বুধবার, ১২ মে ২০২১
logo
আত্মসমর্পণ করছে সুন্দরবনের ডাকাত মাস্টার বাহিনী
প্রকাশ : ২৯ মে, ২০১৬ ১১:৫৬:০৬
প্রিন্টঅ-অ+
দেশ ওয়েব

বাগেরহাট : সুন্দরবনের চাঁদপাই রেঞ্জের চরপুটিয়া এলাকার ডাকাত মাস্টার বাহিনী সদস্যরা আত্মসমর্পণের জন্য অস্ত্র জমা দিয়েছে।
রোববার ভোরে পূর্ব সুন্দরবনের চাঁদপাই রেঞ্জের র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়নের (র‌্যাব-৮) কাছে এ অস্ত্র জমা দেয় ডাকাত বাহিনীর সদস্যরা।
র‌্যাব-৮ এর অধিনায়ক লে. কর্নেল ফরিদুল আলম বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।
 
র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক জানান, মাস্টার বাহিনীর প্রধান মোস্তফা (৪৫) চাঁদপাই রেঞ্জের চরপুটিয়া রোববার  (২৯ মে) সকালে র‌্যাবের কাছে অস্ত্র জমা দেয়। দুপুর ২টায় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল ও র‌্যাবের প্রধান বেনজীর আহমেদ চরপুটিয়ায় যাবেন। এ উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে আনুষ্ঠানিকভাবে বনদস্যুরা তাদের অস্ত্র ও গুলি তুলে দেবে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর কাছে।
গত ৩ মে ‘মাস্টার বাহিনী’ স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ও র‌্যাবের মহাপরিচালকের কাছে আত্মসমর্পণের আগ্রহ জানিয়ে আবেদন করে। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের নির্দেশে প্রক্রিয়া শুরু হয়। প্রক্রিয়া শেষে আজ (রোববার) আত্মসমর্পণের দিনক্ষণ চূড়ান্ত  হয়।
স্থানীয় সূত্রে জানা যায়,  মাস্টার বাহিনীর প্রধান মোস্তফা (৪৫) বাগেরহাটের রামপাল উপজেলার কাটাখালী এলাকার বাসিন্দা। তার বাবা আব্দুল লতিফ একজন মাছ ব্যবসায়ী। ডাকাত মোস্তফার ছোট ভাই কামরুল ২ বছর আগে র‌্যাবের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে নিহত হন।
সূত্র জানা যায়, সুন্দরবনের জেলেদের ত্রাস ছিল ডাকাত মাস্টার বাহিনী। নৌকা ও জেলেদের জিম্মি করে বড় অংকের টাকা মুক্তিপণ দাবি করতো এই মাস্টার বাহিনী।

দেশ এর আরো খবর