রোববার, ১৯ নভেম্বর ২০১৭
logo
আমার ছেলেটাকে এভাবে দেখতে চাইনি: শাকিব
প্রকাশ : ১১ এপ্রিল, ২০১৭ ১০:৩৩:১১
প্রিন্টঅ-অ+
 
ঢাকা: বাংলা চলচ্চিত্রের জনপ্রিয় অভিনেত্রী অপু বিশ্বাসের সঙ্গে বিয়ের খবরটি অস্বীকার করেছেন চিত্রনায়ক শাকিব খান। তবে অপু বিশ্বাসের কোলের বাচ্চাটিকে নিজের বলে স্বীকার করেছেন ঢাকাই ছবির এই সুপারস্টার।

সোমবার বিকেলে নিউজ ২৪-এ অপু বিশ্বাসের সরাসরি সাক্ষাৎকারের কিছুক্ষণ পরেই গণমাধ্যমকে এই কথা জানান দুই বাংলার জনপ্রিয় এই নায়ক।
 
 
‘এভাবে’ সন্তানকে সরাসরি অনুষ্ঠানে নিয়ে ‘এসব’ কথা বলায় অপুর প্রতি হতাশা প্রকাশ করেন তিনি। এ সময় তিনি আবেগে খানিকটা ভেঙে পড়েন। তিনি বলেন, “আমার খুব দুঃখ লেগেছে। আমি আমার ছেলেটাকে এভাবে দেখতে চাই নাই।”

 অপু জানান, ২০০৮ সালে শাকিবের সঙ্গে তার বিয়ে হয়েছিল। এ সময় তার নাম পাল্টে রাখা হয় অপু ইসলাম খান। তবে অপু বিয়ের কথা বললেও এই বিষয়টি স্বীকার করেননি শাকিব।

পুরো বিষয়টিকে তিনি বাংলা ছবির ইন্ডাস্ট্রি এবং তার তারকা ইমেজকে ধ্বংস করে দেয়ার বিশাল চক্রান্ত হিসেবে দাবি করেছেন। এ সময় তিনি বেশ কয়েকবার বিষয়টিকে ‘ট্র্যাপ’ বলে উল্লেখ করেন।

শাকিব দাবি করেন যে, অপুর এই মিডিয়ায় সরাসরি সাক্ষাৎকারে এসে ‘এসব’ কথা বলা আসলে ষড়যন্ত্রের অংশ। অপু যদি স্ত্রীর মর্যাদা চাইতেন, তাহলে এভাবে এসে কথা বলতেন না। শাকিব বলেন, “সে যদি আমার ওয়াইফ হতো, তাহলে সে কি আমার কথা ছাড়া কোথাও যাবে? আরে ওর সঙ্গে তো আমার বিয়েই হয়নি!”

এই পুরো বিষয়টিকে তিনি তাকে, তার তারকা ইমেজ এবং ইন্ডাস্ট্রিকে ধ্বংস করে দেয়ার বিশাল ষড়যন্ত্র হিসেবে দাবি করেছেন বারবার।

অপু বিশ্বাস সাক্ষাৎকার অনুষ্ঠানে জানান যে শাকিব খান এসে তাদের বিশাল অংকের টাকা দিয়ে যান। এ প্রসঙ্গে শাকিব খান বলেন, তিনি টাকা দিচ্ছেন তা নিজের বাচ্চার জন্য। কয়েকদিন আগেও তিনি ১২ লক্ষ টাকা দিয়ে এসেছেন।

সন্তানের জন্য স্বীকৃতি বা ভালোবাসার কথা বললেও অপুর সঙ্গে নিজের সম্পর্কের বিষয়টি নিয়ে পুরোপুরি নেতিবাচক অবস্থান নেন শাকিব। এই ‘সবকিছু’ স্ত্রীর স্বীকৃতি নয়, বরং ‘রংবাজ’ ছবির নায়িকা হয়ে ওঠার জন্যই অপু করেছেন বলে মনে করেন শাকিব।

এ প্রেক্ষিতে তিনি বলেন, “ওর (অপু) সঙ্গে আমার কিছু নাই। সে তো বউয়ের মর্যাদা চায় না, সে চায় নায়িকার মর্যাদা।”

শাকিব আলাপের শেষে জানিয়েছেন, শিগগিরই সবার সঙ্গে এ বিষয় নিয়ে কথা বলবেন তিনি।

এর আগে সোমবার বিকেলে অপু বিশ্বাস একটি বেসরকারি টিভি চ্যানেলের সরাসরি সম্প্রচারিত অনুষ্ঠানে দাবি করেন, “শাকিবের সঙ্গে আমার বিয়ে হয়েছিল ২০০৮ সালের ১৮ এপ্রিল। বিয়ের সময় আমার নাম পরিবর্তন করা হয়েছিল। আমার নাম রাখা হয়েছিল অপু ইসলাম খান। বিয়ের সময় শাকিবের ভাই ও একজন প্রযোজক উপস্থিত ছিলেন।”

অপু বিশ্বাস বলেন, “বাচ্চা নিয়ে আমাকে অনেক সংগ্রাম করতে হয়েছে। আমি দীর্ঘদিন আড়ালে ছিলাম। পাঁচ মাস হয় ঢাকায় এসেছি। দীর্ঘ নয় মাস আমি কলকাতা, ব্যাংকক ও সিঙ্গাপুরে ছিলাম।”

সরাসরি সম্প্রচারিত ওই অনুষ্ঠানে কথা বলতে বলতে প্রায় কেঁদে ফেলেন অপু বিশ্বাস।

বিনোদন এর আরো খবর