মঙ্গলবার, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০
logo
গুলশান হামলা গোয়েন্দাদের ব্যর্থতা
প্রকাশ : ১১ জুলাই, ২০১৬ ১৬:৩৪:০৪
প্রিন্টঅ-অ+
রাজনীতি ওয়েব

রংপুর: সাবেক রাষ্ট্রপতি ও জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ বলেছেন, “গুলশানের হলি আর্টিজান বেকারিতে ১৭ বিদেশি হত্যার ঘটনায় বাংলাদেশের প্রতি বিদেশিদের আস্থা নষ্ট হয়ে গেছে।”
তিনি বলেন, “গুলশানের মতো জায়গায় কয়েকটা ছেলে অস্ত্র নিয়ে আসলো, হামলা করলো, গোয়েন্দারা খবর পেল না, এটা হয় না। গোয়েন্দা বিভাগ জঙ্গি দমনে পুরোপুরি ব্যর্থ হয়েছে।”
রোববার দুপুরে রংপুর মহানগরীর পল্লী নিবাসে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে এ কথা বলেন তিনি।
তিন দিনের সফরে রংপুর এসেছেন এরশাদ। এ সময় তার সঙ্গে ছিলেন রংপুর মহানগর জাতীয় পার্টি আহ্বায়ক মোস্তাফিজার রহমান মোস্তফা, সদস্য সচিব এসএম ইয়াসির, জেলা সদস্য সচিব হোসেন মকবুল শাহরিয়ার, জাপা নেতা শাফিউল ইসলাম শাফি প্রমখু।
এরশাদ বলেন, সরকারকেই খুঁজে বের করতে হবে কীভাবে এই যুদ্ধে বিজয়ী হবে। গুলশানে মতো জায়গায় কয়েকটা ছেলে অস্ত্র নিয়ে আসলো, হামলা করলো, গোয়েন্দারা খবর পেল না, এটা হয় না। তারা ব্যর্থ।
এরশাদ বলেন, আমি প্রধানমন্ত্রীকে বলব, আর্মি এ বিষয়ে একটু জোড়দার করেন।  
যারা এই কাজে সহযোগিতা করতে পারে না, যাদের ব্যর্থতায় এই ঘটনা, তাদের বাদ দিয়ে নতুন লোক দেয়ার আহ্বান জানিয়েছেন তিনি।
প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ দূত বলেন, “আমরা যুদ্ধ করে স্বাধীন হয়েছি, আমরা গর্বিত জাতি। সন্ত্রাস দমনে আমরা বিদেশি কোনো সাহায্য সহযোগিতা চাই না। অন্য কোনো সহযোগিতার প্রয়োজন নেই। সন্ত্রাস নির্মূলে আমরা যা করার করবো। কর্মসংস্থানের অভাবে তরুণরা জঙ্গিবাদে ঝুকছেন।”
সাবেক রাষ্ট্রপতি এরশাদ বলেন, “আমরা ভালো নেই। দেশের সব মানুষ নিরাপত্তহীনতায় ভুগছে। গুলশানে মর্মান্তিক দুর্ঘটনা ঘটালো। অনেক নিরীহ মানুষ প্রাণ হারালো, তাতে আমি লজ্জিত, দুঃখিত। পৃথিবীর কাছে আমরা ছোট হয়েছি। আমাদের ভাবমুর্তি নষ্ট হয়েছে।”
সাবেক এই রাষ্ট্রপতি বলেন, “সন্ত্রাস দমনে আমি সংসদে বলেছিলাম, সব দল মিলে এক সাথে বসি, আলোচনা করি। কীভাবে এ থেকে রক্ষা পাওয়া যায়। সব দল এক সাথে বসলে সুরাহা হবে না। কিন্তু বিশ্ববাসী দেখবে, আমরা সবাই এক সাথে আছি। এটা একটা ভালো সুফল হবে।”
এরশাদ বলেন, “এই ঘটনায় বিদেশিরা হয়ত ইনভেস্ট করতে আসবে না। যেহেতু জীবনের নিরাপত্তা নেই। ইতালিয়ানরা হয়ত বাংলাদেশে আসবে না। অন্যকোনো দেশে তারা যাবে। আমার মনে হয়, আমরা অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হবো।”

রাজনীতি এর আরো খবর