শনিবার, ৩০ মে ২০২০
logo
লোগো পরিবর্তন করলো জামায়াত!
প্রকাশ : ০৮ জুন, ২০১৬ ০৯:৩৩:৪৮
প্রিন্টঅ-অ+
রাজনীতি ওয়েব

ঢাকা: কোনো আনুষ্ঠানিক ঘোষণা ছাড়াই নতুন লোগো সম্বলিত সংবাদ বিজ্ঞপ্তি দেয়া শুরু করেছে জামায়াতে ইসলামী। তবে দলের পক্ষ থেকে এ নিয়ে পরিষ্কার করে কোনো বক্তব্য দেয়া হচ্ছে না।
মঙ্গলবার দুপুরে গণমাধ্যমে পাঠানো একটি সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে লাল-সবুজ পতাকায় বাংলা হরফে ‘বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামী’ লেখা লোগো ব্যবহার করা হয়েছে। আগের লোগোতে আরবি ক্যালিগ্রাফিতে ‘আল্লাহ’ এবং তার উপর দলীয় প্রতীক দাঁড়িপাল্লা ছিল। এর নিচেই আরবিতে লেখা ছিল ‘আকিমুদ্দিন’ বা ‘দীন কায়েম করো’।
এ ব্যাপারে জানতে চাইলে দলটির কার্যনির্বাহী কমিটির এক সদস্য নাম প্রকাশ না করার শর্তে লোগো পরিবর্তনের বিষয়টি স্বীকার করেছেন। তবে এটিই চূড়ান্ত লোগো কি না সে ব্যাপারে নিশ্চিত করে বলেননি তিনি।
তিনি জানান, রমজানেই এ ব্যাপারে গণমাধ্যমকে জানানো হবে।
উল্লেখ্য, ২০০৯ সালে জামায়াতে ইসলামীর নিবন্ধন স্থগিত হয়ে যাওয়ার পর থেকে দলটি আর তাদের কোনো সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বা ব্যানারে, অনুষ্ঠানে কোনো লোগো ব্যবহার করছে না। এমনকি মগবাজারে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনের ব্যানারেও তারা কোনো লোগো ব্যবহার করেনি।
এদিকে একাত্তরে মানবতা বিরোধী অপরাধের দায়ে জামায়াতের শীর্ষ প্রায় সব নেতার ফাঁসি কার্যকর হয়েছে। এখন যুদ্ধাপরাধী রাজনৈতিক দল হিসেবে জামায়াতে ইসলামীর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার প্রক্রিয়া চলছে। ইতিমধ্যে জামায়াতের নিবন্ধন অবৈধ ঘোষণা করেছেন হাইকোর্ট। ফলে নির্বাচন কমিশনে তাদের নিবন্ধন স্থগিত রয়েছে। বিষয়টি আদালতে নিষ্পত্তি না হওয়া পর্যন্ত এ অবস্থায়ই থাকবে। একারণে তারা সম্প্রতি স্থানীয় সরকার নির্বাচনে অংশ নিতে পারেনি।
তবে সাম্প্রতিক ব্লগার, ভিন্ন মতাবলম্বী, সংখ্যালঘু ধর্মগুরুসহ বিভিন্ন হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে জঙ্গি সংশ্লিষ্টতার কথা বলা হলেও সরকার বলছে, এসব জঙ্গিদের সবাই দেশের অভ্যন্তরেই তৈরি হয়েছে। আর এরা সবাই একসময় জামায়াতের রাজনীতির সঙ্গে যুক্ত ছিল বলে গোয়েন্দাদের কাছে প্রমাণ রয়েছে।
ফলে যুদ্ধাপরাধের বিচার প্রক্রিয়ার মাধ্যমে নেতৃত্বশূন্য হয়ে যাওয়া দলটি এবার নিষিদ্ধ হয়ে যাবে বলেই ধারণা করা হচ্ছে। দলটির নেতাকর্মীদের মধ্যেও সেরকম প্রস্তুতির কথা শোনা যায়। দলের মধ্যে তারা ব্যাপক সংস্কারের বিষয়ে চিন্তা ভাবনা করছেন বলে জানা গেছে।

রাজনীতি এর আরো খবর