মঙ্গলবার, ০৭ জুলাই ২০২০
logo
জাবিতে কাঁঠাল পাড়ার ধুম
প্রকাশ : ২৩ মে, ২০১৬ ১১:৪৪:৫৮
প্রিন্টঅ-অ+
শিক্ষা ওয়েব

জাবি: আয় ছেলেরা আয় মেয়েরা ফুল তুলিতে যাই/ ফুলের মালা গলায় দিয়ে মামার বাড়ি যাই/ মামার বাড়ি ঝড়ের দিনে আম কুড়াতে সুখ/ পাকা আমের মধুর রসে রঙিন করে মুখ। পল্লিকবি জসিম উদ্দিনের কবিতার এ পংক্তিগুলো যেন জ্যৈষ্ঠ মাসের উজ্জ্বল ছবি। শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোতে জ্যৈষ্ঠ মাসেই দেয়া হয় গ্রীষ্মকালীন ছুটি। আর তখনি শুরু হয় নানাবাড়ি, দাদাবাড়িতে বেড়াতে যাওয়ার ধুম। এ কারণেই বুঝি একে বলে ‘মধু মাস’।
এখন চলছে সেই মধুমাস। সবুজ ঘেরা জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়েও (জাবি) বইছে তারই আমেজ। তবে উৎসব চল কাঁঠালের। বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতিটি রাস্তার দু’ধারে অসংখ্য ছোট বড় কাঁঠাল গাছে ঝুলে আছে অগুণতি কাঁঠাল। পাকা কাঁঠালের লোভনীয় ঘ্রাণে এখন মুখরিত ক্যাম্পাস।
ক্যাম্পাসে চলছে পাকা কাঁঠাল পাড়ার প্রতিযোগিতা। কার চেয়ে কে বেশি কাঁঠাল পাড়তে পারে! হলে হলে, রুমে রুমে ছড়িয়ে পড়েছে এ প্রতিযোগিতা। কারণ কয়েকদিন পরেই ক্যাম্পাস বন্ধ। যেতে হবে বাড়িতে। তার আগে যদি ক্যাম্পাসের কাঁঠালগুলো শেষ করে না যাওয়া যায় ছুটি শেষ করে আসতে আসতে আর একটাও পাওয়া যাবে না।
এ সময়ের আরেকটি জনপ্রিয় ফল জাম। কবিতার সে লাইন মনে আছেতো, ‘পাকা জামের মধুর রসে রঙিন করে মুখ’। জাম সাধারণভাবে দুই প্রকার ১. কালো জাম; ২. বুনো জাম। কালো জাম বড় আকারের এবং বুনো জাম ক্ষুদ্র। জাবির আঙিনায় দু’ধরনেরই জামই পাওয়া যায়। তবে তা কাঠাঁলের মতো এত বেশি না। এ ক্যাম্পাসে রয়েছে অসংখ্য আম গাছ। কিন্তু এখন একটি আমও। কারণ জাবির বাসিন্দার হয়তো কাঁচা আম খুব পছন্দের!

শিক্ষাঙ্গন এর আরো খবর