শনিবার, ১৫ আগস্ট ২০২০
logo
প্লাস্টিকের পানির বোতল কতটা নিরাপদ?
প্রকাশ : ০৪ জুন, ২০১৬ ২০:২৭:৪৫
প্রিন্টঅ-অ+
স্বাস্থ্য ওয়েব

চাঁদপুর: কলসি থেকে জগ। এরপর গ্লাস। গ্রামের মানুষ বাসায় এ পদ্ধতিতেই এখনো পানি পান করেন। কিন্তু শহর জীবনে এ চিত্র ভিন্ন। ফিল্টার থেকে জগ বা বোতল। এভাবেই অনেকে পানি পান করতে অভ্যস্ত।
শহরে পথ চলতে গাড়িতে অনেকেই একটি পানি ভর্তি বোতল সাথে রাখেন। আবার অনেকে কর্মব্যস্ত অফিসেও নিজের আলাদা একটি পানির বোতল রাখেন। সারাদিন অসংখ্যবার যখনই গলা শুকিয়ে যায়, ছিপি খুলে বোতল থেকে পানি পান করেন। এ অভ্যাস প্রায় সবারই। কিন্তু এই প্লাস্টিকের বোতলগুলো আসলে কতোটা নিরাপদ?
নিশ্চয় খেয়াল করেছেন যে, এসব বোতলের নীচের দিকে একটা ত্রিকোণাকার ক্ষেত্রের মধ্যে বিভিন্ন সংখ্যা (১,২ বা ৩ ইত্যাদি) লেখা থাকে। ওই সংখ্যাগুলিই আসলে বলে দেয় ওই নির্দিষ্ট বোতলটি কী পদার্থ দিয়ে তৈরি আর কত দিনই বা তা ব্যবহার করা নিরাপদ। দেখে নিন আপনার বোতলে এরমধ্যে কোন নম্বরটা আছে। আর তার মানে আসলে ঠিক কী?
১) ত্রিভূজের মধ্যে ১ লেখা থাকলে- এই ধরণের প্লাস্টিককে PETE বা PET বলে। এই উপাদান দিয়ে তৈরি বোতলে সোডা বা জল বিক্রি হয়। সাধারণভাবে পরিষ্কার হয় এই ধরনের বোতল। এগুলোকে এমনিতে নিরাপদ মনে করা হলেও যেহেতু এতে ব্যাকটেরিয়া সংক্রমণ হওয়ার সুযোগ থাকে, তাই এই পদার্থ দিয়ে তৈরি বোতল পুনর্ব্যবহার না করাই ভালো।
২)ত্রিভূজের মধ্যে ২ লেখা থাকলে- এই ধরনের প্লাস্টিককে HDPE বলে। এগুলো বেশি ঘনত্বের প্লাস্টিক দিয়ে তৈরি। সাধারণভাবে ডিটারজেন্ট ও জুসের বোতল বা মাখনের কৌটোতে এই প্লাস্টিক ব্যবহার হয়। এ ধরনের বোতল নিরাপদ এবং ক্ষতির সম্ভবনা কম।
৩) ত্রিভূজের মধ্যে ৩ লেখা থাকলে- এই ধরনের প্লাস্টিককে PVC বলে। এ গুলি খুবই কঠিন হয়। রান্নার তেলের বোতল, খাবারের ঢাকনা, পানির পাইপ তৈরিতে ব্যবহার হয়। এ গুলো শরীরের পক্ষ ভালো নয়।
৪) ত্রিভূজের মধ্যে ৪ লেখা থাকলে- এই ধরনের প্লাস্টিককে LDPE বলে। মুদিখানার ব্যাগ, কিছু খাবারের প্যাকেটে এ গুলি ব্যবহৃত হয়। এই ধরনের প্লাস্টিক ব্যবহারের জন্য নিরাপদ।
৫) ত্রিভূজের মধ্যে ৫ লেখা থাকলে- এই ধরনের প্লাস্টিককে PP বলে। এই উপাদান খুবই নিরাপদ এবং ব্যবহারযোগ্য।
৬) ত্রিভূজের মধ্যে ৬ এবং ৭ লেখা থাকলে- এই ধরনের প্লাস্টিক খুবই ক্ষতিকারক নিত্য ব্যবহারের জন্য। এ গুলি একেবারেই রিসাইকেল করা যায় না।
তাহলে ব্যবহারের আগে চিহ্ন দেখে এবার সতর্ক হোন পানির বোতল ব্যবহারে।