বৃহস্পতিবার, ০৬ আগস্ট ২০২০
logo
মার্কিন স্টেট ডিপার্টমেন্টের প্রতিবেদন
বিশ্বজুড়ে কমেছে সন্ত্রাসী হামলা, বেড়েছে বাংলাদেশে
প্রকাশ : ০৩ জুন, ২০১৬ ১৯:৫৯:২৮
প্রিন্টঅ-অ+
আন্তর্জাতিক ওয়েব

চাঁদপুর: বিশ্বজুড়ে ২০১৫ সালে সন্ত্রাসী হামলার ঘটনা উল্লেখযোগ্য হারে কমলেও বাংলাদেশে সন্ত্রাসী হামলার ঘটনা এবং এসব ঘটনায় নিহতের সংখ্যা পূর্বের চেয়ে উদ্বেগজনকভাবে বেড়েছে বলে মার্কিন স্টেট ডিপার্টমেন্টের প্রতিবেদনে উঠে এসেছে।
প্রতিবেদন অনুসারে, ২০১৪ সালের তুলনায় ২০১৫ সালে এসে বিশ্বজুড়ে সন্ত্রাসী হামলার পরিমাণ ১৩ শতাংশ কমেছে। তবে আফগানিস্তান, বাংলাদেশ, মিশর, ফিলিপাইন, সিরিয়া এবং তুরস্কে তা বেড়েছে। এছাড়া বাংলাদেশে আইএস জঙ্গিদের কর্মকাণ্ড চলছে বলেও জানানো হয় প্রতিবেদনে।
এ প্রসঙ্গে স্টেট ডিপার্টমেন্টের সন্ত্রাসদমন বিভাগের ভারপ্রাপ্ত সমন্বয়ক জাস্টিন সিবেরেলা বলেন, সন্ত্রাসী হামলার ঘটনা এবং এতে নিহতের সংখ্যা আফগানিস্তান, বাংলাদেশ, মিশর, ফিলিপাইন, সিরিয়া এবং তুরস্কে বেড়েছে।
প্রতিবেদনে আইএস প্রকাশিত দাবিক ম্যাগাজিনের ২০১৫ সালের সংখ্যায় ‘দ্য রিভাইভাল অব জিহাদ ইন বেঙ্গল’র উদ্ধৃতি দিয়ে বলা হয়, বাংলাদেশে সংগঠনটির ভবিষ্যৎ হামলা পরিকল্পনা রয়েছে। তবে এত কিছুর পরও সন্ত্রাসবাদ মোকাবিলায় বাংলাদেশ সরকারের আন্তরিকতা এবং বিভিন্ন পদক্ষেপের প্রশংসা করা হয়।
এছাড়া স্টেট ডিপার্টমেন্টের ভাষ্য মতে, সন্ত্রাসী হামলার শিকার বিশ্বের শীর্ষ পাঁচ দেশের মধ্যে প্রথম তিনটি হচ্ছে: ইরাক, পাকিস্তান এবং নাইজেরিয়া। এছাড়া শেষের দুটি দেশ হচ্ছে: ভারত এবং আফগানিস্তান। ২০১৫ সালে সারা বিশ্বে মোট ১১ হাজার সন্ত্রাসী হামলার মধ্যে এই পাঁচটি দেশের সীমান্তের অভ্যন্তরেই ঘটেছে অর্ধেকের বেশি হামলার ঘটনা।
এদিকে জাতিসংঘ জানিয়েছে, আন্তর্জাতিক পর্যায়ে হামলার লক্ষ্য নিয়েছে সন্ত্রাসী বাহিনী ইসলামিক স্টেট (আইএস)। গত ছয় মাসে সিরিয়া, ইরাক, ইয়েমেন, আফগানিস্তান এবং লিবিয়া ছাড়াও আরো ১১টি দেশে হামলা করেছে আইএস।
যুক্তরাষ্ট্রের মেরিল্যান্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের এক সমীক্ষায় দেখা গেছে, সন্ত্রাসী হামলার শিকার হয়ে নিহতের সংখ্যা ২০১৪ সালের তুলনায় ২০১৫ সালে ১৪ শতাংশ কমেছে। গত বছর বিশ্বব্যাপী ১১ হাজার ৭৭৪টি সন্ত্রাসী হামলার ঘটনায় নিহতের পরিমাণ ছিল ২৮ হাজার ৩০০ জন এবং আহত হয়েছে ৩৫ হাজার ৩০০ জন।
স্টেট ডিপার্টমেন্টের প্রতিবেদনে বলা হয়, যেসব দেশে রাজনৈতিক স্বাধীনতা এবং মত প্রকাশের স্বাধীনতা রুদ্ধ করা হয়েছে সেসব দেশকে সন্ত্রাসীরা ব্যর্থতার দিকে নিয়ে যাচ্ছে। মধ্যপ্রাচ্য, আফ্রিকার এবং এশিয়াজুড়ে আইএস তাদের সমর্থক বাড়িয়ে তুলছে এবং এই অঞ্চলের দেশগুলোর জন্য এই সংগঠনটি এককভাবে সবচেয়ে বড় হুমকি।
ইরাক এবং সিরিয়াতে আইএস তাদের ভূখণ্ড হারালেও দলটি লিবিয়া এবং মিশরে শক্তিশালী হচ্ছে। ইরানকে সন্ত্রাসবাদের সবচেয়ে বড় উস্কানিদাতা হিসেবেও বলা হয় প্রতিবেদনে। ইরাক এবং সিরিয়ায় সহিংসতা বাড়িয়ে দিচ্ছে ইরান এবং বাহরাইনে তারা শিয়া সন্ত্রাসীদের সহায়তা করছে বলে জানায় স্টেট ডিপার্টমেন্ট।

আন্তর্জাতিক এর আরো খবর