শুক্রবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৯
logo
তামিমের এক রানের আক্ষেপ!
প্রকাশ : ১৬ মার্চ, ২০১৭ ১৬:৪৬:৩৬
প্রিন্টঅ-অ+
ক্রিকেট ওয়েব
কলম্বো: স্বাগতিক শ্রীলঙ্কার ৩৩৮ রানের জবাবে শততম টেস্টের প্রথম ইনিংসে ব্যাট করছে বাংলাদেশ। কলম্বোয় নিজেদের ঐতিহাসিক টেস্ট স্মরণীয় করে রাখতে চ্যালেঞ্জটা এখন ব্যাটসম্যানদের কাঁধে। ওপেনিংয়ে সাবধানী ব্যাটিং করছিলেন তামিম ইকবাল ও সৌম্য সরকার। তবে ৪৯ রানে আউট হয়েছেন তামিম।

হেরাথের বলে লেগবিফোর হন বাংলাদেশি ওপেনার। শুরুতে আম্পায়ার অবশ্য আউট দেননি তামিমকে, পরে রিভিউ চান হেরাথ। রিপ্লেতে দেখা যায়, বল তামিমের প্যাডে লেগে সোজা মিডল স্টাম্পে লাগত। এরপর টিভি আম্পায়ার আউট দেন তামিমকে।

চান্দিমালের ব্যাটিং দৃঢ়তায় প্রথম দিনে করা সাত উইকেটে ২৩৮ রান নিয়ে দ্বিতীয় দিনের প্রথম সেশন পুরোটা পার করেছে লঙ্কানরা। স্কোরবোর্ডে যোগ হয় আরও একশ’ রান। মধ্যাহ্ন বিরতির আগে সবকটি উইকেট হারিয়ে দলীয় সংগ্রহ দাঁড়ায় ৩৩৮। শেষ তিন উইকেটে আসে ১৪৩।

দায়িত্বশীল ব্যাটিংয়ে ৩০০ বল মোকাবেলায় ১৩৮ রানের অসাধারণ ইনিংস উপহার দেন চান্দিমাল। ১০৬তম ওভারে তাকে মোসাদ্দেক হোসেনের ক্যাচ বানিয়ে সতীর্থদের উদযাপনের মধ্যমনি বনে যান মেহেদী হাসান মিরাজ। নবম উইকেট হারায় লঙ্কানরা।

দশম উইকেট জুটিতে ৩৩ রান তোলেন দুই টেলএন্ডার লাকমল ও লক্ষণ সান্দাকান (৫ অপ.)। লাকমলকে (৩৫) সৌম্য সরকারের তালুবন্দী করে লঙ্কান ইনিংসের সমাপ্তি টানেন পেসার শুভাশিস রায়। অলআউট হওয়ার আগে ১১৩.৩ ওভার ব্যাটিং করে স্বাগতিকরা।

বৃহস্পতিবার (১৬ মার্চ) চান্দিমাল-হেরাথ জুটি (৫৫) ভেঙে দ্বিতীয় দিনের প্রথম ব্রেকথ্রু এনে দেন সাকিব আল হাসান। স্লিপে সৌম্য সরকারের হাতে ধরা পড়েন লঙ্কান অধিনায়ক রঙ্গনা হেরাথ (২৫)।  দলীয় স্কোর আড়াইশ’র ঘরে যেতেই অষ্টম উইকেট হারায় স্বাগতিকরা। নবম উইকেটে লাকমলকে নিয়ে আরও ৫৫ রান যোগ করেন চান্দিমাল।

প্রতিকূল আবহাওয়ায় আলোকস্বল্পতার কারণে কলম্বোর পি সারা ওভালে প্রথম দিনে ৮৩.১ ওভারের খেলা হয়। লঙ্কানদের সংগ্রহ দাঁড়ায় ২৩৮। ৪৩ রানের অবিচ্ছিন্ন জুটিতে মাঠ ছাড়েন দিনেশ চান্দিমাল ও অধিনায়ক রঙ্গনা হেরাথ (১৮ অপ.)। একাই দলকে টেনে তোলেন ৮৬ রানে অপরাজিত থাকা চান্দিমাল।

নিজেদের ক্রিকেট ইতিহাসে ঐতিহাসিক টেস্টের প্রথম দিনটি দারুণ কাটে বাংলাদেশের। দলীয় ৭০ রানে চার উইকেট হারিয়ে চাপের মুখেই পড়েছিল স্বাগতিকরা। দিমুথ করুণারাত্নে ৭, কুশল মেন্ডিস ৫, উপুল থারাঙ্গা ১১ ও আসিলা গুনারাত্নে ১৩ রান করে আউট হন।

ধনাঞ্জয়া ডি সিলভার (৩৪) সঙ্গে ৬৬ রানের জুটিতে প্রাথমিক বিপর্যয় সামাল দেন চান্দিমাল। নিরোশান ডিকওয়েলাকে (৩৪) নিয়ে আরও ৪৪ রান যোগ করেন তিনি। ৯ রানে বিদায় নেন দিলরুয়ান পেরেরা। ১৯৫ রানে সপ্তম উইকেটের পতন ঘটে।

প্রথম ইনিংসে সর্বোচ্চ তিনটি উইকেট লাভ করেন মেহেদী হাসান মিরাজ। দু’টি করে নেন মোস্তাফিজুর রহমান, সাকিব আল হাসান ও শুভাশিস রায়। বাকি উইকেটটি তাইজুল ইসলামের।

দুই ম্যাচ সিরিজে সিরিজে সমতায় ফিরতে চোখ রাখছে টিম বাংলাদেশ। ব্যাটসম্যানদের ব্যর্থতায় গল টেস্টে (৭-১১ মার্চ) ২৫৯ রানে হার মানতে হয়েছিল।

বাংলাদেশ একাদশ: তামিম ইকবাল, সৌম্য সরকার, ইমরুল কায়েস, সাকিব আল হাসান, মুশফিকুর রহিম (অধিনায়ক ও উইকেটরক্ষক), সাব্বির রহমান, মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত, মেহেদী হাসান মিরাজ, তাইজুল ইসলাম, শুভাশিস রায়, মোস্তাফিজুর রহমান।

শ্রীলঙ্কা একাদশ: দিমুথ করুনারাত্নে, উপুল থারাঙ্গা, কুশল মেন্ডিস, দিনেশ চান্দিমাল, অসিলা গুনারাত্নে, ধনাঞ্জয়া ডি সিলভা, নিরোশান ডিকওয়েলা (উইকেটরক্ষক), দিলরুয়ান পেরেরা, রঙ্গনা হেরাথ (অধিনায়ক), সুরাঙ্গা লাকমল, লক্ষণ সান্দাকান।
 

ক্রিকেট এর আরো খবর