রোববার, ২০ অক্টোবর ২০১৯
logo
‘মদ্যপ অবস্থায়’ পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রীর পিও আটক
প্রকাশ : ১৫ জানুয়ারি, ২০১৭ ১৬:০৪:০৬
প্রিন্টঅ-অ+
জেলা ওয়েব
রাজশাহী: মদ্যপ অবস্থায় রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগের সহসভাপতি মাহফুজুল আলম লোটনের বাড়িতে গিয়ে গালাগালি করার অভিযোগে পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলমের ব্যক্তিগত কর্মকর্তা (পিও) জোবায়ের হাসান রুবনকে আটক করেছে পুলিশ।

শনিবার গভীর রাতে নগরীর কাদিরগঞ্জ এলাকা তাকে আটক করা হয়। তবে রোববার দুপুরে স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতাদের জিম্মায় তাকে ছেড়ে দেয়া হয়েছে।

শাহরিয়ার আলমের সহকারী একান্ত সচিব (এপিএস) সিরাজুল ইসলাম জানান, রুবন পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রীর ব্যক্তিগত কর্মকর্তা হিসেবে কর্মরত আছেন।

রাজশাহী মহানগর পুলিশ জানায়, আটকের সময় রুবন মদ্যপ অবস্থায় ছিলেন। শনিবার রাত আনুমানিক সাড়ে ১২টার দিকে ‘মদ্যপ অবস্থায়’ তিনি রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগের সহসভাপতি মাহফুজুল আলম লোটনের কাদিরগঞ্জের বাড়িতে গিয়ে গালাগালি শুরু করেন।

একপর্যায়ে তিনি জোর করে বাসায় প্রবেশের চেষ্টা করেন। এ অবস্থা চলে রাত দেড়টা পর্যন্ত। আওয়ামী লীগ নেতার পরিবারের অভিযোগের ভিত্তিতে বোয়ালিয়া মডেল থানা পুলিশ লোটনের বাসার সামনে থেকে তাকে আটক করে থানায় নিয়ে যায়।

এলাকাবাসীর সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, রুবনের বাড়িও নগরীর কাদিরগঞ্জ এলাকায়। আওয়ামী লীগ নেতা লোটনের সঙ্গে তার আত্মীয়তার সম্পর্ক রয়েছে।

রাজশাহী মহানগর পুলিশের মুখপাত্র সিনিয়র সহকারী কমিশনার ইফতে খায়ের আলম জানান, রুবনকে থানাতেই রাখা হয়েছে। বিষয়টি রুবনের পরিবারের পক্ষ থেকে আপসরফার উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। দুই পক্ষ একমত হলে রুবনকে উপযুক্ত অভিভাবকের জিম্মায় দেয়া হবে।

ইফতে খায়ের আলম আরো জানান, আওয়ামী লীগ নেতা লোটন আটক রুবনের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ দিলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে। বিষয়টি রাজনৈতিক নয় এবং পারিবারিক কিছু ঘটনার জের হতে পারে।

জানা গেছে, রুবন সাবেক ছাত্রলীগ নেতা। তার বাবা অ্যাডভোকেট মোজাফফর আহম্মদ রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি ছিলেন। রুবন মহানগর ছাত্রলীগের নেতা ছিলেন। বিভিন্ন আন্দোলন-সংগ্রামে তিনি সামনের সারিতে থাকতেন। বর্তমান সরকার ক্ষমতায় এলে পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম তাকে ব্যক্তিগত কর্মকর্তা হিসেবে নিয়োগ দেন।

সাম্প্রতিক সময়ে রুবন তার ফেসবুক পাতায় হাইব্রিড আওয়ামী লীগসহ মহানগর আওয়ামী লীগের কয়েকজন নেতার বিরুদ্ধে স্ট্যাটাস দেন। এতে লোটন ও জেলা ক্রীড়া সংস্থার কর্মকর্তা রাফিউস সামস প্যাডিসহ কয়েকজনের সঙ্গে তার দ্বন্দ্ব শুরু হয়।

এ ব্যাপারে পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলমের পক্ষ থেকে কোনো বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

জেলা এর আরো খবর