শুক্রবার, ৩০ অক্টোবর ২০২০
logo
শুরু হয়েছে কম্বিং অপারেশন আইরিন
প্রকাশ : ১৫ জুলাই, ২০১৬ ০৯:৫৫:৪১
প্রিন্টঅ-অ+
জাতীয় ওয়েব

ঢাকা : জঙ্গি ও সন্ত্রাসবাদ প্রতিরোধে অবৈধ অস্ত্র ও গোলাবারুদ উদ্ধারে আসিয়ান ও প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলের ৩৩টি দেশের মত বাংলাদেশেও শুরু হয়েছে কম্বিং অপারেশন ‘আইরিন’। বিশেষায়িত এই অভিযানটি চলবে ২০ দিন।
বৃহস্পতিবার বিকেলে হযরত শাহ জালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে এই অপারেশন শুরু হলেও শুক্রবার থেকে তা জোরদার করা হবে।
‘আইরিন’ নামের এ কম্বিং অপারেশনের প্রথম দিনে র‌্যাবের ডগ স্কোয়াড দিয়ে শাহজালাল বিমাবন্দরের কার্গো ভিলেজে অভিযান চালায় শুল্ক গোয়েন্দারা। অভিযানে গোলাবারুদ বা অস্ত্র উদ্ধার না হালেও মিলেছে ৭ হাজার ৪০০ পিস ভায়াগ্রা ও যৌন উত্তেজক ট্যাবলেট।
অভিযান শেষে শুল্ক ও গোয়েন্দা অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক মোহাম্মদ জাকারিয়া জানান, আন্তর্জাতিক পরিমণ্ডলে সন্ত্রাসী হামলাসহ নাশকতামূলক কর্মকাণ্ড প্রতিরোধে ‘এনফোর্সমেন্ট কমিটি অব দ্য কাস্টমস অপারেশন কাউন্সিল’ এর সিদ্ধান্ত অনুযায়ী এ অভিযান শুরু হয়েছে।
ওয়ার্ল্ড কাস্টমস অর্গানাইজেশনের (ডব্লিউসিও) অধীনে ‘রিজিওনাল ইন্টেলিজেন্স লিয়াজোঁ অফিস ফর এশিয়া অ্যান্ড প্যাসিফিক’ এ অভিযানের সমন্বয়ের দায়িত্ব পালন করছে বলেও জানান শুল্ক অধিদপ্তরের এ সহকারী পরিচালক।
তিনি বলেন, ‘শুল্ক গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদপ্তর এ অভিযানের অংশ হিসেবে পোস্টাল এবং কুরিয়ার সার্ভিসের মাধ্যমে নিয়ে আসা পার্সেলগুলোর স্ক্যান কার্যক্রম নিবিড়ভাবে পর্যবেক্ষণ করছে। অভিযানটি আরও জোরদার করার লক্ষ্যে আজ শুক্রবার থেকে র‌্যাব, সীমান্তরক্ষায় নিয়োজিত বিজিবি ও কোস্টগার্ডসহ সব সংস্থার সদস্যদের সহযোগিতা নেয়া হবে।’
এদিকে, র‌্যাব সদর দপ্তরের আইন ও গণমাধ্যম শাখার সহকারী পরিচালক এএসপি মিজানুর রহমান ভূঁইয়া বাংলামেইলকে বলেন, ‘শুল্ক অধিদপ্তরের গোয়েন্দা বিভাগের আবেদনের প্রেক্ষিতে কম্বিং অপারেশন ‘আইরিন’এ র‌্যাবের ডগ স্কোয়ার্ড পাঠানো হয়েছে।’

জাতীয় এর আরো খবর