মঙ্গলবার, ২২ অক্টোবর ২০১৯
logo
‘নাসিরনগরে হামলায় আওয়ামী লীগ জড়িত’- হাফিজ উদ্দিন আহমেদ
প্রকাশ : ০৫ নভেম্বর, ২০১৬ ১৪:৩০:৩৩
প্রিন্টঅ-অ+
রাজনীতি ওয়েব
ঢাকা:  ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নাসিরনগরে হিন্দুদের ওপর হামলায় ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ জড়িত বলে অভিযোগ করেছে বিএনপি। দলটির ভাইস চেয়ারম্যান হাফিজ উদ্দিন আহমেদ বলেছেন, ‘নাসিরনগরের তিন আওয়ামী লীগ নেতাকে বহিষ্কারই এর প্রমাণ।’

শনিবার সকালে গুলশানে বিএনপি চেয়ারপারসনের রাজনৈতিক কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে এই অভিযোগ করেন হাফিজ। এই ঘটনার সুষ্ঠু তদন্তের দাবি জানিয়ে বিএনপির সুপ্রিমকোর্টের বিচারপতির নেতৃত্বে বিচার বিভাগীয় তদন্ত কমিটি গঠনের দাবিও জানান তিনি।

হাফিজ উদ্দিন বলেন, কেবল নাসিরনগরের একটি ঘটনা নয়, গত সাত বছরে সংখ্যালঘুদের উপর যতগুলো হামলা হয়েছে তার সবগুলোতেই সরকারদলীয় লোকজন জড়িত।

ফেইসবুকে কথিত ধর্মীয় অবমাননাকর ছবি ছড়ানোর অভিযোগ তুলে গত রোববার নাসিরনগরে ১৫টি হিন্দু মন্দির ও শতাধিক হিন্দু বাড়িতে হামলা করে দুর্বৃত্তরা। এই ঘটনা পর্যবেক্ষণে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের পাশাপাশি প্রতিনিধি পাঠায় বিএনপিও।

হামলার পরদিন কাজল জ্যোতি দত্ত ও নির্মল চৌধুরী নামে দুজন বাদী হয়ে নাসিরনগর থানায় দুটি মামলা করেন। প্রতিটি মামলায় এক হাজার থেকে এক হাজার দুইশ জনকে অজ্ঞাত আসামি করা হয়। আর হামলায় উস্কানি দেয়ার অভিযোগে হামলার ছয় দিনের মাথায় গত শুক্রবার নাসিরনগরের তিন নেতাকে দল থেকে বহিষ্কার করে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা আওয়ামী লীগ। আর হামলার ভিডিওচিত্র দেখে পরদিন ৩৩ জনকে আটক করেছে পুলিশ।

শুক্রবার হাফিজ উদ্দিন আহমেদের নেতৃত্বে প্রতিনিধি দল ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে ক্ষতিগ্রস্থদের সঙ্গে কথা বলেছে। এই পরিদর্শনের অভিজ্ঞতা জানাতেই ঢাকায় এই সংবাদ সম্মেলন ডাকেন হাফিজ।

হাফিজ বলেন, ‘এই ঘটনায় পুলিশ দায়িত্বহীনতার পরিচয় দিয়েছে। পুলিশ মনে করছে তাদের উপর নির্ভর করে সরকার টিকে আছে। সুতরাং জনগণের নিরাপত্তা দেয়া তাদের মুখ্য বিষয় নয়। যদি তা না হতো দ্বিতীয় দফায় হামলা হলো কীভাবে?’।

দেশে আইনের শাসন ও গণতন্ত্র না থাকায় সংখ্যালঘুদের উপর বারবার হামলার ঘটনা ঘটছে বলেও মন্তব্য করেন হাফিজ।

তিনি বলেন, ‘সরকার মনে করছে তাদের ভোটের প্রয়োজন নেই। এ কারণে জনগণের পাশে থাকাটাও তাদের জন্য জরুরি নয়।’

নাসিরনগরে হিন্দুদের ওপর হামলায় আওয়ামী লীগকে জড়িয়ে বিএনপির অভিযোগের বিষয়ে জানতে চাইলে ক্ষমতাসীন দলের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক কোনো মন্তব্য করতে রাজি হননি।

তিনি বলেন, ‘বিএনপির অভিযোগের বিষয়ে আমরা দলের শীর্ষ নেতাদের সঙ্গে আলোচনা করে প্রতিক্রিয়া জানাবো।’

রাজনীতি এর আরো খবর