বুধবার, ২৮ অক্টোবর ২০২০
logo
যে ৯টি দেশে রয়েছে বিশ্বের ১৫,৮৫০টি পারমাণবিক বোমা
প্রকাশ : ২৯ মে, ২০১৬ ১৭:০৪:১৮
প্রিন্টঅ-অ+
আন্তর্জাতিক ওয়েব

চাঁদপুর : মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা তার ঐতিহাসিক হিরোশিমা সফরের সময় ‘পারমাণবিক অস্ত্র মুক্ত পৃথিবী’ গড়ে তোলার আহবান জানিয়েছেন। অথচ এই মুহূর্তে পৃথিবীতে রয়েছে ১৫ হাজার ৮৫০টি পারমাণবিক বোমা।
স্টকহোম ইন্টারন্যাশনাল পিস রিসার্চ ইন্সটিটিউটের প্রকাশিত একটি প্রতিবেদন মতে, এই বোমাগুলো বিশ্বের মোট ৯টি দেশ ছড়িয়ে রয়েছে। বোমার সংখ্যাভিত্তিক স্টাটিসটার একটি তালিকায় দেখা যায়, মোট পারমানিক বোমার মধ্যে ৯৩ শতাংশই রয়েছে রাশিয়া ও যুক্তরাষ্ট্রে।
রাশিয়াতে রয়েছে সাড়ে সাত হাজার বোমা। তারপরেই যুক্তরাষ্ট্রে ৭ হাজার ২শ। এছাড়া ফ্রান্স, চীন, যুক্তরাজ্য, পাকিস্তান, ভারত, ইসরায়েল এবং সবার শেষে উত্তর কোরিয়া।
দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের শেষ পর্যায়ে জাপানের হিরোশিমা ও নাগাসাকি শহরে পারমাণবিক বোমা হামলা চালায় যুক্তরাষ্ট্র। তখনই সারা বিশ্ব প্রথম এর ভয়াবহতা উপলব্ধি করে। ঐ হামলায় জাপানের প্রায় দেড় লাখ মানুষ মারা যান। বারাক ওবামাই প্রথম মার্কিন প্রেসিডেন্ট যিনি হিরোশিমা সফর করেছেন সম্প্রতি।
হিরোশিমায় জাপানের প্রেসিডেন্ট শিনজো অ্যাবে ও বোমার আঘাত থেকে বেঁচে যাওয়া মানুষের উদ্দেশ্যে ওবামা বলেন, ‘আমরা হয়তো মানুষের কুকর্ম করা পুরোপুরি বন্ধ করতে পারবো না, কিন্তু সবদেশ মিলেমিশে আমরা সেই কুকর্ম থেকে নিজেদেরকে রক্ষা করতে পারবো। আমাদের আর যে দেশগুলোর পারমাণবিক অস্ত্রের মজুদ রয়েছে তাদের ভয়ের যুক্তি থেকে বেরিয়ে পরমাণু মুক্ত পৃথিবী গড়ে তোলা উচিৎ।’
স্টকহোম ইন্টারন্যাশনাল পিস রিসার্চ ইন্সটিটিউটের প্রতিবেদনে বলা হয়, বিশ্বের মোট পরমাণু অস্ত্রের সংখ্যা কমছে। কারণ রাশিয়া ও যুক্তরাষ্ট্র তাদের অস্ত্রের সংখ্যা ক্রমশই কমিয়ে আনছে। যদিও চীন, ফ্রান্স, রাশিয়া এবং যুক্তরাজ্যের মত অন্য যে দেশগুলো বোমার সংখ্যা কমানোর চেয়ে বাড়ানোর ইঙ্গিতই দিয়ে আসছে এতদিন।

আন্তর্জাতিক এর আরো খবর