সোমবার, ১৮ নভেম্বর ২০১৯
logo
কাশ্মিরে সেনা ঘাঁটিতে হামলা, ৩ হামলাকারী নিহত
প্রকাশ : ০৬ অক্টোবর, ২০১৬ ১৪:৪৮:২৭
প্রিন্টঅ-অ+

পাকিস্তান সীমান্তে ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনীর একজন সদস্যের সতর্ক প্রহরা। ফাইলছবি: রয়টার্স

আন্তর্জাতিক ওয়েব

চাঁদপুর: ভারত নিয়ন্ত্রিত কাশ্মিরের কুপওয়ারা জেলার এক সেনা ঘাঁটিতে হামলার চেষ্টাকালে ভারতীয় সেনাদের গুলিতে তিন হামলাকারী নিহত হয়েছেন।
বৃহস্পতিবার ভোর ৫টার দিকে কুপওয়ারার ল্যাঙ্গাতে এ ঘটনা ঘটে বলে জানিয়েছে এনডিটিভি।
গেলরাতে নিয়ন্ত্রণ রেখা বরাবর অনুপ্রবেশের চেষ্টা ব্যর্থ করে দেওয়া হয়েছে বলেও জানিয়েছেন দেশটির সেনা কর্মকর্তারা।
এক কর্মকর্তা জানিয়েছেন, ভোরে ‘সন্ত্রাসীরা’ সেনা শিবির লক্ষ করে গুলিবর্ষণ করে, কিন্তু সঙ্গে সঙ্গেই পাল্টা গুলিবর্ষণে সেনারা জবাব দেয়।
রাষ্ট্রীয় রাইফেলসের শিবিরের দুটি চৌকির দিকে গুলিবর্ষণ করেই দৌড় দেয় হামলাকারীরা। কিন্তু সেনাদের গুলিবর্ষণের মুখে হামলাকারীরা একপাশে আশ্রয় নিতে বাধ্য হয়।
এরপর দুপক্ষের মধ্যে প্রায় আধ ঘন্টা ধরে তীব্র গোলাগুলি চলে। এরই এক পর্যায়ে সেনাদের গুলিতে তিন হামলাকারী নিহত হন।
ওই সেনা কর্মকর্তা বলেন, “সেনারা সতর্ক থাকায় হামলা ব্যর্থ হয়।”
এ ঘটনার পর ওই সেনা শিবিরের আশপাশের গ্রামগুলোতে তল্লাশি অভিযান শুরু করা হয়েছে। অনুপ্রবেশের ঘটনায় পাকিস্তানি সীমান্ত চৌকি থেকে সহায়তা দেওয়া হচ্ছিল বলে অভিযোগ করেছেন ওই সেনা কর্মকর্তা।
বিচ্ছিন্নতাবাদী গোষ্ঠীর নেতা বুরহান ওয়ানি নিহত হওয়ার পর থেকে কাশ্মির উপত্যকায় সৃষ্ট সহিংস প্রতিবাদ বিক্ষোভে অন্ততপক্ষে ৯০ জন নিহত ও প্রায় ১০ হাজার জন আহত হন। উপত্যকাজুড়ে অস্থিরতা চলাকালেই উরির সেনা ঘাঁটিতে অজ্ঞাত হামলাকারীদের আক্রমণে ১৯ জন ভারতীয় সেনা নিহত হন।
এর কয়েকদিনের মধ্যে কাশ্মিরের পাকিস্তানি নিয়ন্ত্রিত অংশে ‘সার্জিক্যাল হামলা’ চালিয়ে অনুপ্রবেশের জন্য অপেক্ষারত ‘সন্ত্রাসীদের’ হতাহত করা হয়েছে বলে দাবি করে ভারত। তারপর থেকে ভারত-পাকিস্তান সীমান্তে নিয়মিত গোলাগুলির পাশাপাশি উত্তেজনা অব্যাহত আছে।
কাশ্মিরজুড়ে ভারতীয় সেনাবাহিনীর উচ্চ সতর্কাবস্থা সত্বেও তাদের লক্ষ্য করে বেশ কয়েকবার হামলার চেষ্টা হয়।
 

আন্তর্জাতিক এর আরো খবর