শুক্রবার, ২৩ অক্টোবর ২০২০
logo
আসছে ঈদ, বাড়ছে বিদেশি ব্রান্ডের নকল প্রসাধনী
প্রকাশ : ২৬ জুন, ২০১৬ ০৯:৪৪:২১
প্রিন্টঅ-অ+
হাইলাইটস ওয়েব

ঢাকা : আসছে ঈদ, বাড়ছে কেনাকাটা। প্রতিদিনই রাজধানীসহ দেশের প্রধান শহর এবং জেলা শহরগুলোতে বাড়ছে ক্রেতাদের ভিড়। রঙ-বেরঙের বাহারি পোশাকের পাশাপাশি বিশেষত মেয়েদের নজর এখন বিদেশি ব্রান্ডের দামি প্রসাধনীর দিকে। কড়া রঙের বাহারি মোড়কওয়ালা এইসব প্রসাধনী দূর থেকে দেখলে পলকেই চোখ জুড়িয়ে যায়।
ঈদের কেনাকাটার ব্যস্ততায় রঙচঙে ঢাকা এইসব প্রসাধনী দেখে মুহূর্তেই এর গুণগত মান বোঝার কোনোই উপায় নেই। ধরা যাচ্ছে না কোনটা আসল কোনটা নকল। বিভিন্ন প্রসাধনীর গায়ে লেখাগুলোও একই রকম। আর তাতে করে সুবিধা মতো দাম হাকিয়ে নিচ্ছেন ব্যবসায়ীরা। আসন্ন ঈদকে সামনে রেখে রাজধানীর মার্কেটগুলোতেও বিদেশি ব্রান্ডের এইসব নকল প্রসাধনী বিক্রির ধুম লেগেছে।
শনিবার (২৫ জুন) রাজধানীর বিদেশি প্রসাধনীর পাইকারি বাজার চকবাজারে অভিযান চালিয়ে এমনই কিছু প্রতিষ্ঠানের সন্ধান পেয়েছে র‌্যাব-১০। দুপুর ১২টা থেকে শুরু হয়ে এ অভিযান চলে বিকেল ৫টা পর্যন্ত। অভিযান পরিচালনা করেন র‌্যাব সদর দপ্তরের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আনিছুর রহমান।
অভিযান শেষে তিনি বাংলামেইলকে জানান, চকবাজারে অভিযান চালিয়ে বিপুল পরিমাণ বিদেশি ব্র্যান্ডের নকল প্রসাধনী জব্দ করা হয়েছে। এর মধ্যে রয়েছে নকল শ্যাম্পু, বডি স্প্রে, বডি সোপ, সাবান, ক্রিম, পাউডার, টুথপেস্টসহ নানা ধরনের দামি প্রসাধনী।
বিদেশি ব্র্যান্ডের এসব প্রসাধনী নকল করার অপরাধে কমলবাগের জাকিরের ফ্যাক্টরিতে অভিযান পরিচালনা করে এক ট্রাক নকল পারফিউমের বোতল জব্দ করা হয়। পরে ওই ফ্যাক্টরি মালিককে এক লাখ টাকা জরিমানা করা হয়। এছাড়াও ফাহিম স্টোর, অনিক স্টোর ও সামান্তা স্টোরের মালিককে ৫০ হাজার করে মোট দেড় লাখ টাকা জরিমানা করা হয়।
ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাম্প্রতিক এক গবেষণায় দেখা যাচ্ছে, দেশে যে পরিমাণ কসমেটিকস অর্থাৎ স্নো, ক্রিম, শ্যাম্পু, সাবান, লোশন, আফটার-শেভ লোশন, পারফিউমের চাহিদা রয়েছে তার ১৫ শতাংশই পূরণ হচ্ছে দেশীয় কোম্পানির উৎপাদনে। তবে এর গুণগত মান নিয়ে রয়েছে প্রশ্ন।
আর উৎপাদিত এসব পণ্য বিশেষ করে ঈদ-পূজা ও নানা পার্বণে রাজধানীসহ সারা দেশে ছড়িয়ে পড়ে। ক্রেতারাও কোনো কিছু না বুঝেই ফাঁদে পা রাখেন। অনেক উঁচু দরে কিনে নেন বিদেশি ব্রান্ডের সিলধারী নকল প্রসাধনী। এবারের ঈদকে ঘিরেও গোটা দেশের প্রসাধনীর বাজারে চলছে প্রায় একই কার্যকলাপ।

হাইলাইটস এর আরো খবর