শনিবার, ১১ জুলাই ২০২০
logo
বাদ পড়া ছিটমহলবাসী ১ আগস্ট থেকে বাংলাদেশের নাগরিক
প্রকাশ : ২৭ জুলাই, ২০১৫ ১৪:৫৯:৫০
প্রিন্টঅ-অ+
অন্যজেলা ওয়েব

লালমনিরহাট: বাংলাদেশ ও ভারতের ১৬২ ছিটমহলের নাগরিকদের যৌথ গণনার সময় বাদ পড়া নাগরিকরা ১ আগস্ট থেকে যে দেশে অবস্থান করছেন সে দেশের নাগরিক বলে গণ্য হবেন।
জেলা প্রশাসন ও  প্রাপ্ত জরিপ সূত্রে জানা যায়, বাংলাদেশের অভ্যন্তরে অবস্থিত ভারতের ১১১টি ছিটমহলের লোকসংখ্যা ৪৪ হাজার ৪৪৯জন। এর মধ্যে ভারতে যাওয়ার জন্য ৯৭৯জন ফরম পূরণ করেছেন। যার মধ্যে ১৬৩জন মুসলমান রয়েছেন।
যারা ১ আগস্ট থেকে ৩০ নভেম্বর এর মধ্যে ভারতে যেতে পারবেন।
এদিকে গত রোববার জেলার হাতীবান্ধা উপজেলার ১৩৫ নং গোতামারী ছিটমহলের মাহবুবার রহমান ও রাশেদুল ইসলাম নামের দুইজন নাগরিক ভারতের নাগরিকত্ব বাতিলের দাবি করে জেলা প্রশাসক বরাবর আবেদন করেছেন।
অপরদিকে ভারতে অবস্থিত বাংলাদেশের ৫১টি ছিটমহলে সাড়ে ১৪ হাজার নাগরিকের কেউ বাংলাদেশে আসতে চায়নি।
দেখা গেছে, জরিপকালীন সময়ে বিভিন্ন কাজের জন্য লালমনিরহাটের ৫৯টি ছিটমহলের পাঁচ শতাধিক নারী, পুরুষ ও শিশু ছিটমহলের বাহিরে অবস্থান করায় জরিপ তালিকায় অর্ন্তভুক্ত হতে পারেননি।
জরিপে বাদ পড়া বাঁশপঁচাই ছিটমহলের ২৬জনের নাম পাওয়া গেছে।
তাদের মধ্যে শ্রীমতি ফুলমতি রাণী (৬২), জুলেখা বেগম(৫৫), আনছার আলী(৪২), আনু বাদশা (২২), গোলে বেগম(৫৭) জানান, “২০১১ সালের জরিপের সময় আমরা ছিটমহলের বাহিরে থাকায় তালিকায় অর্ন্তভুক্ত হতে পারিনি।
ফলে বর্তমান জরিপেও (৬ জুলাই থেকে ১৬ জুলাই ২০১৫) আমাদের নাম তালিকায় তোলা হয়নি। তাই আমরা আমাদের নাগরিকত্ব নিয়ে দুশ্চিন্তায় আছি।
তাছাড়া সরকারী সুযোগ সুবিধা, জমি সংক্রান্ত, চাকুরি, লেখাপড়া ক্ষেত্রেও আমাদের ভোগান্তিতে পড়তে হতে পারে।”
 
এ ব্যাপারে লালমনিরহাট জেলা প্রশাসক হাবিবুর রহমান বলেন, “যেহেতু লালমনিরহাট জেলায় সবচেয়ে বেশী ছিটমহল রয়েছে। তাই ছিটমহলে জরিপ চলাকালীন সময়ে ছোটো খাটো কিছু ত্রুটি হয়েছে। যেগুলো চলতি সপ্তাহে ঠিক করা হবে।
যেহেতু ৩১ জুলাই মধ্যরাত থেকে ছিটমহল সমস্যার সমাধান হয়ে যাবে। তাই ৬৮ বৎসরের বন্দী দশা থেকে মানুষজন মুক্তি পাবে। স্বাধীন সার্বভৌম রাষ্ট্রের নাগরিক হিসেবে স্বীকৃতি লাভ করবে।”
তিনি আরো জানান, “বাংলাদেশের অভ্যন্তরে অবস্থিত ভারতের ১১১টি ছিটমহলের যেসব নাগরিক জরিপে অর্ন্তভুক্ত হতে পারেননি। কিন্তু বাংলাদেশেই থাকতে চান তারাও ১ আগস্ট থেকে বাংলাদেশী নাগরিক হিসেবে গণ্য হবেন এবং সরকারী সকল সুযোগ-সুবিধা ভোগ করবেন।”
 

জেলা এর আরো খবর