মঙ্গলবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯
logo
মন্ত্রীদের পিছনে ‘গুপ্তচর’ নিয়োগ করলেন মমতা
প্রকাশ : ০১ নভেম্বর, ২০১৬ ১৬:৩৯:২৫
প্রিন্টঅ-অ+
পশ্চিম ওয়েব
কলকাতা: ত্রয়োদশ শতাব্দীর শেষের দিকে দিল্লির শাসনভার গ্রহণ করেছিলেন আলাউদ্দিন খিলজি। তার রাজত্বের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ বিষয় ছিল গুপ্তচর ব্যবস্থা। শুধুমাত্র বিদেশে ‘গুপ্তচর’ নিয়োগ নয়, নিজের রাজ্যের বিভিন্ন প্রশাসনিক বিভাগের কাজকর্ম তদারকির জন্যেও ‘গুপ্তচর’ নিয়োগ করেছিলেন সম্রাট আলাউদ্দিন খিলজি। ১৩১৬ সালে পতন ঘটে খিলজি বংশের। সাত শতাব্দী পেরিয়ে এবার সেই পথেই হাঁটতে চলেছেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

সূত্রের খবর, রাজ্যের সকল মন্ত্রীদের উপর গোপনে নজরদারি চালাতে শুরু করতে চলেছে নবান্ন। জানা গিয়েছে নবান্ন থেকে লালবাজারে কলকাতা পুলিশের কমিশনার রাজীব কুমারের কাছে নজরদারি চালানোর এই নির্দেশ দিয়েছেন খোদ মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

নিত্যদিন সন্ধ্যার পর থেকে গভীর রাত পর্যন্ত লালবাতির গাড়ি নিয়ে রাজ্যের জনপ্রতিনিধিরা কোথায় কোথায় যাচ্ছেন, কাদের সঙ্গে দেখা করছেন এবং কী কী চুক্তি করছেন পুলিশকে সেই সব রিপোর্ট পেশ করতে হবে নবান্নে। মন্ত্রীদের সঙ্গে নিযুক্ত পুলিশ কর্মীদেরকেই করতে হবে এই ‘গুপ্তচরে’র কাজ। ‘গুপ্তচর’ হিসেবে নিযুক্ত পুলিশকর্মীকে গাড়ির লগবুকে চালকদের সবিস্তার রাস্তার নাম, এলাকার নাম, কোথায় কোথায় মন্ত্রীরা যাচ্ছেন, তার বিস্তারিত বিবরণ লিপিবদ্ধ রাখার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

রাজ্যের মন্ত্রীদের সম্পর্কে বেশকিছু সন্দেহজনক তথ্য জমা পড়েছে রাজ্য প্রশাসনের সদর দফতর নবান্নে। বেশ কয়েকজন মন্ত্রীর গাড়ির চালকদের থেকে পাওয়া সেই তথ্যের ভিত্তিতেই মুখ্যমন্ত্রী এহেন কড়া ব্যবস্থা নিতে চলেছেন বলে জানা গিয়েছে সূত্র মারফত।

পশ্চিম বাংলা এর আরো খবর