শনিবার, ১৭ নভেম্বর ২০১৮
logo
চাল আমদানির চুক্তি করতে মিয়ানমারে খাদ্যমন্ত্রী
প্রকাশ : ০৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৭ ১১:৫৩:৫৯
প্রিন্টঅ-অ+
ঢাকা, ০৭ সেপ্টেম্বর,২০১৭, চাঁদপুর ওয়েব: মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যে রোহিঙ্গাদের উপর বর্বরোচিত হামলার  মধ্যে দেশটি থেকে চাল আমদানির চুক্তি করতে মিয়ানমার গেলেন খাদ্যমন্ত্রী কামরুল ইসলাম। গতকাল বুধবার খাদ্যমন্ত্রীর নেতৃত্বে ৫ সদস্যের একটি প্রতিনিধি দল মিয়ানমার গেছে। দলটি মিয়ানমার থেকে বছরে ১০ লাখ টন চাল আমদানির ব্যাপারে একটি সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর (এমওইউ) করবে। পাশাপাশি দ্রুত ২ থেকে ৩ লাখ টন চাল আমদানির ব্যাপারেও চুক্তি করার আশা করছে তারা।
 
বাংলাদেশ প্রতিনিধি দলে খাদ্যমন্ত্রী ছাড়াও আছেন খাদ্য মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব আতাউর রহমান, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের মহাপরিচালক তোফাজ্জল হোসেন মিঞা, খাদ্যমন্ত্রীর ব্যক্তিগত সহকারী মোহাম্মদ হেলাল হোসেন। মন্ত্রীর নিজের খরচে তার স্ত্রী তায়েবা ইসলামও সফরসঙ্গী হিসেবে অন্তর্ভুক্ত হয়েছেন। দলটি ৯ সেপ্টেম্বর মিয়ানমার ছাড়বে বলে খাদ্য মন্ত্রণালয় থেকে জারি করা নির্দেশে বলা হয়েছে।
 
এর আগে ৪ সেপ্টেম্বর খাদ্যসচিব মো. কায়কোবাদ হোসেন ও উপসচিব জহিরুল ইসলাম খাদ্যনিরাপত্তা ও পুষ্টি বিষয়ে একটি অনুষ্ঠানে যোগ দিতে কলম্বিয়া যান। খাদ্যমন্ত্রীর মতো খাদ্যসচিবেরও ৯ সেপ্টেম্বর দেশে ফেরার কথা রয়েছে।
 
প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের নির্দেশনা অনুযায়ী, মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী ও সচিবের একসঙ্গে বিদেশ ভ্রমণ সাধারণভাবে পরিহার করার কথা বলা হয়েছে। অবশ্য জাতীয় স্বার্থে বিশেষ ক্ষেত্রে তা করা যেতে পারে।
 
খাদ্যমন্ত্রী কামরুল ইসলাম ও সচিব কায়কোবাদ হোসেন এমন সময়ে দেশের বাইরে রয়েছেন যখন দেশে মোটা চালের দাম কেজিপ্রতি ৪৫ টাকায় উঠেছে। চালের উচ্চমূল্য সাধারণ মানুষের জীবনযাত্রার ব্যয় বাড়িয়ে দিয়েছে। সংকট কাটাতে খাদ্য মন্ত্রণালয় চলতি বছর ১৫ লাখ টন চাল আমদানির পরিকল্পনা নিয়েছে। এর মধ্যে গত তিন মাসে খাদ্য অধিদফতরের গুদামে ১ লাখ ২৭ হাজার টন আমদানি করা চাল পৌঁছেছে।
 
চাল আমদানির এত সব চুক্তি ও বেসরকারি আমদানিকারকদের সুবিধা দিতে ২৫ শতাংশ শুল্ক প্রত্যাহারের পরও এখন পর্যন্ত চালের দাম তেমন কমেনি। ট্রেডিং করপোরেশন অব বাংলাদেশের (টিসিবি) হিসাবে গত এক মাসে মোটা চালের দাম কেজিতে এক টাকা বেড়েছে। খাদ্য মন্ত্রণালয় ও টিসিবির হিসাবে বাজারে মোটা চাল ৪৩ থেকে ৪৫ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে। মাঝারি মানের চালের দর কেজিতে ৪৭ থেকে ৫০ টাকা ও সরু চাল ৫২ থেকে ৫৮ টাকা। দেশের অভ্যন্তরীণ উৎস থেকে ১০ লাখ টন চাল সংগ্রহের লক্ষ্যমাত্রা ঠিক করলেও গত চার মাসে মাত্র ২ লাখ ৫৫ হাজার টন চাল সংগ্রহ করতে পেরেছে খাদ্য অধিদপ্তর।
 
 

জাতীয় এর আরো খবর