শনিবার, ১৬ নভেম্বর ২০১৯
logo
প্রেমিকের ভয়ে ৩ তলা থেকে তরুণীর লাফ
প্রকাশ : ০৯ মার্চ, ২০১৬ ১১:৪৪:১৪
প্রিন্টঅ-অ+
পশ্চিম ওয়েব

চাঁদপুর : ধর্ষণের হাত থেকে বাঁচতে এক তরুণী তিনতলা থেকে ঝাঁপ দিয়েছেন। তবে ঝাঁপ দিলেও ভাগ্যক্রমে প্রাণে বেঁচে গেছেন তিনি। গত রোববার সন্ধ্যার দিকে ওই ঘটনায় ভারতের লিলুয়ার পেয়ারাবাগানে তীব্র চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়।
পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, ওইদিন সন্ধ্যায় রিষড়ার এক তরুণীকে বাড়িতে নিমন্ত্রণ করে লিলুয়ার পেয়ারাবাগোনের ‌যুবক নান্টু বোস। ওই তরুণীর সঙ্গে নান্টুর বহুদিনের সম্পর্কও ছিল।
কথা মতো ওই তরুণী নান্টু বাড়িতে চলে আসেন। সেখানে এসে ওই তরুণী দেখেন নান্টুর সঙ্গে রয়েছে আরো ২ ‌যুবক- ভোলা ও ছোট্টু। তারা একসঙ্গেই খাওয়াদাওয়া করে।
আর সেই খাওয়াদাওয়ার সময় পানীয়র সঙ্গে মাদক মিশিয়ে দেয়া হয় এবং ওই ‌তরুণীকে ধর্ষণের চেষ্টা করা হয়। তাতেই আতঙ্কিত ওই তরুণী তিনতলা থেকে নিচে ঝাঁপ দেন। অবশ্য নিচে বালি থাকায় কোনোক্রমে প্রাণে বেঁচে ‌যান ওই তরুণী।
হঠাৎ নিচে এক তরুণী নিচে লাফিয়ে পড়ায় অবাক হয়ে ‌যান আসপাশের লোকজন। পাড়ার লোকেরাই ধরাধরি করে তাকে এলাকার একটি হাসপাতালে ভর্তি করে। তরুণীর আঘাত খুব বেশি নয় বলে জানা গেছে। তাকে প্রাথমিক চিকিৎসার পর ছেড়েও দেয়া হয়েছে।
ওই তরুণী একটি টিভি চ্যানেলকে জানিয়েছেন, তাকে রাস্তা থেকে বাইকে তুলে আনে নান্টু। পরে ওই বাড়িতে নিয়ে তার সামনেই নান্টু ও তার বন্ধুরা মিলে মদ খেতে শুরু করে। পরে তাকে যৌন নিগ্রহ করারও চেষ্টা করে। আর এতে ভয় পেয়ে বারান্দা থেকে নিচে লাফ দেন ওই তরুণী।
এদিকে ঘটনার পরপরই পুলিশ ওই তিন ‌যুবককে গ্রেপ্তার করেছে। তাদের বিরুদ্ধে যৌন নিগ্রহের অভি‌যোগ আনা হয়েছে। তেবে ওই তরুণী নিজে কোনো ধর্ষণের অভি‌যোগ করেননি। তাছাড়া হাসপাতালের চিকিৎসকরাও জানিয়েছেন, ওই তরুণীকে ধর্ষণ করা হয়নি।

পশ্চিম বাংলা এর আরো খবর