মঙ্গলবার, ২৬ জুন ২০১৮
logo
তাইওয়ানে চার দিনব্যাপী ওয়ার্ল্ড কংগ্রেস অন ইনফরমেশন টেকনোলজি শুরু
প্রকাশ : ১১ সেপ্টেম্বর, ২০১৭ ১৩:১৭:৩৭
প্রিন্টঅ-অ+
তাইওয়ানের তাইপে নগরীতে আজ থেকে শুরু হয়েছে চার দিনব্যাপী ‘ওয়ার্ল্ড কংগ্রেস অন ইনফরমেশন টেকনোলজি-২০১৭ (ডবলিউসিআইটি)। বাংলাদেশ কম্পিউটার সমিতি’র (বিসিএস) উদ্যোগে সরকারি ও বেসরকারি পর্যায়ের অর্ধশতাধিক সদস্যের সমন্বয়ে উচ্চ পর্যায়ের একটি প্রতিনিধিদল তাইওয়ানের ডবি¬উসিআইটিতে যোগদান করছে। ডাক ও টেলিযোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী বেগম তারানা হালিম এ প্রতিনিধি দলের নেতৃত্ব দিচ্ছেন। ইতোমধ্যেই তারা ঢাকা ত্যাগ করেছেন।
তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি’র বিশ্ব অলিম্পিক আসর হিসেবে খ্যাত ডবলিউসিআইটি ’১৭’র এবারের প্রতিপাদ্য বিষয় নির্ধারণ করা হয়েছে ‘ডিজিটাল যুগের প্রতিজ্ঞা পূরণ : ডিজিটাল স্বপ্নে বসবাস’। একই স্থানে অনুষ্ঠিত হতে চলছে আরও দু’টি আন্তর্জাতিক সম্মেলন ‘অ্যাসোসিও আইসিটি সামিট ২০১৭’ এবং ‘৩৫তম অ্যাফ্যাক্ট পে¬নারি মিটিং’।
আজ সন্ধ্যায় তাইপে ইন্টারন্যাশনাল কনভেনশন সেন্টারে পরিচয় পর্বের মধ্যদিয়ে এ সম্মেলন শুরু হয়।
বিসিএস’র সভাপতি আলী আশফাকসহ তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগ, ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগ এবং বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের উর্ধ্বতন কর্মকর্তাবৃন্দ, বিসিএস’র কার্যনির্বাহী কমিটি’র সদস্যবৃন্দ, দেশের আইসিটি ব্যবসায়ীদের শীর্ষ নেতৃবৃন্দ, আইসিটি সাংবাদিক, স্কলার ও গবেষক এ প্রতিনিধি দলে রয়েছে।
উইটসা’র উদ্যোগে ‘ডবলিউসিআইটি ২০১৭’ এবং অ্যাসোসিও’র উদ্যোগে আয়োজিত হচ্ছে ‘অ্যাসোসিও আইসিটি সামিট ২০১৭’। এই উভয় সংগঠনেরই সদস্য বিধায় ইনফরমেশন সার্ভিসেস ইন্ডাস্ট্রি অ্যাসোসিয়েশন অব তাইওয়ান (সিসা) সরেজমিনে সম্মেলন দু’টি আয়োজনে মুখ্য দায়িত্ব পালন করছে। তাছাড়া, এশিয়া-প্যাসিফিক কাউন্সিল ফর ট্রেড ফ্যাসিলিটেশন অ্যান্ড ইলেক্ট্রনিক বিজনেস (অ্যাফ্যাক্ট) কর্তৃক ‘৩৫তম অ্যাফ্যাক্ট প্লেনারি মিটিং’ আয়োজনেও সিসা সহায়তা প্রদান করছে।
বিশ্বের ৮০টিরও বেশি দেশের প্রায় তিন হাজার নীতিনির্ধারক, তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তিবিদ, ব্যবসায়ী, উদ্যোক্তা, সরকারি কর্মকর্তা ও তরুণ প্রজন্মের প্রতিনিধিবৃন্দ সম্মেলনে অংশ নিচ্ছেন।

তথ্য-প্রযুক্তি এর আরো খবর