্রদিয়ে আঘাত করে পালিয়ে যেতে থাকে।
পুলিশের চিৎকার শুনে স্থানীয় বাজারের পাশ্ববর্তী লোকজন ঐ ৫ ডাকাতকে  ধাওয়া করে ধরে ফেলে। পরে আরো একজনকে বোট থেকে স্থানীয়রা ধরে ফেলে সকলকে গণপিটুনী দেয়।
রাত ২টায় আশঙ্কাজনক অবস্থায় ৬ জনকে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে আনা হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক ৪ জনকে মৃত ঘোষণা করেন।
আহত ৩ পুলিশ সদস্যদের মধ্যে ১জনকে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতাল ও অপর ২ জনকে সূর্বণচর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
জেলা অতিরিক্ত পুলিশ সুপার একেএম আশ্রাফুজ্জামান জানান, গণপিটুনীতে নিহত ও আহতদের বাড়ি সাতক্ষীরা, খুলনা, যশোর ও গাইবান্ধা জেলায়।
তবে তারা কি উদ্দেশ্যে বোট নিয়ে ঐ এলাকায় অবস্থান করেছিল তা খতিয়ে দেখছে পুলিশ।
 

জেলা এর আরো খবর