সোমবার, ০৯ ডিসেম্বর ২০১৯
logo
৪র্থ বিপিএল ক্রিকেটযুদ্ধ শুরু দুপুরে
প্রকাশ : ০৪ নভেম্বর, ২০১৬ ১০:৪০:৫৪
প্রিন্টঅ-অ+
ক্রিকেট ওয়েব
ঢাকা: বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লীগের (বিপিএল) চতুর্থ আসর শুরু হচ্ছে শুক্রবার। ৭ দল নিয়ে এবারের আসর। প্রত্যেকদিন থাকছে দুটি করে ম্যাচ। মিরপুর স্টেডিয়ামে বেলা ২টা ৩০ মিনিটে মাশরাফি মুর্তজার কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স ও ড্যারেন স্যামির রাজশাহী কিংস মুখোমুখি হবে।

সন্ধ্যা ৭টা ১৫ মিনিটে আজ দ্বিতীয় ম্যাচে নতুন দল খুলনা টাইটান্সের মুখোমুখি হবে রংপুর রাইডার্স। সরাসরি দেখা যাবে চ্যানেল নাইনে।

বিপিএল দ্বিতীয় আসরের ফিক্সিং কেলেংকারির কারণে দুই বছর বন্ধ থাকার পর গতবার আবার শুরু হয়েছে।

বিপিএলের প্রত্যেক আসরের আগে একটি উদ্বোধনী অনুষ্ঠান থাকে। ইংল্যান্ড সিরিজ ও বিপিএল শুরুর মধ্যে সময় না পাওয়ায় এবার উদ্বোধনী অনুষ্ঠান করেনি বিসিবি।

তবে এ জন্য টুর্নামেন্টের জৌলুস মোটেও কমেনি বলে মনে করছে বিসিবি।

টুর্নামেন্টের জন্য ৭৬ বিদেশি খেলোয়াড় ছাড়া কোচিং স্টাফের অনেকে বিদেশি থাকবেন। কোনো বৈশ্বিক টুর্নামেন্ট ছাড়া একসঙ্গে এত বিদেশী খেলোয়াড় বাংলাদেশে দেখা যায় না।

এবার টুর্নামেন্টের টাইটেল স্পন্সর আবুল খায়ের স্টিলস। এক মাসেরও বেশি সময় লম্বা টুর্নামেন্টের ফাইনাল ৯ ডিসেম্বর।

বিপিএলে প্রথম তিনবারের শিরোপাই উঠেছে মাশরাফি মুর্তজার হাতে। দুইবার ঢাকা গ্লাডিয়েটর্সকে চ্যাম্পিয়ন করিয়েছেন তিনি। গত আসরে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের দায়িত্ব নিয়েও হাতে শিরোপা তুলেছেন।

বর্তমান চ্যাম্পিয়ন কুমিল্লা এবার প্রথম ম্যাচে মুখোমুখি হবে রাজশাহী কিংসের। ইমরুল কায়েস, লিটন কুমার দাস, আজহার জাইদি ও নুয়ান কুলাসেকেরাদের নিয়ে গঠিত কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স বেশ অভিজ্ঞ।

তবে সাইফুদ্দিনের মতো তরুণ ক্রিকেটারদের ওপরও ভরসা রাখছে দলটি। গত আসরের সেরা উদীয়মান বোলার হওয়া আবু হায়দার রনি এবার কুমিল্লা দলে নেই। চ্যাম্পিয়ন কোচ সালাউদ্দিনকেও সরিয়ে এবার তারা দায়িত্ব দিয়েছে মিজানুর রহমান বাবুলকে।

মিজানুরের অধীনেই এবার অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপে বাংলাদেশ সেমিফাইনালে উঠেছিল।

টুর্নামেন্ট নিয়ে মাশরাফি বলেন, “একটা টুর্নামেন্টে চ্যাম্পিয়ন হতে গেলে ভালো তো খেলতেই হয়। পাশপাশি ভাগ্যেরও সহায়তা লাগে। দল হিসেবে আমরা কতটা ভালো খেলতে পারি সেটারই চেষ্টা করব।”

রাজশাহী দেশি খেলোয়াড়দের ওপরই বেশি জোর দিতে চায়। এ ছাড়া এই দলে অধিকাংশ ক্রিকেটারই তরুণ। ওয়েস্ট ইন্ডিজের ড্যারেন স্যামির নেতৃত্ব এ দলে রয়েছে ইংল্যান্ড বধের নায়ক মেহেদী হাসান মিরাজ। আইকন খেলোয়াড় সৌম্য সরকারের সঙ্গে আছেন নূরুল হাসান সোহান, মুমিনুল হক ও নাজমুল হোসেন অপুর মতো তরুণ ক্রিকেটার।

অলরাউন্ডার স্যামি বাংলাদেশের তরুণদের ওপরই বেশি আস্থা রাখতে চান। তিনি বলেন, “মিরাজকে আমি আরো ভালো বল করার কথা বলেছি। ওর কাছ থেকে আমি আরো বেশি কিছু চাই।”

এদিকে খুলনা অঞ্চলেরই আইকন খেলোয়াড় তিনজন। অথচ গত আসরে খুলনার কোনো দলই ছিল না। এবার খুলনার ফ্র্যাঞ্চাইজি কিনেছে জেমকন গ্রুপ।

অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের নেতৃত্বে আজ খুলনা টাইটান্স মুখোমুখি হবে রংপুর রাইডার্সের।

২০০৭ সালে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত খুলনার দুই ক্রিকেটার মানজারুল ইসলাম রানা ও সাজ্জাদুল ইসলাম সেতুর নামে দুটি জার্সি রেখেই খুলনা মাঠে নামছে।

কোচ স্টুয়ার্ট ল’র নেতৃত্বে এ দলে দেশী ক্রিকেটার রয়েছেন- মোশাররফ হোসেন রুবেল, শফিউল ইসলাম-অলোক কাপালীরা। বিদেশি খেলোয়াড়দের মধ্যে কেভিন কুপার, লেন্ডল সিমন্স-আন্দ্রে ফ্লেচাররা আছেন।

কোচ স্টুয়ার্ট ল বলেন, “টি ২০ ক্রিকেটে ভালো করতে হলে দল হিসেবে ভালো খেলতে হবে। আমরা সেই চেষ্টাই করব।”

এদিকে সৌম্য সরকারের রংপুর রাইডার্সের খেলোয়াড়রা টুর্নামেন্ট শুরুর আগেই টাকা নিয়ে নিজেদের অসন্তোষের কথা জানিয়েছেন। বুধবার এমনকি তারা অনুশীলনও করতে চাননি।

দলের ফ্র্যাঞ্চাইজি মালিকদের নিয়েও বিতর্ক রয়েছে। তবে সব শেষে সৌম্য রংপুরকে ভালো কিছু উপহার দিতে চান।

সৌম্য সরকার বলেন, “প্রথম ম্যাচটা অনেক গুরুত্বপূর্ণ। প্রথম ম্যাচটা জিততে পারলে পরেরগুলো সহজ হয়ে যায়। আশা করছি ভালো কিছুই হবে।”

আরাফাত সানি, মোহাম্মদ মিঠুনদের সঙ্গে এই দলে বিদেশি খেলোয়াড় রয়েছেন শহীদ আফ্রিদি ও নাসির জামসেদের মতো তারকা খেলোয়াড়।

ক্রিকেট এর আরো খবর