রোববার, ২০ অক্টোবর ২০১৯
logo
কেউ নাচছিলেন, কেউ সেলফিতে !
প্রকাশ : ৩০ নভেম্বর, ২০১৬ ২১:৩৩:৪৬
প্রিন্টঅ-অ+
ক্রীড়া ওয়েব
রিও ডি জেনেইরো: ম্যাচটা আজ হওয়ার কথা ছিল। প্রতিপক্ষ কলম্বিয়ার ক্লাব অ্যাটলেটিকো ন্যাশনাল। কোপা সুদামেরিকানা কাপের ফাইনালে নামার আগে প্রচুর অনুশীলনও করেছিল দলের চূড়ান্ত একাদশ। কিন্তু, শেষ ম্যাচটা আর খেলতে পারলেন না অ্যালান রাসেল, মার্সেলোরা। মাঝ আকাশেই ভেঙে পড়ল চ্যাপেকোয়েন্স FC-র চাটার্ড বিমানটি। মৃতের সংখ্যা ৭৬ স্পর্শ করে।

দক্ষিণ ব্রাজ়িলের ছোট্ট শহর চাপেকো। সেখান থেকেই চ্যাপেকোয়েন্স ক্লাবটি উঠে এসেছিল। দক্ষিণ অ্যামরিকার কোনও ক্লাব ফুটবল প্রতিযোগিতার ফাইনালে এই প্রথমবার উঠেছিল দলটি। তাই ফাইনালে যাওয়ার আগে ক্লাবের ড্রেসিংরুমে প্রত্যেকের চোখেই উচ্ছ্বাস ফুটে উঠছিল। কেউ নাচ করছিলেন, কেউ আবার একে অপরকে জড়িয়ে ধরছিলেন, কেউবা আবার মজেছিলেন সেলফিতে।

ফাইনালের পাঁচদিন আগে এমনই একটি ভিডিও দলের ফেসবুক পেজে পোস্ট করা হয়েছিল। আনন্দ হবে নাই বা কেন ! প্রথমবার যে দলের ইতিহাস বদলাতে যাচ্ছিলেন তারা।

আজ বিমানে ওঠার পরও ফুটবলারদের চোখে মুখে আনন্দ ধরা পড়ছিল। কিন্তু, কে জানত এই যাত্রাই তাদের শেষ যাত্রা হতে চলেছে ? তখনও ফুটবলাররা হাসিমুখে নিজেদের সেলফি তুলে ফেসবুকে পোস্ট করেছেন। এই হাসি তৃপ্তির হাসি, এই হাসি বিজয়ের হাসি। স্থানীয় সময় সোমবার রাত সওয়া দশটা নাগাদ মাটি ছেড়ে আকাশে পাড়ি দিল চাটার্ড বিমানটি।

বিমানে ছিলেন ৭২ জন যাত্রী এবং ন’জন বিমানের সদস্য। কিন্তু, মাত্র পাঁচজন ছাড়া কেউই প্রাণে বাঁচেননি।

খেলা এর আরো খবর