শনিবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৯
logo
ট্রাম্প বোকা, হিলারি দুর্বল
প্রকাশ : ০৫ অক্টোবর, ২০১৬ ১৭:২৭:৩০
প্রিন্টঅ-অ+
আন্তর্জাতিক ওয়েব

ওয়াশিংটন ডিসি: আসন্ন আমেরিকার নির্বাচনে দুই ভাইস প্রেসিডেন্ট প্রার্থীর একমাত্র সরাসরি বিতর্ক হয়েছে। অংশ নেন ডেমোক্র্যাট প্রার্থী হিলারি ক্লিনটনের রানিং মেট টিম কেইন এবং রিপাবলিকান ডোনাল্ড ট্রাম্পের রানিং মেট মাইক পেন্স।
নারী অধিকার, ট্রাম্পের কর ফাঁকি, গর্ভপাত, রাশিয়াসহ বিভিন্ন ইস্যুতে চলে দেড় ঘণ্টার বাকযুদ্ধ। বাদ যায়নি ব্যক্তিগত আক্রমণও। বোকা থেকে দুর্বল, ব্যর্থ থেকে অধৈর্য সব ধরনের শব্দই ব্যবহার করেছেন দুই প্রার্থী।
ভার্জিনিয়ার লংউড বিশ্ববিদ্যালয়ে নব্বই মিনিটের এ বিতর্কে  অন্যান্য ইস্যুর মধ্যেও উভয় প্রার্থী নিজেদের হিলারি ক্লিনটন ও ডোনাল্ড ট্রাম্পেই নিবন্ধ রাখেন।
ট্রাম্পের কর ফাঁকির প্রসঙ্গ তুলে কেনো তিনি রিটার্ন জমা দেননি ডেমোক্র্যাট কেইন সেই প্রশ্ন ছুঁড়ে দেন ট্রাম্পের রানিং মেট মাইক পেন্সের দিকে।
তবে, অডিট শেষ হলেই একজন যোগ্য প্রেসিডেন্ট হিসেবে ট্রাম্প ট্যাক্স রিটার্ন জমা দেবেন বলে জানান রিপাবলিকান পেন্স।
ওবামাবার চেয়ে পুতিন অনেক ভাল নেতা-রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট পুতিনের এমন প্রশংসা এবং নর্থ কোরিয়ার প্রেসিডেন্ট ও লিবিয়ার সাবেক স্বৈরশাসক মুয়াম্মার গাদ্দাফির প্রশংসা করায় ট্রাম্পের দৃষ্টিভঙ্গি নিয়েও প্রশ্ন তোলেন ডেমোক্র্যাট কেইন।
তিনি বলেন, সে তো রাজনৈতিক নেতৃত্ব ও স্বৈরশাসনের পার্থক্যই বোঝে না ।
ট্রাম্পকে বোকা, অধৈর্য ও স্বৈরতন্ত্রের সমর্থক বলে উল্লেখ করেন কেইন। সেই সাথে ট্রাম্প কিভাবে রাশিয়ার সাথে ব্যবসা করেন সেটা নিয়েও প্রশ্ন করেন।
জবাবে পেন্স হিলারিকে দুর্বল এবং ব্যর্থ নেতা বলে বর্ণনা করেন। একজন পররাষ্ট্রমন্ত্রী হিসেবে পররাষ্ট্র নীতিতে তিনি ব্যর্থ হয়েছেন।
পুতিনের বিষয় উল্লেখ করে পেন্স বলেন, ট্রাম্পের শক্তিশালী মনোবলের জন্যেই পুতিন তাকে শ্রদ্ধা করেন। ট্রাম্পও সেটাই করে। এটা খুবই সোজা হিসাব।
ডোনাল্ড ট্রাম্পের ১৮ বছরের কর ফাঁকির তথ্য ফাঁসে ক্যাম্পেইনে ডেমোক্রেটিক পার্টির চেয়ে পিছিয়ে পড়েছে রিপাবলিকান পার্টি। আর এমন সময় আবারো মেক্সিকো ও নারী অধিকার নিয়ে ট্রাম্পের বিপক্ষে বিতর্ক ক্যাম্পেইনে বিরূপ প্রভাব ফেলবে বলে আশঙ্কা করছেন রাজনৈতিক বিশ্লেষকদের।
 

আন্তর্জাতিক এর আরো খবর