বুধবার, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০
logo
কাল ভর্তি, এখনও তৈরি হয়নি সফটওয়্যার!
প্রকাশ : ২৫ মে, ২০১৬ ১৩:১৩:১৩
প্রিন্টঅ-অ+
শিক্ষা ওয়েব

ঢাকা : আগামীকাল বৃহস্পতিবার (২৬ মে) থেকে একাদশ শ্রেণিতে অনলাইন এবং টেলিটক প্রি-প্রেইড সংযোগের মাধ্যমে ভর্তির আবেদন শুরু হওয়ার কথা। ১২ মে নীতিমালার প্রকাশ করলেও এখনো পর্যন্ত নিয়মাবলী প্রকাশ করতে পারেনি শিক্ষা মন্ত্রণালয়।
কারণ হিসেবে জানা গেছে, অনলাইনে যে সফটওয়্যারের মাধ্যমে আবেদন করা যাবে সে সফটওয়্যার এখনো তৈরি করতে পারেনি কর্তৃপক্ষ। এ সফটওয়্যারের মাধ্যমেই ভর্তির নিয়মাবলী জানার কথা। সফটওয়্যার তৈরি হয়নি। তাই অনলাইনে (www.xiclassadmisson.gov.bd এ ঠিকানায়) আপলোড করা যায়নি। ফলে এখনো প্রকাশ হয়নি ভর্তির নিয়মাবলী।
গতবার প্রথমবারের মতো যখন অনলাইনে ভর্তি প্রক্রিয়া শুরু হয়। তখন নানাবিধ সমস্যার মধ্যে একটি ছিল আবেদন পদ্ধতি সম্পর্কে শিক্ষার্থীদের অজ্ঞতা। এ অজ্ঞতার খেসারতও কম দিতে হয়নি শিক্ষার্থীদের।
শিক্ষার্থীদের ভোগান্তি কমাতে ভর্তির আবেদন প্রক্রিয়া শুরু হওয়ার কমপক্ষে দু’দিন আগে নিয়মাবলী জানানো হবে বলে নিশ্চিত করেছিল আন্তঃশিক্ষা বোর্ড কমিটি। সে লক্ষ্যে সফটওয়্যার নির্মাণ কাজ এগোচ্ছে জানিয়ে সঠিক সময়ে নিয়মাবলী প্রকাশের নিশ্চয়তা দিয়েছিল তারা। এখনো পর্যন্ত তার কার্যকরিতা দেখা যায়নি।
গতবার সফটওয়্যার তৈরির দায়িত্ব পেয়েছিল দেশসেরা প্রতিষ্ঠান বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয় (বুয়েট)। পূর্বের ভুলভ্রান্তি থেকে অভিজ্ঞতা নিয়ে এবার সঠিক সময়ে নিরবচ্ছিন্ন সেবা দেয়ার কথা জানিয়েছিল প্রতিষ্ঠানের দায়িত্বপ্রাপ্ত দলটি।
তাদের নিশ্চয়তার উপর ভর করে শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ ৯ মে সচিবালয়ে অনুষ্ঠিত ভর্তি সংক্রান্ত সংবাদ সম্মেলনে বলেছিলেন, ‘গতবারের অভিজ্ঞতার আলোকে সমস্যাগুলো আমরা কাটিয়ে উঠেছি। গতবারের বিড়ম্বনা এবার আর হবে না।’
একই কথা বলেছেন শিক্ষা সচিব সোহরাব হোসাইন। তিনি বলেছেন, ‘বুয়েটের এক্সপার্ট টিমের সঙ্গে আমাদের কথা হয়েছে। তারা আমাদের নিশ্চয়তা দিয়েছেন। এবার আর সমস্যা হবে না।’
২৩ মে বিকেলে ওয়েব ঠিকানায় নিয়মাবলী প্রকাশের কথা শোনা গেলেও পরে তা পাওয়া জায়নি। ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের এক ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা এ তথ্য দিয়েছিলেন। পরবর্তীতে এ বিষয়ে জানতে চাওয়া হলে তিনি বলেন, ‘আপলোড হওয়ার কথা। এখনো না হয়ে থাকলে আপলোড হয়ে যাবে।’
২৪ মে এ বিষয়ে আরেক ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তার কাছে জানতে চাওয়া হলে তিনি বলেন, আশা করছি সন্ধ্যা ৭টা থেকে ৮টার মধ্যে আপলোড হয়ে যাবে।’ রাত ৮টা পেরোলেও বাস্তবে তা দেখা যায়নি।
বুয়েট সূত্রে জানা গেছে, এখনো সফটওয়্যার তৈরির কাজ শেষ হয়নি। শেষ হলে ২৫ মে ( বুধবার) দুপুর থেকে বিকেলের মধ্যে নির্দিষ্ট ঠিকানায় সফটওয়্যারটি আপলোড করা সম্ভব হবে।
উল্লেখ্য, এবার এসএসসি পরীক্ষায় পাস করেছে ১৪ লাখ ৫২ হাজার ৬০৫ জন শিক্ষার্থী, যার সিংহভাগ এ প্রক্রিয়ায় অংশ নেবে। সঙ্গে আছে ২০১৩, ২০১৪, ২০১৫ সালে পাস করা শিক্ষার্থী। (২০১৪ থেকে এসএসসি উত্তীর্ণরা এবং ২০১৩ থেকে যারা উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পাস করেছে তারা একাদশ ভর্তি প্রক্রিয়ায় অংশ নিবে)।

শিক্ষাঙ্গন এর আরো খবর