মঙ্গলবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯
logo
সদ্য সংবাদ :

গেরিলার ২,৩৬৭ সদস্যকে মুক্তিযোদ্ধার স্বীকৃতি

অপ্রাপ্ত বয়স্কদের দিয়ে কোরবানির পশু জবাই, বিতর্ক

যুদ্ধাপরাধীদের সন্তানদের বিরুদ্ধেও যুদ্ধ: আইনমন্ত্রী

সিটিসেল গ্রাহকদের অপারেটর বদলের বিজ্ঞপ্তি আদালতে স্থগিত

শাহরাস্তিতে প্রবাসীর পরিবারের লোকজনকে অচেতন করে নগদ অর্থ ও স্বর্ণালঙ্কার লুট

জঙ্গি তৎপরতা ও মাদক ব্যবসায় জড়িতদের তথ্য দিয়ে পুলিশকে সহযোগিতা করুন

গণি মডেল উচ্চ বিদ্যালয়ের শতবর্ষ ও পুনর্মিলনী উপলক্ষে প্রস্তুতি সভায় মেয়র নাছির উদ্দিন আহমেদ

৮ম পাঞ্জেরী-চাঁদপুর কণ্ঠ বিতর্ক প্রতিযোগিতার ফাইনাল সম্পন্ন

হতদরিদ্র মানুষের মুখে হাসি ফুটাতে সরকার বিনমূল্যে চাল বিতরণসহ বিভিন্ন কর্মসূচি নিয়েছে

রহিমানগরে কলেজ ছাত্রীকে উত্ত্যক্ততার দায়ে বখাটের দুবছর জেল

ওবামার চেয়ে পুতিন ভালো নেতা: ট্রাম্প
প্রকাশ : ০৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ১২:৪০:৩৭
প্রিন্টঅ-অ+
আন্তর্জাতিক ওয়েব

চাঁদপুর: যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামার চেয়ে রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন ভালো নেতা বলে মন্তব্য করেছেন আসছে নভেম্বরে মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে রিপাবলিকান দলের প্রেসিডেন্ট প্রার্থী ডোনাল্ড ট্রাম্প। স্থানীয় সময় বুধবার রাতে একটি টেলিভিশন ফোরামে যুক্তরাষ্ট্রের বৈশ্বিক নেতৃত্ব নিয়ে নিজের অবস্থান সম্পর্কে কথা বলেন ট্রাম্প।
বিবিসি জানায়, মন্তব্যটা এমন একটা সময় করা হলো যেদিন পেন্টাগন বিশ্বে অস্থিরতা সৃষ্টির বীজ বপনের জন্য রাশিয়ার বিরুদ্ধে অভিযোগ আনে।
একই ফোরামে যোগ দেন ডেমোক্রেটিক পার্টির প্রেসিডেন্ট প্রার্থী হিলারি ক্লিনটন। তিনি ই-মেইল কেলেঙ্কারি ইস্যুতে নিজের অবস্থান ব্যাখ্যা করেন।
এনবিসি টেলিভিশনের এ অনুষ্ঠানে হিলারি-ট্রাম্প পরপর কথা বলেন। প্রেসিডেন্ট ওবামার প্রথম মেয়াদে পররাষ্ট্রমন্ত্রী ছিলেন হিলারি ক্লিনটন। বৈশ্বিক নেতৃত্বে ওই সময়ের সরকারের কঠোর সমালোচনা করেন ট্রাম্প।
পূর্বাভাস দিয়ে ট্রাম্প বলেন, আসছে নভেম্বরের নির্বাচনে যদি আমি নির্বাচিত হয়, তাহলে পুতিনের সঙ্গে ভালো সম্পর্ক স্থাপন করব।
তবে, রুশ প্রেসিডেন্টকে সম্মান দিয়ে কথা বলা ট্রাম্পের কিন্তু নতুন নয়। এর আগেও তিনি পুতিনের প্রশংসা করেছেন। গত ডিসেম্বরে বিতর্কিত এই ব্যবসায়ী বলেন, মিস্টার পুতিন যদি তাকে একজন 'ট্যালেন্টেড পারসন' বলেন, তাহলে সেটা হবে বড় সম্মানের।
৮ নভেম্বর অনুষ্ঠেয় প্রেসিডেন্ট নির্বাচন উপলক্ষে দলীয় মনোনয়ন পাওয়ার পর হিলারি ও ট্রাম্প এই প্রথম একই মঞ্চে কথা বললেন। পররাষ্ট্রমন্ত্রী থাকার সময় ব্যক্তিগত ই-মেইল ব্যবহার করে রাষ্ট্রীয় তথ্যের আদান-প্রদান নিয়ে প্রশ্নের মুখে পড়েন হিলারি।
সূত্র: বিবিসি
 

আন্তর্জাতিক এর আরো খবর