বুধবার, ০৮ এপ্রিল ২০২০
logo
ধর্মীয় অনুষ্ঠানও নিয়ন্ত্রণ করতে চায় সরকার
প্রকাশ : ২০ জুন, ২০১৬ ১৭:৫২:২১
প্রিন্টঅ-অ+
রাজনীতি ওয়েব

ঢাকা : আদালতের নিষেধাজ্ঞায় ২০ দলীয় জোট শরিক ন্যাশনাল পিপলস পার্টির (এনপিপি) ইফতার মাহফিল বাতিল হলেও বিষয়টিতে সরকারের হস্তক্ষেপ আছে বলে অভিযোগ তুলেছে জোটের প্রধান শরিক বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল-বিএনপি।
দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, ‘সরকার ধর্মীয় আচার-অনুষ্ঠানের ওপরও নিয়ন্ত্রণ প্রতিষ্ঠা করতে চায়। এরই অংশ হিসেবে পুলিশ সোনারগাঁও হোটেলে এনপিপির রোববারের ইফতার মাহফিল বন্ধ করে দেয়।’
সোমবার (২০ জুন) দুপুরে রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন মিলনায়তনে এক বিক্ষোভ সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন ফখরুল। দেশব্যাপী গণগ্রেপ্তারের প্রতিবাদে ঢাকা মহানগর বিএনপি এ সমাবেশের আয়োজন করে।
প্রসঙ্গত, আদালতের নিষেধাজ্ঞায় রোববার রাজধানীর হোটেল সোনারগাঁওয়ের বলরুমে ২০ দলীয় জোটের অন্যতম শরিক এনপিপির ইফতার মাহফিল বাতিল হয়ে যায়। বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকার কথা ছিল।
এর আগে গত ০৮ জুন শেখ শওকত হোসেন নিলুর নেতৃত্বাধীন ‘আসল’ ন্যাশনাল পিপলস পার্টির (এনপিপি) পক্ষ থেকে রমনা মডেল থানায় ড. ফরিদুজ্জামান ফরহাদের নেতৃত্বাধীন এনপিপির ইফতার মাহফিল যাতে না হয়, সেজন্য একটি জিডি করা হয়।
পরে নিলুর দল সিনিয়র সহকারী জজ চতুর্থ আদালতে ওই ইফতার অনুষ্ঠানের ওপর নিষেধাজ্ঞা চেয়ে একটি আবেদন জানায়। এর পরিপ্রেক্ষিতে আদালত অস্থায়ী নিষেধাজ্ঞা জারি করে সংশ্লিষ্ট হোটেল কর্তৃপক্ষকে ব্যবস্থা নিতে বলেন।
এ ব্যাপারে রমনা জোনের পুলিশের সহকারী কমিশনার শিবলী নোমান বলেন, ‘আদালতের নিষেধাজ্ঞা থাকায় আমরা সোনারগাঁও হোটেল কর্তৃপক্ষকে বিষয়টি জানিয়েছি। তারা ব্যবস্থা নিয়েছে।’
বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ও ঢাকা মহানগরের সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায়ের সভাপতিত্বে বিক্ষোভ সমাবেশে অন্যদের মধ্যে আরো বক্তব্য দেন- বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান আব্দুল্লাহ আল নোমান, যুগ্ম মহাসচিব খায়রুল কবির খোকন, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট আব্দুস সালাম আজাদ, শহীদুল ইসলাম বাবুল, ঢাকা মহানগর বিএনপির যুগ্ম আহ্বায়ক কাজী আবুল বাশার, খিলগাঁও থানা বিএনপির সভাপতি ইউনুস মৃধা ও পল্লবী থানা বিএনপি নেতা একেএম মোয়াজ্জেম হোসেন প্রমুখ।

রাজনীতি এর আরো খবর