শুক্রবার, ২৪ নভেম্বর ২০১৭
logo
শ্রীপুরে আওয়ামী লীগ নেতা আটক, মহাসড়ক অবরোধ
প্রকাশ : ০৬ এপ্রিল, ২০১৭ ১৪:৫০:২৭
প্রিন্টঅ-অ+
গাজীপুর: গাজীপুরের শ্রীপুরের আওয়ামী লীগ নেতা মো. মাহতাব উদ্দিনকে পুলিশ আটক করার খবরে বৃহস্পতিবার ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কে অবস্থান নিয়ে বিক্ষোভ, টায়ারে অগ্নিসংযোগ ও অবরোধ সৃষ্টি করে এলাকাবাসী।


শ্রীপুর থানার ওসি মো. আসাদুজ্জামান জানান, বুধবার রাতে গাজীপুর জেলা গোয়েন্দা পুলিশ শ্রীপুরের বাসা থেকে জেলা আওয়ামী লীগ নেতা মো. মাহতাব উদ্দিনকে আটক করে নিয়েছে এমন খবর পেয়ে বৃহস্পতিবার সকাল ৫টা দিকে থেকে এলাকাবাসী লাঠি-সোঁটা হাতে নিয়ে ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কে অবস্থান নিয়ে বিক্ষোভ, টায়ারে অগ্নিসংযোগ ও অবরোধ সৃষ্টি করে।

এতে ওই মহাসড়কে যানবাহন চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। শ্রীপুর থানা পুলিশ ও মাওনা মহাসড়ক থানা পুলিশ সকাল পৌনে ৮টার দিকে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। পরে ওই মহাসড়কে যান চলাচল স্বাভাবিক হয়।

শ্রীপুর উপজেলা তাঁতী লীগের সাধারণ সম্পাদক মো. জাহিদুল ইসলাম জনান, বুধবার রাত সাড়ে ৩টার দিকে গাজীপুর জেলা গেয়েন্দা পুলিশ পরিচয়ে চারটি গাড়ি নিয়ে নিজ বাসা থেকে মাহতাব উদ্দিনকে তুলে নিয়ে গেছে। এ সময় তারা কোনো গ্রেফতারি পরোয়ানা দেখায়নি। তাকে মুক্তি দেয়া না পর্যন্ত বিক্ষোভ-অবরোধ চলবে।


 
গাজীপুর জেলা গোয়েন্দা পুলিশের ওসি মো. আমির হোসেন জানান, মাহতাব এলাকার চিহ্নিত সন্ত্রাসী। তার বিরুদ্ধে মাদক ব্যবসা নিয়ন্ত্রণের অভিযোগও রয়েছে। তাকে রাতে ২০০ পিস ইয়াবাসহ আটক করা হয়েছে।

তবে ওসি আমির হোসেন সকাল ৮টার দিকে জানান, মাহতাবকে ছাড়া হয়নি। তাকে আইনের আওতায় আনা হবে।

গাজীপুর জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ইকবাল হোসেন সবুজ জানান, শ্রীপুর উপজেলা নির্বাচনে মাহতাব উদ্দিন তার নির্বাচন পরিচালনা কমিটির আহ্বায়ক ছিলেন। জেলা আওয়ামী লীগের অনুমোদনের অপেক্ষায় থাকা পূর্ণাঙ্গ কমিটিতে সদস্য পদে তার নাম রয়েছে। মাহতাবের মাদক বা সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডের সঙ্গে জড়িত নয়।

এর আগে জানুয়ারি মাসেও ব্যবসায়ী আবুল কালামের মুড়ির কারখানায় সার মেশানোর অভিযোগ এনে গোয়েন্দা পুলিশ ঘুষ দাবি করে। ঘুষের টাকা না দেয়ায় কয়েকজনকে আটকের চেষ্টা করলে পুলিশের সাথে এলাকাবাসীর সংঘর্ষ হয়। এ ঘটনায় তখন চার পুলিশও প্রত্যাহার করা হয়।
 

জেলা এর আরো খবর