শুক্রবার, ০৭ আগস্ট ২০২০
logo
২০ মে থেকে গভীর সমুদ্রে ৬৫ দিন মাছ ধরা বন্ধ
প্রকাশ : ০৫ মে, ২০১৫ ২১:২৫:০১
প্রিন্টঅ-অ+
পরিবেশ ওয়েব

ঢাকা: আগামী ২০ মে থেকে ২৩ জুলাই মোট ৬৫ দিন গভীর বঙ্গোপসাগরে সকল প্রকার বাণিজ্যিক ট্রলারের মাধ্যমে মাছ ও চিংড়ি ধরা নিষিদ্ধ থাকবে বলে জানিয়েছেন মৎস্য ও প্রাণিসম্পদমন্ত্রী মোহাম্মদ ছায়েদুল হক।
মঙ্গলবার দুপুরে সচিবালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা জানান।
মন্ত্রী মোহাম্মদ ছায়েদুল হক বলেন, ‘এর মাধ্যমে যদি ১০ থেকে ২০ ভাগও মাছ সংরক্ষণ করা যায় তাতেও আমাদের সমুদ্র এলাকায় বিপুল পরিমাণ মাছ বৃদ্ধি পাবে। আর এতে জাতি উপকৃত হবে।’ আগামী কয়েকদিনের মধ্যে এ বিষয়ে প্রজ্ঞাপন জারি করা হবে বলেও জানান তিনি।
মৎস্যমন্ত্রী বলেন, ‘এ নিষেধাজ্ঞা কার্যকর করতে দেশে থাকা ২৩৯টি বড় ধরনের ট্রলারকে নজরধারিত রাখা হবে।’
তিনি জানান, বাংলাদেশে সমুদ্র উপকূলীয় এলাকায় মাছ ধরার জন্য ৬৮ হাজারের মতো ছোট ট্রলার রয়েছে। সেগুলোকেও পর্যায়ক্রমে এ নিষেধাজ্ঞার আওতায় আনা হবে। তবে এ নিষেধাজ্ঞার মধ্যে ছোট ট্রলারগুলো পড়বে না।
৬৫ দিন মাছ ধরা বন্ধ রাখলে বাজারে সঙ্কট দেখা দিতে পারে, সেই সঙ্গে জেলেরা বেকার হয়ে পড়বে, এর জাবাবে মন্ত্রী বলেন, ‘বিশ্বের কোনো দেশই সমুদ্র থেকে সারা বছর মাছ আহরণ করে না। বছরে দুই-তিন মাস মাছ ধরা বন্ধ রাখা হয়। আমরা মাত্র ৬৫ দিন এ নিষেধাজ্ঞা জারি করেছি। এ সময় ট্রলার মালিকরা তাদের ট্রলারগুলোও ঠিকঠাক করতে পারবেন।’
 

পরিবেশ এর আরো খবর