শুক্রবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৯
logo
নোট বদলাতে ৫০ লাখ রুপি নিয়ে হাজির ভিক্ষুক!
প্রকাশ : ১৮ নভেম্বর, ২০১৬ ১২:২৬:১২
প্রিন্টঅ-অ+
রকমারি ওয়েব
হায়দরাবাদ: ভারতে ৫০০ ও ১০০০ রুপির নোট বাতিলের পর তা বদলাতে দেশটির ব্যাংকগুলোতে হুমড়ি খেয়ে পড়ছে মানুষ। দীর্ঘ সময় লাইনে দাঁড়িয়ে বেশ কয়েকজন বৃদ্ধের মৃত্যুর খবরও এসেছে। অনেকে অধৈর্য হয়ে ফিরে যাচ্ছেন বাসায়। এরইমধ্যে হায়দরাবাদ প্রদেশের ভিখারাবাদ এলাকার একটি ব্যাংকে ৫০ লাখ রুপি বদলাতে হাজির হন এক ভিক্ষুক। এ ঘটনায় চোখ কপালে ওঠে ব্যাংক কর্মকর্তাদের।

সবকিছুই স্বাভাবিক ছিল; কিন্তু টাকার পরিমানটা বেশি হওয়ায় ব্যাংকের নিম্ন পদস্থ কর্মকর্তারা ওই ব্যক্তিকে বড় কর্তার সঙ্গে দেখা করতে বলেন। সেখানেই ঘটে বিপত্তি। ব্যাংকের এক কর্মকর্তা অর্থের উৎস সম্পর্কে জিজ্ঞাসা করেন তাকে। তার জবাবে হতভম্ব হয়ে যান ওই কর্মকর্তা।

ওই ব্যক্তি জানান, তিনিসহ পরিবারের সবাই ভিক্ষাবৃত্তিতে জড়িত এবং ভিক্ষা করে তারা এ অর্থ সঞ্চয় করেছেন।

শুধু তাই নয়, ওই ভিক্ষুক আরও জানান, সম্প্রতি তিনি দুই একর জমি বিক্রি করেছেন। পরে জমির কাগজপত্র দেখাতে না পারায় ব্যাংকের কর্মকর্তারা তাকে ফিরিয়ে দেন।

সম্প্রতি ভারতে ৫০০ ও ১০০০ হাজার টাকার নোট বাতিলের পর এ নিয়ে নানা সংকটের সৃষ্টি হয়। পুরনো নোটে হাসপাতালের বিল মেটাতে না পারায় রোগীর মৃত্যুর ঘটনাও ঘটে। পরে সবাই হুমড়ি খেয়ে পড়ে নোট বদলাতে। কিন্তু স্বল্প সময়ে এত বেশি মানুষের নোট বদলাতে গিয়ে হিমশিম খেতে হচ্ছে ব্যাংক কর্মীদের। ভোগান্তিতে পড়েছেন সাধারণ মানুষও।  সব কাজ ফেলে রেখে ঘণ্টার পর ঘণ্টা লাইনে দাঁড়িয়েও বদলানো যাচ্ছে না পুরনো নোট। নোট পাল্টাতে গিয়ে ঝামেলা সহ্য করতে না পেরে অনেকে নগ্ন হয়ে, আবার অনেকে নোট পুড়িয়ে কিংবা নদীতে ভাসিয়ে দিয়ে প্রতিবাদ করেছেন। এ নিয়ে প্রতিবাদী ভিডিওচিত্র তৈরি করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে দিয়েছেন অনেকে। নোট বাতিলের সিদ্ধান্ত প্রত্যাহারের দাবিতে উত্তপ্ত হয়ে উঠেছে রাজনৈতিক মহলও। তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায় কেন্দ্রীয় সরকারকে আল্টিমেটামও দিয়েছেন।
 

রকমারি এর আরো খবর