সোমবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০
logo
দেশের সর্বোচ্চ সড়ক উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী
প্রকাশ : ১৪ জুলাই, ২০১৫ ১৬:০৭:৫০
প্রিন্টঅ-অ+
অন্যজেলা ওয়েব

বান্দরবান: ১২০ কোটি টাকা ব্যায়ে সেনাবাহিনীর প্রকৌশল বিভাগের নির্মিত দেশের সর্বোচ্চ সড়ক বান্দরবানের থানছি আলীকদম সড়ক উদ্ধোধন করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।
মঙ্গলবার বেলা ১১টা ২০ মিনিটে প্রধানমন্ত্রী কার্যালয় থেকে বান্দরবান জেলা প্রশাসক অফিসে সরাসরি ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে সড়কটি উদ্ধোধন করেন প্রধানমন্ত্রী।
এ সময় সেখানে পার্বত্য চট্রগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রনালয়ের প্রতিমন্ত্রী বীর বাহাদুর এমপি, সেনাবাহিনীর চট্রগ্রামের এরিয়া কমান্ডার মেজর জেনারেল মো. শফিকুল রহমান, সড়ক পরিবহণ মন্ত্রণালয়ের যুগ্ম সচিব শফিকুল ইসলাম, সেনাবাহিনীর এসডব্লিউও এর পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল আবদুল ওহাব, বান্দরবানের রিজিয়ন কমান্ডার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল নকিব আহম্মদ, জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ক্যশৈহ্লা, বান্দরবানের জেলা প্রশাসক মিজানুল হকসহ সেনাবাহিনী, বিজিবি, জেলা প্রশাসন ও বিভিন্ন সরকারি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তরা উপস্থিত ছিলেন।
ঢাকায় প্রধানমন্ত্রী উদ্বোধনের ঘোষণা দেয়ার পরই বান্দরবানে সড়কটির নির্মাণ ফলক উন্মোচন করা হয়।
উদ্ধোধনের পর প্রধানমন্ত্রী তার বক্তব্যে বলেন, “শান্তি চুক্তি স্বাক্ষরের পর পাহাড়ে শান্তির সুবাতাস বইছে। পাহাড়ে শিক্ষা, স্বাস্থ্য, যোগাযোগ ব্যবস্তায় ব্যাপক উন্নয়ন সাধিত হয়েছে। অথচ এর আগের সরারগুলো উন্নয়নের দিকে তেমন কোনো নজর দেয়নি। বর্তমান সরকার ক্ষমায় আসার পর তিন পার্বত্য জেলায় গুরুত্বপূর্ণ বেশ য়েকটি সড়ক নির্মাণ করেছে যা পার্বত্য অঞ্চলের যোগাযোগ ও আর্থসামাজিক অবস্থায় ব্যাপক পরিবর্তন নিয়ে আসবে।”
প্রধানমন্ত্রী সেনাবাহিনীর প্রশংসা করে বলেন, “পার্বত্য চট্রগ্রামের উঁচু পাহাড় দিয়ে সড়ক নির্মাণ করা খুবই কঠিন কাজ। একমাত্র সেনাবাহিনীর পক্ষেই এই কাজ করা সম্ভব হয়েছে।”
পার্বত্য চট্রগ্রামের নয়নাভিরাম প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের প্রশংসা করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, “এই সৌন্দর্যকে কাজে লাগিয়ে মানুষের জীবনমান উন্নয়ন করতে হবে।”
পার্বত্য চট্টগ্রামের শিক্ষা ব্যবস্থর উন্নয়নে প্রতিটি উপজেলায় একটি করে আবাসিক সরকারি কলেজ ও মাধ্যমিক স্কুল নির্মাণ করে দেয়ার ঘোষণা দেন।

জেলা এর আরো খবর