শুক্রবার, ২৪ নভেম্বর ২০১৭
logo
এতো তড়িঘড়ি চুক্তি কেন: রিজভী
প্রকাশ : ০৬ এপ্রিল, ২০১৭ ১৬:৩২:২৬
প্রিন্টঅ-অ+
রাজনীতি ওয়েব
ঢাকা: বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেছেন, “বর্তমান সরকারের শাসনামলে বাংলাদেশ-ভারত সম্পর্ক সর্বোচ্চ শিখরে রয়েছে বলে দুই দেশের সরকারি মহল থেকে একাধিকবার দাবি করা হয়েছে। যদি আকাশছোঁয়া সম্পর্কই থাকে, তবে এত তড়িঘড়ি করে চুক্তি কেন?”

বৃহস্পতিবার রাজধানীর নয়াপল্টনের দলীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে রিজভী এসব কথা বলেন।

রুহুল কবির রিজভী বলেন, “ভারতের নীতিনির্ধারকরা তো খুশি থাকবেনই, কারণ বাংলাদেশ থেকে না চাইতেই অনেক কিছু পাওয়া যায়। দিল্লি নিতে জানে, কিন্তু দিতে জানে না।”

সংবাদ সম্মেলনে প্রধানমন্ত্রীর সফরের কথা উল্লেখ করে রিজভী বলেন, “এই সফরকালে ভারতের সঙ্গে প্রতিরক্ষা ও সমঝোতা চুক্তি স্বাক্ষরিত হবে। অথচ বাংলাদেশ সরকার এসব স্পর্শকাতর বিষয় নিয়ে জাতিকে স্পষ্ট করে কিছুই বলছে না। ফলে উৎকণ্ঠা বেড়ে চলছে।”

সীমান্ত সমস্যা সমাধানের কথা বলে এর বিনিময়ে বাংলাদেশের ভূখণ্ডকেই একরকম ইজারা দেয়া হয়েছে বলে মন্তব্য করেন রিজভী।

রিজভী বলেন, “যেমন নামমাত্র মাশুলের বিনিময়ে ভারতকে বাংলাদেশের মধ্যদিয়ে বহুমুখী ট্রানজিটের নামে করিডোরের সুবিধা দেয়া হয়েছে। অবকাঠামো না থাকলেও অগ্রাধিকারের ভিত্তিতে চট্টগ্রাম ও মোংলা বন্দর ব্যবহার করার সুযোগ পাবে ভারত।”

রিজভী আরো বলেন, “আর দুই দেশের মধ্যে ৫৪টি অভিন্ন নদীর পানি বণ্টনের ন্যায্যহিস্যা তো দূরে থাক, এসব নদীর উজানে ভারত একতরফা পানি প্রত্যাহার করে নিচ্ছে। আর বাংলাদেশ অংশে এই নদীগুলো মরা খালে পরিণত হয়েছে।”

রাজনীতি এর আরো খবর