বৃহস্পতিবার, ২৯ জুলাই ২০২১
logo
ফরাজীকান্দি ইউনিয়নে পুলিশি পাহারায় চাল বিতরণ
ভিজিএফ ও রোহানুর চাল আত্মসাৎ করার পাঁয়তারা
প্রকাশ : ০৩ জুলাই, ২০১৬ ১১:৩৪:৪৯
প্রিন্টঅ-অ+
চাঁদপুর ওয়েব ডেস্ক

চাঁদপুর: মতলব উত্তর উপজেলার ১২নং ফরাজীকান্দি ইউনিয়নের ভিজিএফ ও ঘুর্নিঝড় রোহানুর চাল আত্মসাৎ করার পাঁয়তারার খবর পেয়ে মতলব উত্তর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার নির্দেশে ওই ইউনিয়নের আনন্দবাজার ইসলামিয়া মার্কেটে অবস্থিত কৃষি ক্লাব থেকে উদ্ধার করে ইউনিয়ন পরিষদে আনার পর পুলিশি পাহারায় অবশেষে বিতরণ করা হয়। সরকারি গুদাম থেকে বরাদ্দকৃত চাল উত্তোলনের পর আত্মসাতের হীনউদ্দেশ্যে ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানের যোগসাজসে পার্শ্ববর্তী আনন্দবাজার ইসলামিয়া মার্কেটের কৃষি ক্লাবে মজুদ রাখা হয়। বিষয়টি জানাজানি হওয়ার পর মতলব উত্তর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার নির্দেশে তা উদ্ধার করে বিতরণের দিন সকালে ইউনিয়ন পরিষদে আনা হয়। ঐ সময় ইউনিয়ন পরিষদের সামনে চাল গ্রহণকারী মানুষজন হৈ-চৈ করতে থাকে। সকাল ৮টা থেকে চাল বিতরণের কথা থাকলেও ইউনিয়ন পরিষদ ভবনে চাল না থাকায় সকাল ১১টার পর পুলিশ পাহারায় এবং উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার সরকারি অফিসারের উপস্থিতিতে এ চাল বিতরণ শুরু হয়। প্রতিজনকে ২০ কেজি করে চাল বিতরণ করার কথা থাকলেও তাদেরকে দেয়া হয় ১৭-১৮ কেজি। এ নিয়ে মানুষজনের মধ্যে ক্ষোভ বিরাজ করতে দেখা যায়।
    এদিকে আগের দিন ইউনিয়ন পরিষদের ভিজিএফ ও ঘুর্নিঝড় রোহানুর চাল আত্মসাৎ করে বিক্রি করার কথা ছড়িয়ে পড়লে এলাকার আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মী ও সাধারণ মানুষ ইউনিয়ন পরিষদের সামনে এসে ভীড় জমায়। পরদিন সকালে শ’ শ’ মহিলা-পুরুষ দীর্ঘক্ষণ লাইনে দাঁড়িয়ে থাকাবস্থায় পিক-আপ ভ্যানে ও ট্রলিযোগে চাল এনে বিতরণের কাজ শুরু করে। মতলব উত্তর থানার এসআই কামাল ও মতলব উত্তর উপজেলার মোঃ নজরুল ইসলামসহ পুলিশ সদস্যরা বিতরণের সময় পাহারার দায়িত্বে ছিলেন।
    অন্যদিকে জাটকা রক্ষা অভিযানের ভিজিএফ’র চাল বিতরণ নিয়েও রয়েছে যথেষ্ট অনিয়ম ও স্বজনপ্রীতি। ঐ সময় ৪০ কেজি চাল দেয়ার সরকারি নিয়ম বেধে দিলেও ফরাজীকান্দি ইউনিয়ন পরিষদ থেকে কার্ডধারী জেলেদেরকে ৪০ কেজির স্থলে ২৫/৩০ কেজি করে চাল বিতরণ করে। এ নিয়ে সে সময়ে জেলেরা ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের কাছে অভিযোগ দিয়েও এর কোনো প্রতিকার পায়নি। মতলব উত্তর উপজেলায় এ প্রথম ইউনিয়নের পরিষদের চাল বিতরণকালে পুলিশ পাহারায় ছিলো। এ নিয়েও ঐ এলাকার মানুষের মাঝে আলোচনা-সমালোচনার কমতি ছিলোনা।

চাঁদপুর : স্থানীয় সংবাদ এর আরো খবর