রোববার, ১৬ মে ২০২১
logo
ঘণ্টায় ২৪ কোটি টাকা রাজস্ব আদায় করতে হবে এনবিআরকে
প্রকাশ : ২৮ মে, ২০১৬ ১৬:৪৫:৫৮
প্রিন্টঅ-অ+
ব্যবসা ওয়েব

ঢাকা : আগামী ২০১৬-১৭ অর্থবছরের বাজেট প্রস্তাবনায় কর আদায়ের যে লক্ষ্যমাত্রার কথা বলা হচ্ছে তাতে ঘণ্টায় প্রায় ২৪ কোটি টাকা আদায় করতে হবে জাতীয় রাজস্ব বোর্ডকে (এনবিআর)। বাজেটে রাজস্ব আহরণের লক্ষ্য নির্ধারণ করা হচ্ছে ২ লাখ ৩ হাজার ১৫০ টাকা।
শনিবার দুপুরে রাজধানীর আইডিইবি ভবনে মূল্য সংযোজন কর ও সম্পূরক শুল্ক আইন- ২০১২ বাস্তবায়ন নিয়ে আয়োজিত এক সেমিনারে এসব তথ্য জানান এনবিআর চেয়ারম্যান। সেমিনারে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটনমন্ত্রী রাশেদ খান মেনন।
 
এনবিআর চেয়ারম্যান মো. নজিবুর রহমান বলেন, ‘দেশের ইতিহাসে সবচেয়ে বড় বাজেট আগামী ২ জুন অর্থমন্ত্রী জাতীয় সংসদে উপস্থাপন করতে যাচ্ছেন।  যেটা ভবিষ্যতে বাংলাদেশের উন্নয়ন নিশ্চিতে ভূমিকা রাখবে’।
 
নজিবুর রহমান জানান, ‘এবারের ৩ লাখ ৪০ হাজার কোটি টাকার বাজেটের মধ্যে ২ লাখ ৩ হাজার ১৫০ টাকার রাজস্ব আদায়ের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হচ্ছে। সে হিসেবে দেখেছি মাসিক প্রায় ১৭ হাজার কোটি টাকা, দৈনিক ৫৬৫ কোটি টাকা এবং প্রতি ঘন্টায় প্রায় ২৪ কোটি টাকা আমাদের রাজস্ব সংগ্রহ করতে হবে’।
 
অনুষ্ঠানে কর্মকর্তাদের উদ্দেশ্যে এনবিআর প্রধান বলেন, ‘আপনাদের মধ্যে দেশপ্রেম দেখে, কর্মদক্ষতা দেখে আমি গর্ব বোধ করছি। আমরা ইতোপূর্বে লক্ষ্যমাত্রার অর্জনের সক্ষম হয়েছি। তাই আমাদের সামনে যত বড় পরিমানই রাজস্ব আদায়ের লক্ষ্যমাত্রা আসুক না আমরা আদায় করতে পারবো।
 
তিনি আরো বলেন, আমাদের প্রথমে বদলাতে হবে। রাজস্ব আদায়ে গণমুখি অবস্থান নিতে হবে। ব্যবসায়ীদের ওপর চাপ যেন না পড়ে সে বিষয়ে খেয়াল রাখতে হবে। আমরা আয়কর মেলাতে দেখেছি করদাতাদের তীব্র ভীড়। তাই আমি মনে করি, আমরা যদি পরিবেশ সৃষ্টি করতে পারি তাহলে আরো বেশি রাজস্ব আদায় সম্ভব হবে।
 
নতুন ভ্যাট আইন নিয়ে এ কর্মকর্তা আরও বলেন, আমরা ভ্যাট আইন বুঝানো ও তা বাস্তবায়নের জন্য দু’বছর ধরে বিভিন্ন জেলা-উপজেলা ও শহরে সেমিনার-কর্মশালা করছি। চেষ্টা করছি যেন বিষয়টি সাধারণ মানুষের কাছে সহজভাবে উপস্থাপন করা যায়। আমরা মূলত প্রধানমন্ত্রীর রুপকল্প-২০২১ বাস্তবায়নে কাজ করে যাচ্ছি। কেননা ২০২১ রুপকল্প বাস্তবায়ন হলেই রুপকল্প-২০৪১ বাস্তবায়ন করা সম্ভব হবে।’
 
সেমিনারে আরো বক্তব্য রাখেন এনবিআর সদস্য (কর) আব্দুর রাজ্জাক, সদস্য (মূসকনীতি) ব্যারিস্টার জাহাঙ্গীর হোসেন এবং সদস্য ( শুল্কনীতি) সুলতান মো. ইকবাল প্রমুখ।
প্রসঙ্গত,  চলতি অর্থবছরের বাজেটের শুরুতে ১ লাখ ৭৬ হাজার ৩৭০ কোটি টাকার লক্ষ্যমাত্রা ধার্য করে এনবিআর। পরে এপ্রিলের মাঝামাঝি সময়ে সংশোধিত লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয় ১ লাখ ৫০ হাজার ৭২০ কোটি টাকা। আগামী অর্থবছরের (২০১৬-২০১৭) জন্য নির্ধারণ হতে যাওয়া এই লক্ষ্যমাত্রা চলতি অর্থবছরের প্রাথমিক লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে ২৬ হাজার ৭৮২ কোটি টাকা বেশি। তবে এই অর্থবছরের তিন প্রান্তিকে (জুলাই থেকে মার্চ পর্যন্ত) লক্ষ্যমাত্রার তুলনায় রাজস্ব আদায়ে ঘাটতি দাঁড়িয়েছে ১৪ হাজার ৪৬ কোটি ৬০ লাখ টাকা। এই নয় মাসে রাজস্ব আদায়ের লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছিল ১ লাখ ২১ হাজার ২৬০ কোটি টাকা। সেখানে এই সময়ে রাজস্ব আদায় হয়েছে ১ লাখ ৭ হাজার ২১৩ কোটি ৪০ লাখ টাকা।

ব্যবসা-অর্থনীতি এর আরো খবর