বুধবার, ১৬ অক্টোবর ২০১৯
logo
শততম ওয়ানডে জয়ের নেশায় বিভোর বাংলাদেশ
প্রকাশ : ২৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ১১:৫০:০৬
প্রিন্টঅ-অ+
ক্রিকেট ওয়েব

ঢাকা: ওপেনার আকরাম খান। সেঞ্চুরিয়ান মাশরাফি বিন মুর্তজা! একটু অবাক হচ্ছেন হয়তো। কারণ আকরাম খান তো ক্যারিয়ারের সিংহভাগ সময়ই মিডল অর্ডারে ব্যাটিং করেছেন। আর মাশরাফি তো লোয়ার অর্ডারের ব্যাটসম্যান। তাই প্রথম লাইনটা বেমানানই ঠেকছে নিশ্চয়ই।
আসলে রুপক অর্থে বাংলাদেশের ক্রিকেটে আকরামই ওপেনার। আর মাশরাফি সেঞ্চুরিয়ান। ১৯৯৮ সালের ১৭ মে ভারতের হায়দরাবাদে কেনিয়ার বিরুদ্ধে ওয়ানডে জিতেছিল বাংলাদেশ। সেটা আকরাম খানের নেতৃত্বে। ১৮ বছরের ব্যবধানে গুটি গুটি পায়ে ১ থেকে ৯৯ জয় পার করেছে বাংলাদেশ। বুধবার শততম ওয়ানডে জয়ের দ্বারপ্রান্তে লাল-সবুজের দল। সবকিছু ঠিক থাকলে মিরপুরে আফগানিস্তানের বিরুদ্ধে ওই ম্যাচে টাইগারদের নেতৃত্বে থাকছেন মাশরাফিই। দেশকে নেতৃত্বের বিচারেই মাশরাফি সেঞ্চুরিয়ান আর আকরাম ওপেনার।
বুধবার মিরপুর শেরে বাংলা স্টেডিয়ামে রকেট সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচে বাংলাদেশ মুখোমুখি হবে আফগানিস্তানের। আর এদিনই বাংলাদেশ পেয়ে যেতে পারে  ওয়ানডেতে শততম জয়। বেলা আড়াইটায় শুরু হবে ম্যাচটি। দিবা রাত্রির ম্যাচটি সরাসরি সম্প্রচার করবে জিটিভি।
১৯৮৬ সালে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে শুরু হয়েছিল ওয়ানডে ক্রিকেটে বাংলাদেশের যাত্রা। গত ৩০ বছরে ৩১৩টি ম্যাচ খেলেছে বাংলাদেশ। গৌরবের অর্জনের হাতছানি টাইগারদের সামনে। আফগানদের বিপক্ষে সিরিজের প্রথম ওয়ানডে বাংলাদেশ জিতেছিল ৭ রানে। তুমুল লড়াইয়ের পর পাওয়া জয় টাইগারাদেরও অনেক পরীক্ষা নিয়েছে। ১০ মাস পর ওয়ানডে খেলতে নেমে অনেক জড়তাই ছিল মাশরাফিদের। শেষ অবধি জয়টা স্বস্তি ও আত্মবিশ্বাস পাইয়ে দিয়েছে দলকে। বুধবার তাই আরও ভালো পারফরম্যান্স করার রসদ পেয়েছে গোটা দল।
সবকিছু ঠিক মতো চললে, জয়ের সেঞ্চুরি পূরণের ম্যাচে দেশকে নেতৃত্ব দিতে যাচ্ছেন মাশরাফি। যার রোমাঞ্চ অবশ্য প্রকাশ করেননি নড়াইল এক্সপ্রেস। মঙ্গলবার সংবাদ সম্মেলনে এই প্রসঙ্গে বাংলাদেশ অধিনায়ক বলেন, “কেউ না কেউ তো থাকতই। বাংলাদেশের জন্য বড় অর্জন হবে। আমরা চেষ্টা করব দ্বিতীয় ম্যাচেই যেন সেটা হয়। এজন্য আমাদেরকে ভালো ক্রিকেট খেলতে হবে।”
শততম জয় ছাড়াও এই ম্যাচ দিয়েই সিরিজ জয় নিশ্চিত করতে চায় বাংলাদেশ। তিন ম্যাচ সিরিজে ১-০ তে এগিয়ে থাকা বাংলাদেশ বুধবার জিতলেই সিরিজ বগলদাবা করতে সমর্থ হবে। অধিনায়ক মাশরাফির আত্মবিশ্বাস প্রথম ম্যাচের তুলনায় আরও ভালো ক্রিকেট খেলতে চায় বাংলাদেশ। তিন বিভাগেই নিজেদের সেরা ছন্দে ফিরতে চায় টাইগাররা। সিরিজ জয়টাকে গুরুত্বপূর্ণ বলছেন অধিনায়ক। মাশরাফি বলেন, “দ্বিতীয় ম্যাচ গুরুত্বপূর্ণ। আমাদের জন্য প্রতিটি ম্যাচই গুরুত্বপূর্ণ। একটা ব্যাপার সেকেন্ড ম্যাচ জিতলে সিরিজটা নিশ্চিত হয়ে যাবে। এজন্য দ্বিতীয় ম্যাচ গুরুত্বপূর্ণ।”
প্রথম ম্যাচের জয়টা কষ্টার্জিত হলেও মানসিক স্বস্তি বইয়ে দিয়েছিল টাইগার শিবিরে। বুধবার তাই উইনিং কম্বিনেশন নিয়েই মাঠে নামবে বাংলাদেশ। একাদশে পরিবর্তনের সম্ভাবনা নেই বললেই চলে।

ক্রিকেট এর আরো খবর