রোববার, ২৫ জুলাই ২০২১
logo
মতলবের এক ভূমিদস্যুর দৌরাত্ম্য মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানির অভিযোগ
প্রকাশ : ১৯ মার্চ, ২০১৬ ১১:১১:৪৩
প্রিন্টঅ-অ+
চাঁদপুর ওয়েব ডেস্ক

চাঁদপুর: মতলব দক্ষিণ উপজেলার উপাদী উত্তর ইউনিয়নের উপাদী গ্রামের ভূমিদস্যু দুলাল মেম্বারের বিরুদ্ধে একের পর এক মিথ্যা মামলা দিয়ে বিল্লাল গংয়ের পরিবারবর্গকে হয়রানির অভিযোগ পাওয়া গেছে।
অভিযুক্ত বিল্লাল ও জেসমিন আক্তার জানান, ১৬৫নং উপাদী মৌজায় সাবেক ১৪৮০ দাগে ২৪ শতক জমি আবুল কালাম ও নূর মোহাম্মদ গং পৈত্রিক মালিকানা সূত্রে ২০১১ সালে বিল্লাল ও জেসমিন আক্তারের নিকট বিক্রি করে। আপোষ বণ্টনে মৃত সোনা মিয়ার ওয়ারিশ মৃত দুলাল মিয়া উক্ত দাগে মালিকানা নাই। মৃত দুলাল মিয়ার স্ত্রী নুরজাহান ও তার ওয়ারিশরা মালিকানা দাবি করে চাঁদপুরের দেওয়ানী আদালতে ২০১২ সালে দলিল বাতিলের একটি মামলা দায়ের করেন। মামলা নং- ২৭। বিজ্ঞ আদালত মামলার নথি যাচাই-বাছাই ও স্বাক্ষ্য প্রমাণের ভিত্তিতে ২০১৩ সালে মামলাটি খারিজ করে দেন। তারই প্রেক্ষিতে ২০১৩ এবং ২০১৪ সালে নিষেধাজ্ঞা চেয়ে নুরজাহান ও তার ছেলে হেলাল মিয়া ফৌজদারী আদালতে দু' দুটি মামলা করলে সেগুলোও আদালত খারিজ করে দেয়। পরে ভূমিদস্যু দুলাল মেম্বার উক্ত দাগের সম্পত্তির উপর ১৯৮৯ সালের উল্লেখ পূর্বক কার্টিজ পেপারে একটি ছোলেনামা দলিল মূলে পুনরায় আদালতে নিষেধাজ্ঞা চায়। বিজ্ঞ আদালত গত ১৩ মার্চ মামলাটি খারিজ করে দেন। মামলাবাজ দুলাল মেম্বার উপায়ন্তর না পেয়ে জমির প্রকৃত মালিক বিল্লাল ও জেসমিন আক্তারের বিরুদ্ধে চাঁদপুরের বিচারিক আদালতে গাছ কাটার মামলা দায়ের করে হয়রানির চেষ্টা করছে।
জনৈক এলাকাবাসীর অভিযোগ, ভূমিদস্যু দুলাল মেম্বার ও তার ছেলেদের বিরুদ্ধে ডাকাতিসহ থানায় একাধিক মামলা রয়েছে। এলাকায় তাদের বিরুদ্ধে ভয়ে কেউ কথা বলে না।
এ ব্যাপারে দুলাল মেম্বারের সাথে মুঠোফোনে কথা বললে তিনি জানান, আমার জায়গা উদ্ধারের জন্যে আমি মামলা করেছি।
 

চাঁদপুর : স্থানীয় সংবাদ এর আরো খবর