বুধবার, ০৮ এপ্রিল ২০২০
logo
সদ্য সংবাদ :

গুলশানে প্রাণ ঝরেছে দেরিতে অভিযানে
প্রকাশ : ০৬ জুলাই, ২০১৬ ১৪:৪২:২১
প্রিন্টঅ-অ+
রাজনীতি ওয়েব

ঢাকা : গুলশানের হলি আর্টিসান বেকারি রেস্টুরেন্টে শুক্রবারের জিম্মি সঙ্কট সমাধানে সরকারের ‘বিলম্বে’ উদ্ধার অভিযান নিয়ে প্রশ্ন তুলেছে দেশের অন্যতম বৃহত্তর রাজনৈতিক দল বিএনপি।
দলটি বলছে, দেশি-বিদেশি নাগরিক জিম্মি হওয়ার ঘটনা মোকাবিলা করতে সরকারি সিদ্ধান্তের দোদুল্যমানতার কারণে দীর্ঘসূত্রিতায় এতগুলো মানুষের প্রাণ ঝরেছে।
বুধবার (৬ জুলাই) দুপুরে রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে দলের সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী ওই অভিযোগ করেন।
তিনি বলেন, ‘জিম্মি হওয়ার ঘটনা মোকাবিলা করতে সরকারি সিদ্ধান্তের দোদুল্যমানতার কারণে দীর্ঘসূত্রিতায় এতগুলো মানুষের প্রাণ ঝরে গেছে বলে এ দেশের মানুষ বিশ্বাস করে। জনগণ এও মনে করে, খুব দ্রুত দেশের নিরাপত্তা বাহিনী অভিযান চালালে হয়ত অনেক জীবন রক্ষা পেত।’
কূটনীতিকপাড়ার ওই রেস্টুরেন্টে শুক্রবার (১ জুন) রাত পৌনে ৯টার দিকে একদল অস্ত্রধারী ঢুকে দেশি-বিদেশি অতিথিদের জিম্মি করে। প্রায় ১২ ঘণ্টা পর শনিবার সকালে সেনাবাহিনীর নেতৃত্বে কমান্ডো অভিযানের মধ্য দিয়ে রেস্তোরাঁর নিয়ন্ত্রণ নেয় নিরাপত্তা বাহিনী। সেখান থেকে ১৩ জন জিম্মিকে জীবিত উদ্ধার এবং ২০ জনের লাশ উদ্ধার করা হয় বলে আইএসপিআর জানায়।
উদ্ধার অভিযানের পরপরই প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার একটি অনুষ্ঠানে যোগদানের সমালোচনা করে রুহুল কবির রিজভী বলেন, ‘গোটা জাতি যখন উদ্বেগ-উৎকণ্ঠায় রুদ্ধশ্বাসে জিম্মি ঘটনা অবলোকন করছে, যখন এতজন দেশি-বিদেশি মানুষের প্রাণহানিতে দেশ-বিদেশে আহজারি উঠেছে, দেশ-বিদেশের মানুষ যখন এই মর্মন্তুদ ঘটনায় শোকাচ্ছন্ন, ঠিক সেই মুহূর্তে শনিবার সকালে সন্ত্রাসীদের মোকাবিলায় অভিযান পরিচালনার পরপরই প্রধানমন্ত্রীর ঘটা করে চার লেনের সড়ক উদ্বোধন না করলেই পারতেন।’
উগ্রবাদ মোকাবিলায় বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার জাতীয় ঐক্যের আহ্বান নিয়ে ক্ষমতাসীন দলের কিছু মন্ত্রী-নেতার বক্তব্যের প্রতিক্রিয়ায় রিজভী বলেন, ‘আমরা বলতে চাই, শর্ত দিয়ে জাতীয় ঐক্য হয় না। কারণ কারা কী ঘটাচ্ছে, না ঘটাচ্ছে, এই অশুভ শক্তির তৎপরতা বন্ধ করতে হলে জাতীয় ঐক্যের প্রয়োজন। শর্ত দেয়ার কথাবার্তা বলে আসলে বিভাজনটাকেই তারা (ক্ষমতাসীন দল) রক্ষা করছে, তারা বিভেদের পথেই হাটছে।
এ থেকে উত্তরণ ঘটাতে হলে জাতীয় ঐক্য সৃষ্টি করে এই অশুভ শক্তির মোকাবিলা করতে হবে বলে দাবি করেন বিএনপির এই নেতা।
সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, খায়রুল কবির খোকন, হারুন-অর রশিদ; সাংগঠনিক সম্পাদক শামা ওবায়েদ, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট আব্দুস সালাম আজাদ, সহ-দপ্তর সম্পাদক আসাদুল করিম শাহীন, স্বেচ্ছাসেবক দলের সহ-সভাপতি সাইফুল ইসলাম পটু, যুগ্ম সম্পাদক আমিনুল ইসলাম, ছাত্রদলের যুগ্ম সম্পাদক মেহবুব মাসুম শান্ত প্রমুখ।

রাজনীতি এর আরো খবর