সোমবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০
logo
বিশ্ব ব্যাংকের বিশেষ রিপোর্ট, নিশ্চিহ্ন হতে চলেছে সুন্দরবন
প্রকাশ : ১৬ এপ্রিল, ২০১৫ ১১:৫১:০৯
প্রিন্টঅ-অ+
পরিবেশ ওয়েব

চাঁদপুর: আগামী এক দশকের মধ্যে বাংলাদেশ এবং ভারতের মধ্যে অবস্থিত বিশ্বের সবচেয়ে বড় ম্যানগ্রোভ অরণ্য সুন্দরবনের একটি বড় অংশ পানির তলায় হারিয়ে যাবে। এমনটাই জানাচ্ছে বিশ্ব ব্যাংকের সমীক্ষা। রিপোর্টে আরও বলা রয়েছে, প্রতি বছর ৩-৮ মিলিমিটার পানিস্তর বেড়ে যাবে সুন্দরবনে।
২০০৪ সালে সুনামির সময় সুন্দরবনের অবস্থা কী হতে পারে তার একটি পরিষ্কার চিত্র ফুটে উঠেছিল। পরবর্তী সময় আইলার দাপটে এ অঞ্চল বিধ্বস্ত হয়ে গিয়েছিল। এখনও জোয়ারের সময় ঘোড়ামারা এবং তার সংলগ্ন আরও বেশ কয়েকটি দ্বীপ পুরোপুরি পানির তলায় চলে যায়। রিপোর্টে সতর্ক করা হয়েছে, যদি সমস্যার সমাধানে বড়সড় পদক্ষেপ না নেওয়া হয়, তবে মানচিত্রে সুন্দরবনের কোনো চিহ্ন থাকবে না।
এমনিতেই দিনের দু' বার করে জোয়ারের সময় পানীয় পানির মধ্যে সমুদ্রের নোনা পানি গিয়ে মিশছে। এর পর পানিস্তর বাড়লে জনবসতি এলাকায়ও একই অবস্থা হবে। ফলে পানির সব থেকে বড় কষ্ট ভোগ করবেন বাসিন্দারা। ক্রমাগত নোনা পানি পান করতে করতে এ অঞ্চলের বাঘের চারিত্রিক বৈশিষ্ট্য পাল্টে গিয়েছে। সুন্দরবনের ভূ-পৃষ্ট সমুদ্রতল থেকে বিশেষ উঁচুতে নয়। ফলে মাত্র ৪৫ সেমি পানিস্তর বাড়লেই গোটা সুন্দরবনের ৭৫ শতাংশ ধ্বংস হয়ে যাবে।- ওয়েবসাইট

পরিবেশ এর আরো খবর