বৃহস্পতিবার, ০৪ মার্চ ২০২১
logo
১০টি রহস্য বলিউডে সমাধান হয়নি
প্রকাশ : ০৮ জুন, ২০১৬ ১০:২২:৫৪
প্রিন্টঅ-অ+
বিনোদন ওয়েব

মুম্বাই: অজানার মাঝেই জানা লুকিয়ে আছে। অনেকেরই অনেক কিছু জানা। কিন্তু মুখ খোলেন না কেউই। এই যেমন, প্রত্যুষার মৃত্যুর পর ডলি বিন্দ্রা কিছু কিছু বলার চেষ্টা করেছিলেন।কিন্তু ফিল্ম ফ্র্যাটারনিটির চাপে পড়ে মুখে কুলুপ হিতে বাধ্য হন। ঠিক তেমন দিব্যা ভারতীর মৃত্যুর পর বা জিয়া খানের মত্যুর পর একইরকমভাবে কেউ কেউ মুখ খুলেছেন।আর পরক্ষণেই বন্ধ মুখ বন্ধ করে নিয়েছেন। রহস্য থেকে গেছে রহস্যই। এরকমই ১০টি রহস্য-
রেখার সিঁদুর
অনেক পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে সিঁদুর পরে দেখা যায় রেখাকে। প্রথম তিনি সিঁদুর পরেন ঋষি কাপুর ও নীতু সিংয়ের বিয়েতে।অনেকে ভেবেছিল অমিতাভের সঙ্গে তাঁর অ্যাফেয়ার হয়তো বিয়ে পর্যন্ত গড়িয়েছে।কিন্তু সেই গুজব মিটে যায় যখন তিনি দিল্লির ব্যবসায়ী মুকেশ আগরওয়ালকে বিয়ে করেন।কিন্তু মুকেশের মৃত্যুর পরেও সিঁদুর মোছেননি রেখা।
দিব্যা ভারতীর মৃত্যু
মাত্র ২৩ বছর বয়সে মারা যান দিব্যা ভারতী। নব্বইয়ের দশকে তিনি ছিলেন বলিউডের এক উঠতি অভিনেত্রী।তাঁর মতো সৌন্দর্য ও অভিনয়ের কম্বিনেশন খুব কম অভিনেত্রীর মধ্যেই ছিল।
কিন্তু ১৯৯৩ সালের ৫ এপ্রিল পাঁচতলা বিল্ডিং থেকে নীচে পড়ে মৃত্যু হয় তাঁর। হত্যা না আত্মহত্যা, তার সমাধান হয়নি এখনও।
সিল্ক স্মিতার অস্বাভাবিক মৃত্যু
বিদ্যা বালানের দা ডার্টি পিকচার সিল্ক স্মিতার জীবন নিয়ে তৈরি হয়েছিল। সেখানে দেখানো হয়েছে ব্যক্তিগত জীবনে সুখী ছিলেন না তিনি।তাই আত্মহত্যার পথ বেছে নেন। বাস্তবেও অনেকে এটাই মনে করেন। ছবিতে সিল্ক আত্মহত্যা করেছিলেন। কিন্তু বাস্তবে ঠিক কী হয়েছিল, তা আজও অজানা।
জিয়া খানের সুইসাইড
২০১৩ সালের ৩ জুন আত্মহত্যা করেন জিয়া খান। নিজের বেডরুমে গলায় দড়ি দেওয়া অবস্থায় পাওয়া যায় জিয়ার মৃতদেহ।অভিযোগের আঙুল ওঠে সুরজ পাঞ্চোলির বিরুদ্ধে। সুইসাইড নোটে পাওয়া যায় মৃত্যুর আগে নাকি গর্ভপাত করিয়েছিলেন জিয়া।তাঁর তিন বছর কেটে গেলেও আজও জানা যায়নি কেন তিনি সুইসাইড করেছিলেন।
অভিষেক-করিশ্মার ব্রেক আপ
এনগেজমেন্ট ঘোষণা হয়ে যাওয়ার পর ব্রেক-আপ হয়েছিল অভিষেক বচ্চন আর করিশ্মা কাপুরের। কেন? সে প্রশ্নের উত্তর এখনও বচ্চন আর কাপুর খানদানের বাইরে বের হয়নি।
কেউ বলে অভিষেকের ক্যারিয়ার নাকি এর কারণ। কেউ বলেন, করিশ্মার পরিবারের দিক থেকেই নাকি উঠেছিল আপত্তি। কিন্তু আসল কারণটি যে কী? তা এখনও অজানা।
হৃতিক-সুসানের ডিভোর্স
১৩ বছর সুখে সংসার করার পর দেড়বছর আগে বিচ্ছেদ হয় সুসান খান ও হৃতিক রোশনের। বলিউডের অন্যতম হ্যাপি কাপল ছিলেন তাঁরা। ফলে তাঁদের বিচ্ছেদে প্রশ্নের পর প্রশ্ন উঠতে থাকে। কিন্তু হৃতিক বা সুসান এ নিয়ে একটি কথাও বলেননি মিডিয়াকে। ফ্যানেদেরও জানাননি কিছু। শোনা যায়, কঙ্গনা রানাওয়াত আর বারবারা মোরির সঙ্গে নাকি হৃতিকের সম্পর্ক ছিল। তাই বিচ্ছেদ চেয়েছিলেন সুসান। কিন্তু কঙ্গনার সঙ্গে হৃতিক আইনি ঝামেলার সময় হৃতিকের পাশে ছিলেন সুসান। ফলে সেই গুজব পরে ধোপে টেকেনি। আসল কারণটা এখনও রয়ে গেছে আঁধারে।
 
শাহিদ-করিনার ব্রেক আপ
 
 
জব উই মেটের পর শাহিদ কাপুর ও করিনা কাপুর ঘোষণা করেন তাঁরা সম্পর্কে ইতি টেনেছেন। কিন্তু তখন তাঁরা কারণ জানাননি। এমনকী, তারপর বহু জায়গায় শাহিদ ও করিনাকে আলাদাভাবে তাঁদের বিচ্ছেদের কথা জিজ্ঞাসা করা হলেও চুপ থেকেছেন তাঁরা। শোনা যায়, মিলেঙ্গে মিলেঙ্গের শুটিংয়ের সময়ও দু’জনের একসঙ্গে কাজ করা নিয়ে অনেক সমস্যা হয়েছিল। এখন অবশ্য দু’জনকে একসঙ্গে উড়তা পঞ্জাবের ট্রেলারে দেখা যাচ্ছে।কথাবার্তাও হচ্ছে। কিন্তু সেই ব্রেক আপের রহস্যটা রহস্যই থেকে গেল।
 
পরভিন ববির ইন্ডাস্ট্রি থেকে বিদায় ও মৃত্যু
 
ক্যারিয়ারে যখন তিনি সাফল্যের চূড়ায়, তখনই ইন্ডাস্ট্রি থেকে বিদায় নেন পরভিন ববি। পরে তিনি অভিযোগ করেন, কেউ কেউ নাকি তাঁকে খুন করতে চায়।এরপরই নিজেকে সম্পূর্ণ গুটিয়ে নেন। সবসময়েই ভাবতেন কেউ তাঁকে মারতে আসছে। কেন, কেউ জানে না। ২০০৫ সালে নিজের অ্যাপার্টমেন্টে তাঁর মৃতদেহ উদ্ধার হয়। মৃত্যুর কারণ এখনও অস্পষ্ট।
 
রানি-প্রীতির বন্ধুত্বে ভাঙন
 
 
বলিউডে বন্ধু? তাও আবার মেয়েতে মেয়েতে? রানি মুখোপাধ্যায় ও প্রীতি জ়িন্টা কিন্তু ব্যতিক্রম ছিলেন। তাঁদের বন্ধুত্ব ছিল টিনসেল টাউনে চর্চার বিষয়। ইন্ডাস্ট্রির অনেকে তাঁদের বন্ধুত্ব নিয়ে হিংসা করতেন। কিন্তু বন্ধুত্ব বেশিদিন টেকেনি। হঠাৎই তাঁদের মধ্যে ঠান্ডা যুদ্ধ শুরু হয়ে যায়। শোনা যায় কাল হো না হো-তে প্রীতি জ়িন্টা নায়িকা হিসেবে নির্বাচিত হওয়ার পর থেকেই তাঁদের মধ্যে দ্বন্দ্বের শুরু।
 
কুণাল সিংয়ের হঠাৎ মৃত্যু
দক্ষিণী ছবিতে অভিনয় করতেন কুণাল সিং। বলিউডে তিনি সেভাবে নাম করতে পারেননি। কিন্তু তাঁর মৃত্যু বলিউডের অনেককে নাড়া দিয়ে গিয়েছিল।তখন তিনি যোগী ছবিতে কাজ করছিলেন। একদিন তিনি নিজের বাড়িতে চিত্রনাট্যকার ও কস্টিউম ডিজ়াইনার লাভিনা ভাটিয়াকে ডেকেছিলেন।দশ মিনিটের জন্য ওয়াশরুমে গিয়েছিলেন লাভিনা। বেরিয়ে এসে কুণালকে তিনি সিলিং ফ্যান থেকে ঝুলন্ত অবস্থায় দেখতে পান।মনে করা হয় ক্যারিয়ার ঠিকভাবে না দাঁড়ানোর জন্য আত্মহত্যা করেছিলেন তিনি। তবে নির্দিষ্ট কোনও প্রমাণ পাওয়া যায়নি।

বিনোদন এর আরো খবর