সোমবার, ০৯ ডিসেম্বর ২০১৯
logo
সমঝোতা ছাড়া ইসি নয়, খালেদার টুইট
প্রকাশ : ২৭ নভেম্বর, ২০১৬ ১৫:৪৬:১১
প্রিন্টঅ-অ+
রাজনীতি ওয়েব
ঢাকা: সমঝোতার মাধ্যমে নির্বাচন কমিশন (ইসি) গঠনে ফের আহ্বান জানিয়েছেন বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া।

শনিবার এক টুইটে তিনি লেখেন, “সকলের ভোটের অধিকার রক্ষায় সমঝোতার ইসি (নির্বাচন কমিশন) গড়ার প্রস্তাব বিএনপির একার বা তুচ্ছ কোনো বিষয় নয়। তাই আলোচনা দরকার, একতরফা ইসি নয়।”

নির্দলীয় সরকারের অধীনে দশম সংসদ নির্বাচন বর্জনকারী বিএনপির প্রধান আগামী জাতীয় নির্বাচন সামনে রেখে নির্বাচন কমিশন পুনর্গঠন নিয়ে গত ১৮ নভেম্বর ১৩ দফা প্রস্তাব তুলে ধরেন।

‘সব দলের’ মতৈক্যের ভিত্তিতে নির্বাচন কমিশন গঠনের প্রস্তাব করে খালেদা জিয়া বলেছেন, এই কমিশন হতে হবে ‘সব নিবন্ধিত রাজনৈতিক দল, অথবা স্বাধীনতার পর প্রথম জাতীয় সংসদ থেকে শুরু করে বিভিন্ন সময়ে জাতীয় সংসদে প্রতিনিধিত্ব করেছে এমন সকল রাজনৈতিক দলের’ মতৈক্যের ভিত্তিতে।

 নির্বাচন কমিশন গঠন নিয়ে খালেদার এই প্রস্তাবকে ‘অন্তঃসারশূন্য বলে নাকচ করেন ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের।

সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী কাদের বলেন, এই প্রস্তাবের মধ্য দিয়ে বিএনপি নেত্রী ‘সংবিধানকে অবজ্ঞা’ করেছেন। সংবিধানের আলোকেই নির্বাচন কমিশন (ইসি) গঠন করবেন তারা।

রাষ্ট্রপতি সার্চ কমিটি করে যেভাবে বিগত নির্বাচন কমিশন গঠন করেছিলেন, সে প্রক্রিয়া থেকে তাদের সরার ‘সুযোগ নেই’ বলে মন্তব্য করেন তিনি।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদকের ওই বক্তব্যের পরদিনই অর্থাৎ ১৯ নভেম্বর এক টুইট বার্তায় খালেদা জিয়া বলেছিলেন, “নিরপেক্ষ ইসি গঠনে আমি বিএনপির প্রস্তাবনা তুলে ধরেছি। অংশগ্রহণমূলক নির্বাচন চাইলে ক্ষমতাসীনরাও এর ভিত্তিতে আলোচনার সুযোগ নিতে পারে।”

২০১২ সালে রাজনৈতিক দলগুলোর সঙ্গে আলোচনা করে ‘সার্চ কমিটির’ মাধ্যমে কাজী রকিবউদ্দীন আহমদ নেতৃত্বাধীন বর্তমান নির্বাচন কমিশন গঠন করে দিয়েছিলেন তৎকালীন রাষ্ট্রপতি জিল্লুর রহমান।

এই নির্বাচন কমিশনকে ‘সরকারের আজ্ঞাবহ’ দাবি করে বিএনপি বলছে, তাদের অধীনে কোনো নির্বাচন সুষ্ঠু হওয়া সম্ভব নয়।

দশম সংসদ নির্বাচনসহ স্থানীয় সরকারের বিভিন্ন পর্যায়ের নির্বাচনে অনিয়ম ঠেকাতে কমিশনের উদাসীনতার অভিযোগ তুলে শেষ মুহূর্তে ভোট থেকে সরে দাঁড়িয়েছে বিএনপি।
 

রাজনীতি এর আরো খবর