রোববার, ১৯ মে ২০১৯
logo
বড়দের লজ্জা কমালো ছোটরা
প্রকাশ : ২৩ আগস্ট, ২০১৭ ১৩:১৮:১১
প্রিন্টঅ-অ+
সাফ অনূর্ধ্ব-১৫ ফুটবলে বাংলাদেশের সেমিফাইনাল নিশ্চিত হয়েছিল আগেই। গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হওয়াটাই ছিল লক্ষ্য। সে লক্ষ্য ভালোভাবেই পূরণ করেছে বাংলাদেশের ছেলেরা। ভুটানকে ৩-০ গোলে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন হয়ে শেষ চারে পা রেখেছে তারা। গত অক্টোবরে ভুটানের কাছে ৩-১ গোলে হেরেই দেশের ফুটবলকে লজ্জায় ভাসিয়েছিল জাতীয় দল। অনূর্ধ্ব-১৫ দলের এ জয় যেন সেই ক্ষতে খানিকটা প্রলেপ। বাংলাদেশের পক্ষে জোড়া গোল মিরাজ মোল্লার। অপর গোলটি শ্রীলঙ্কা ম্যাচের ‘হ্যাটট্রিক-বয়’ ফয়সাল আহমেদ ফাহিমের।
জাতীয় দলের প্রতি নাখোশ হয়ে তৃণমূলে জোর দেয়ার কথা বলেছিলেন বাফুফে সভাপতি কাজী মোহাম্মদ সালাউদ্দিন। তৃণমূলে কাজও হচ্ছে। তার প্রমাণ প্রথম মিলেছিল মখ কাপে। সেখানে প্লেট পর্বে চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল বাংলাদেশের কিশোররা। এবার সাফ অনূর্ধ্ব-১৫ চ্যাম্পিয়নশিপেও তার ধারাবাহিকতা বজায় রেখেছে।
নেপালের কাঠমান্ডুতে আসরের আগের ম্যাচে শ্রীলঙ্কাকে ৬-০ গোলে হারানো ভুটানের জালে বাংলাদেশ প্রথম বল প্রবেশ করায় ম্যাচের ২৫ মিনিটে। দুর্দান্ত এক গোলে দলকে এগিয়ে দিয়েছিলেন ফাহিম। ৫২ মিনিটে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন মিরাজ। ৮০ মিনিটে নিজের দ্বিতীয় গোলে বাংলাদেশের বড় জয় নিশ্চিত করেন মিরাজই।
ফাহিমের গোলটি ছিল দর্শনীয়। সিরাজগঞ্জের এই কিশোর ফুটবলার আবারও নিজের গোল করার ক্ষমতার প্রমাণ রাখল। মাঠের ডান দিক দিয়ে বল নিয়ে ভুটানের সীমানায় ঢুকে বাঁ পায়ের ইনসুইং প্লেসিংয়ে গোল করে সে। মিরাজের প্রথম গোলটি ছিল স্বাধীনের ক্রস থেকে। ৮০ মিনিটে মিরাজের শেষ গোলটিও ছিল বুদ্ধিদীপ্ত। এ প্রতিযোগিতার বর্তমান চ্যাম্পিয়ন বাংলাদেশ। ২০১৫ সালে সিলেটে ভারতকে হারিয়ে শিরোপা জয়ের সেই ইতিহাসের পুনরাবৃত্তির লক্ষ্য এবার। সেমিফাইনালে অবশ্য শক্ত চ্যালেঞ্জের মুখোমুখি হতে হবে দলকে। সেখানে প্রতিপক্ষ হিসেবে বাংলাদেশের সামনে আসতে পারে ভারত ও নেপালের যেকোনো একটি দল।
বাংলাদেশ প্রথম ম্যাচে ৪-০ গোলে হারিয়েছিল শ্রীলঙ্কাকে। লঙ্কানদের ভুটান হারিয়েছিল ৬-০ গোলে। গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হওয়ার জন্য এ ম্যাচ জয়ের বিকল্প ছিল না বাংলাদেশের। আজ নেপাল ভারত ম্যাচের পরই সেমিফাইনালের প্রতিপক্ষ নির্ধারিত হবে বাংলাদেশের। যারা হারবে তাদেরকে সেমিফাইনালে প্রতিপক্ষ হিসেবে পাবে লাল সবুজের প্রতিনিধিরা। প্রতিপক্ষ নিয়ে মোটেও বিচলিত নন বাংলাদেশের হেড কোচ মোস্তফা আনোয়ার পারভেজ। গতকাল ম্যাচ শেষে এ কোচ জানান, আমার প্রাথমিক লক্ষ্য ছিল ভুটানকে হারিয়ে গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হওয়া। ছেলেরা দারুণ ফুটবল খেলে সে লক্ষ্য পূরণ করেছে। এখন আমাদের লক্ষ্য শিরোপা  জেতা । সেখানে সেমিফাইনালে প্রতিপক্ষ নিয়ে ভাবতে চাচ্ছি না।

খেলা এর আরো খবর