শুক্রবার, ০৭ আগস্ট ২০২০
logo
ঘরে ফিরছে কিউবার খুবই বিপন্ন প্রজাতির কুমির
প্রকাশ : ২২ এপ্রিল, ২০১৫ ১৬:৪১:৫১
প্রিন্টঅ-অ+
পরিবেশ ওয়েব

হাভানা: কিউবার মারাত্মকভাবে বিপন্ন এক প্রজাতির কুমিরের নিশ্চিহ্ন হয়ে যাওয়া ঠেকাতে সুইডেনের চিড়িয়াখানা ওই প্রজাতির দশটি কুমির ছানা পাঠাচ্ছে কিউবায়।
স্টকহোম চিড়িয়াখানায় জন্ম নেওয়া দশটি কুমির ছানা কিউবা যাতে আবার বন্য পরিবেশে ছাড়তে পারে তার জন্য এই উদ্যোগ নিয়েছে সুইডেন।
কিউবার সাবেক প্রেসিডেন্ট ফিদেল কাস্ত্রো ওই প্রজাতির একজোড়া কুমির ১৯৭০-এর দশকে রুশ এক নভোচারীকে উপহার দিয়েছিলেন কম্যুনিষ্ট ভ্রাতৃত্বের নিদর্শন হিসাবে।
ধারণা করা হয় এই কিউবান প্রজাতির মাত্র চার হাজার কুমির এখন বন্য পরিবেশে অবশিষ্ট রয়েছে।
ফিদেল কাস্ত্রো রুশ নভোচারী ভ্লাদিমির শাতালফকে কুমিরগুলো উপহার দেওয়ার পর তিনি সেগুলো মস্কোয় নিজের ফ্ল্যাটবাড়িতে নিয়ে যান এবং সেগুলো বড় হওয়া পর্যন্ত তার ফ্ল্যাটেই কুমিরগুলো ছিল।
এরপর বেশি বড় হওয়ায় কুমির দুটো তিনি শহরের চিড়িয়াখানার হাতে তুলে দেন। কিন্তু মস্কোর চিড়িয়াখানায় জায়গার অভাবে চিড়িয়াখানা কর্তৃপক্ষ কুমিরগুলো দিয়ে দিয়েছিলেন স্টকহোম চিড়িয়াখানাকে।
পরে আন্তর্জাতিক রাজনীতিকে কিছুটা ব্যঙ্গ করেই সম্ভবত কুমির দুটোর নাম দেওয়া হয় কাস্ত্রো আর হিলারি এবং তারা স্টকহোম চিড়িয়াখানার তারকা আকর্ষণ হয়ে ওঠে। ১৯৮৪ সাল থেকে তারা সেখানে ছানাপোনার জন্ম দিচ্ছে।
কিউবায় বন্য কুমিরের দেখা পাওয়া যায় শুধু দ্বীপটির সর্ববৃহৎ জলাভূমি যাপাতা সোয়াম্প-এ। কুমিরের প্রজাতি চেনা যায় তাদের চোখের পেছনে উঠে থাকা হাড়ের আকৃতি দেখে।- বিবিসি

পরিবেশ এর আরো খবর