শুক্রবার, ০৭ আগস্ট ২০২০
logo
আবহাওয়া পরিবর্তনের কোপে পেঙ্গুইন
প্রকাশ : ০৯ মে, ২০১৫ ১৪:০৩:২০
প্রিন্টঅ-অ+
পরিবেশ ওয়েব

বুয়েনস আইরেস: আবহাওয়ার পরিবর্তনের কারণে কমছে আর্জেন্টিনার ম্যাগেলানিক পেঙ্গুইনদের সংখ্যা, ২৭ বছর ধরে চালানো এক গবেষণায় উঠে এল এমন তথ্য৷ 'প্লস ওয়ান' জার্নালে প্রকাশ পেয়েছে গবেষণার ফল৷
প্রতি বছর আর্জেন্টিনার পুন্টা তোম্বো উপদ্বীপে প্রায় দু'লক্ষ পেঙ্গুইন আস্তানা গাড়ে৷ সেপ্টেম্বর থেকে ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত এই শুষ্ক উপদ্বীপেই থাকে তারা৷ ডিম ফুটে বাচ্চা হওয়ার পর এই পরিবেশেই বেশ কিছুটা বড় হয়ে ওঠে শিশু ম্যাগেলানিক৷ গত কয়েক বছর ডিসেম্বরের প্রথম সপ্তাহগুলিতে ঝড়বৃষ্টি প্রকোপ বেড়েছে, আর তার জেরেই প্রাণ হারাচ্ছে সদ্যোজাত পেঙ্গুইনের দল৷ শুধু ঝড়-বৃষ্টিই নয়, আবহাওয়ার পরিবর্তনের ফলে বেড়েছে তাপমাত্রাও৷ অতিরিক্ত গরম সহ্য করতে পারে না শিশু পেঙ্গুইনরা৷ ফলে ঘোর সংকটে আর্জেন্টিনার এই জীবকূল৷
শিশু পেঙ্গুইনগুলি আকারে এতটাই বড় হয় যে সেগুলিকে নিজের দেহের ওম দিয়ে ঠান্ডা থেকে রক্ষা করতে পারে না মা পেঙ্গুইনরা৷ বাঁচাতে পারে না বৃষ্টির হাত থেকেও৷ শিশু ম্যাগেলানিকদের পালকও জল থেকে বাঁচার উপযুক্ত হয়ে ওঠে না৷ অন্য দিকে, প্রচন্ড গরমও সহ্য হয় না তাদের৷ পানিতে ডুবে ঠান্ডা হওয়ার উপায়ও নেই৷
গবেষকদের বক্তব্য, 'গত ৫০ বছরে বৃষ্টি ও তাপমাত্রা দু'টোই বেড়ে যাওয়ায় অনেক বাচ্চা পেঙ্গুইন মারা পড়েছে৷' গড়ে ৪০% শিশু পেঙ্গুইন না খেতে পেয়ে মারা গিয়েছে, যেখানে আবহাওয়া পরিবর্তনের কারণে মৃত্যু ঘটে ৭% শিশুর৷
গবেষকরা অবশ্য এর পিছনে আরও বেশ কয়েকটি কারণ খুঁজে পেয়েছেন৷ তাদের বক্তব্য, ১৯৮৩ থেকে ২০১০ সালের মধ্যে বেড়েছে ঝড়বৃষ্টির প্রকোপ৷ ডিসেম্বর মাসের প্রথম সপ্তাহগুলিতেই সেই প্রকোপ সর্বাধিক৷ সে সময় এই ছানাগুলির বয়স মাত্র ২৫ দিন বা তারও কম৷ বৃষ্টির জলে তাদের বাসা ভেসে গেলে সেই ভিজে পরিবেশে বাঁচতে পারে না তারা৷
মাছেদের স্বভাবে পরিবর্তনও পেঙ্গুইনদের সংখ্যা কমে যাওয়ার ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে বলে ধারণা গবেষকদের৷ যে মাছেদের উপর নির্ভর করে পেঙ্গুইনরা বেঁচে থাকে, সেই মাছেরাও এখন দেরি করে আসছে৷ আর তার জেরে পিছোচ্ছে পেঙ্গুইনদের আসার সময়ও৷ ফলে আগে যে সময় তাদের প্রজনন হতো, এখন সে সময়ও অনেকটা পিছিয়েছে৷ বাচ্চা বড় করার জন্য খুবই কম সময় পাচ্ছে পেঙ্গুইন দম্পতিরা৷
একই জার্নালে প্রকাশিত অন্য একটি গবেষণাপত্রে জানা গিয়েছে, সমুদ্রে বরফস্তরের পরিবর্তনের প্রভাব পড়ছে আন্টার্কটিকার 'রস সি' এলাকার অ্যাডেলি পেঙ্গুইনদের উপর৷ সমুদ্রে বড় বড় শৈলশিরার উপস্থিতি, সমুদ্রের জলে তাপমাত্রার পরিবর্তন প্রভাব ফেলছে তাদের জীবনযাত্রাতে ৷ ফলে কমছে তাদের সংখ্যাও৷- ওয়েবসাইট।

পরিবেশ এর আরো খবর