রোববার, ১৬ মে ২০২১
logo
চাঁদপুর শহর রক্ষা বাঁধের দেবে যাওয়া স্থানে সংস্কার কাজ করা হচ্ছে
প্রকাশ : ২৮ মে, ২০১৬ ০৮:৫৯:১৩
প্রিন্টঅ-অ+
চাঁদপুর ওয়েব ডেস্ক

চাঁদপুর: চাঁদপুর শহরের বড় স্টেশন মূল হেডের শহর রক্ষা বাঁধের বিভিন্ন ফাটল স্থানে সিসি বস্নক ও কংক্রিকেটর মাধ্যমে সংস্কার করা হচ্ছে। গত বৃহস্পতিবার রাতে ঢেউয়ের আঘাতে ১০ মিটার এলাকায় সিসি বস্নক দেবে গিয়ে ভাঙ্গন দেখা দেয়। এর ফলে গতকাল শুক্রবার দুপুর থেকে ভাঙ্গন স্থানে পানি উন্নয়ন বোর্ড জিও টেঙ্টাইল ব্যাগ স্থাপন করে কংক্রিট দিয়ে তার উপর সিসি বস্নক স্থাপন করে শহর রক্ষা বাঁধের সংস্কার কাজ করে যাচ্ছে। এছাড়াও ভাঙ্গনস্থলের যেখানে বস্নক সরে গেছে সেখানে মেঘনা নদীতে জিও টেঙ্টাইল ব্যাগে বালি ভর্তি করে ভাঙ্গনস্থলে ফেলে রক্ষার চেষ্টা করা হচ্ছে।
পানি উন্নয়ন বোর্ডের তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী নিজমুল হক ভূঁইয়ার সাথে আলাপকালে তিনি জানান, এ ভাঙ্গনের জন্যে শহরবাসীর আতঙ্ক হওয়ার কিছুই নেই। এ ভাঙ্গনের জন্য শত শত অপরিকল্পিত বস্তিবাসীর বসবাসই প্রধান কারণ বলে তিনি জানান। কারণ ভাঙ্গনের সাথে নদীর কোনো সম্পর্ক নেই। অতিরিক্ত বৃষ্টি ও বৃহস্পতিবার রাতে প্রবল ঘূর্ণিঝড়ের কারণে শহর রক্ষা বাঁধে আঘাতহানে এবং ওই এলাকায় কয়েক শ' বস্তিবাসীর ব্যবহৃত পানি জমে সে পানি শহর রক্ষা বাঁধের বস্নকে প্রবেশ করায় এ ধসের সৃষ্টি হয়ে বস্নক দেবে যায়। দেবে যাওয়া ২৫২ চেইনেজ থেকে ২৬২ চেইনেজ পর্যন্ত কংক্রিট ও সিসি বস্নকের মাধ্যমে ভাঙ্গন ও ধসের স্থানে সংস্কার কাজ করা হচ্ছে। ওই স্থানে কয়েক শ' বস্নক ও বালি ভর্তি জিইও ব্যাগ ফেলে ভাঙ্গন রোধ করার চেষ্টা চলছে।
ভাঙ্গনস্থলে পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী আতাউর রহমান ও উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী মাহবুবুল করিম ও ঠিকাদার মনির হোসেনের মাধ্যমে অর্ধশত শ্রমিকদের দিয়ে দ্রুত কাজ চালিয়ে যাচ্ছে। গতকাল বৃহস্পতিবার ও শুক্রবার ভাঙ্গনস্থানে বসবাসকৃত শত শত এলাকাবাসী ভয় ও আতঙ্কে তাদের বসতভিটা ছেড়ে অন্যত্র গিয়ে আশ্রয় নিয়েছে।
 

চাঁদপুর : স্থানীয় সংবাদ এর আরো খবর