বৃহস্পতিবার, ১৪ নভেম্বর ২০১৯
logo
মেসিহীন বিশ্বকাপের আশঙ্কা
প্রকাশ : ১১ নভেম্বর, ২০১৬ ১২:১৫:২৮
প্রিন্টঅ-অ+
ক্রীড়া ওয়েব
বেলো হরিজন্তে:  গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে ব্রাজিবলের কাছে বিধ্বস্ত হলেও আর্জেন্টিনার আশা বাঁচিয়ে রাখলো পেরু৷ তাই মেসির দেশের লোকের অন্তত মনে মনে হলেও পেরুকে ধন্যবাদ জানাচ্ছে৷ একতরফা ম্যাচে নেইমারদের কাছে ৩-০ গোলে হারের পরও আর্জেন্টিনা যে এখনও পয়েন্ট টেবিলের ছয়ে রইলো পেরুর সৌজন্যেই।

২০১৮ রাশিয়া বিশ্বকাপের লতিন আমেরিকা বাছাই পর্বের ম্যাচে নিজেদের মাঠে ১০ মিনিটে এগিয়ে যাও প্যারাগুয়ে৷ কিন্তু অদ্ভুতভাবে ৯০ মিনিট শেষে ৪-১ গোলে পেরুর কাছে হারল তারা। ৭০ মিনিট পর্যন্ত যে ম্যাচের স্কোরলাইন ছিল ১-১।

সেখানে এই অপ্রত্যাশিত জয়ে পেরু সবচেয়ে বেশি স্বস্তি দিল আর্জেন্টিনাকেই।

প্যারাগুয়ে জিতে গেলে দশ দলের মধ্যে আর্জেন্তিনার জায়গা হতো সাতে। ১১ ম্যাচে মাত্র ৪ জয় আর চার ড্রয়ে ১৬ পয়েন্ট নিয়ে আপাতত ছয়ে আছে আর্জেন্তিনা। দক্ষিণ আমেরিকা অঞ্চল থেকে চারটি দল সরাসরি খেলবে বিশ্বকাপ। পঞ্চম দলটিকে প্লে অফ নামের আরেক বাধা পেরিয়েই টিকিট কাটতে হবে। যে কাজ একেবারেই সহজ নয়।

তিনে থাকা কলম্বিয়ার সঙ্গে আর্জেন্টিনার পয়েন্ট ব্যবধান মাত্র দুই। চার-পাঁচে থাকা ইকুয়েডর-চিলিও বেশি দূরে নেই। মাত্র এক পয়েন্টে এগিয়ে। এটা যদি আর্জেন্টিনার জন্য স্বস্তি হয়, তাহলে অস্বস্তিও আছে। সাত আর আটে থাকা প্যারাগুয়ে-পেরুও কিন্তু আর্জেন্টিনার  চেয়ে বেশি পিছিয়ে নেই। প্যারাগুয়ের পয়েন্ট ১৫, পেরুর ১৪। আর্জেন্টিনার চেয়ে এই দুই দল পিছিয়ে আছে যথাক্রমে ১ ও ২ পয়েন্টে। ফলে একটি জয়-পরাজয়ই দক্ষিণ আমেরিকা অঞ্চলের বাছাই পর্বের টেবিলের চিত্রটা পুরো উল্টে-পাল্টে দিতে পারে।

দক্ষিণ আমেরিকা অঞ্চলে ১৮টি ম্যাচ হয় বাছাই পর্বে। ফলে এখনও পথ অনেক দীর্ঘ। সাত ম্যাচ বাকি। ২১ পয়েন্টের হিসাব বাকি। কিন্তু পয়েন্ট টেবিলের বর্তমান চেহারা আর টানা চার ম্যাচ জয়শূন্য আর্জেন্টিনার একটুও স্বস্তিতে থাকার উপায় নেই।

মেসি থাকলেও আর্জেন্টিনার এখন কতটা কী করে সেটাই দেখার। না হলে ঘুরে-ফিরে বারবার আসছে ১৯৭০ বিশ্বকাপ।

যেবার চূড়ান্ত পর্বে যেতে ব্যর্থ হয়েছিল আর্জেন্টিনার। প্রথম দুই বিশ্বকাপ খেলার পর পরের তিন আসরে নিজেদের প্রত্যাহার করে নেওয়া, ১৯৫৮ বিশ্বকাপ দিয়ে আবারও ফিরে আসা আর্জেন্টিনা ওই একবারই বাছাই পর্বে ছিটকে পড়েছিল।

এদিন ব্রাজিলের কাছে হারের পর আবার আর্জেন্টিনান বিশ্বকাপের আশঙ্কা তৈরি হয়েছে৷ আশঙ্কা বাড়ছে মেসিহীন বিশ্বকাপেরও৷
 

খেলা এর আরো খবর