শনিবার, ১৫ আগস্ট ২০২০
logo
খালেদা জিয়াই সরকারের প্রধান টার্গেট
প্রকাশ : ১৮ জুন, ২০১৬ ১৪:৫৩:২০
প্রিন্টঅ-অ+
রাজনীতি ওয়েব

ঢাকা : সরকারকে ‘ভোটারবিহীন’ আখ্যা দিয়ে বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী দাবি করে বলেছেন, এই সরকারের প্রধান টার্গেট হচ্ছে বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া। সে কারণেই চলমান দেশব্যাপী পুলিশী নির্যাতনের শিকার বিএনপির নেতাকর্মীরা।
শনিবার দুপুরে রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে এ দাবি  করেন তিনি।
রুহুল কবির রিজভী বলেন, ‘ভোটারবিহীন সরকারের আসল উদ্দেশ্য হচ্ছে, বিএনপির নেতাকর্মীদের ওপর ক্র্যাক ডাউন এবং অপপ্রচার চালিয়ে দলটিকে সমূলে বিনাশ সাধন করা। এ লক্ষ্যে চক্রান্ত হচ্ছে। কারণ, এর আগেও নানা দেশি-বিদেশি চক্রান্তে দলটিকে নিশ্চিহ্ন করা যায়নি। তাই চলমান দমন-পীড়ন বিএনপিকে ধ্বংস করার সরকারের শেষ চেষ্টা। মূলত এই সরকারের প্রধান টার্গেট হচ্ছে বিএনপির চেয়ারপারসন দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া। সেই কারণেই চলমান দেশব্যাপী পুলিশী নির্যাতনের শিকার হচ্ছেন বিএনপির নেতাকর্মীরা।’
তিনি আরো বলেন, ‘জঙ্গি দমনের নামে প্রহসনের এক চরম নাটক অনুষ্ঠিত করছে সরকারি দায়িত্বশীল লোকেরা। মামলা হচ্ছে, তদন্ত হচ্ছে কিন্তু কুপিয়ে হত্যাকারীর অধরাই থেকে যাচ্ছে। হত্যা রহস্যের কোনো কুল-কিনারাই হচ্ছে না। অথচ সরকারি বাহিনী ক্ষুধার্ত নেকড়ের মতো গ্রাম-শহর-নগর-বন্দরে হামলা করেছে। বিরোধী দলের নেতা-কর্মী যারা গ্রেপ্তার হয়নি, তারা দিশেহারা হয়ে প্রাণ ভয়ে অজানা গন্তব্যে পাড়ি জমিয়েছে।’
রিজভী দাবি করে বলেন, ‘সরকার জঙ্গি তৎপরতা দমন করতে যে নিষ্ঠুর পদ্ধতি গ্রহণ করেছে সেটিতে প্রকৃতপক্ষে জঙ্গিদের উৎপাত বন্ধ নয়, বরং সরকার যে একটা বিশেষ এজেন্ডা নিয়ে কাজ করেছে, সেটি এখন সুস্পষ্টভাবে প্রতিভাত হচ্ছে। তাদের সেই এজেন্ডা হচ্ছে, বিএনপিসহ গণতান্ত্রিক আন্দোলনের কর্মীদের জঙ্গি হিসেবে চিত্রিত করা। কারণ, আইন প্রয়োগকারী সংস্থা থেকে শুরু করে মিডিয়া নিয়ন্ত্রণে সকল যন্ত্র সরকারের হাতে।’
তিনি বলেন, ‘বিদেশি কুটনীতিক, আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংস্থা, দেশের বিভিন্ন অধিকার গ্রুপ সরকারের গণগ্রেপ্তারের স্বচ্ছতা নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করছে। এমনকি আটককৃত সন্দেহভাজন জঙ্গিরাও প্রকৃত জঙ্গি কিনা এবং বছরব্যাপী চাঞ্চল্যকর খুনগুলোর সঙ্গে তারা জড়িত কিনা, এটা নিয়ে জনমনে সংশয় আছে। কারণ, কোনো খুনেরই তদন্তে এখনও পর্যন্ত কোনো অগ্রগতি নেই ‘
সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, সাংগঠনিক সম্পাদক রুহুল কুদ্দুস তালুকদার দুলু, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট আব্দুস সালাম আজাদ, সেলিমুজ্জামান সেলিম, সহ-দপ্তর সম্পাদক তাইফুল ইসলাম টিপু, স্বেচ্ছাসেবক দলের সহ-সভাপতি সাইফুল ইসলাম পটু, যুগ্ম সম্পাদক আমিনুল ইসলাম, যুবদল ঢাকা মহানগর উত্তরের সহ-সভাপতি কফিল উদ্দিন ভুঁইয়া, ছাত্রদলের দপ্তর সম্পাদক আব্দুস সাত্তার পাটোয়ারী প্রমুখ।

রাজনীতি এর আরো খবর