শুক্রবার, ২২ নভেম্বর ২০১৯
logo
তাসকিন-সানির বোলিং অ্যাকশন বৈধ: আইসিসি
প্রকাশ : ২৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ১১:৫৬:০৮
প্রিন্টঅ-অ+
ক্রিকেট ওয়েব

ঢাকা: ভারতে অনুষ্ঠিত আইসিসি টি-২০ বিশ্বকাপে তাদের নিষিদ্ধ হওয়ার খবরই পুড়িয়েছিল গোটা বাংলাদেশের হৃদয়। ত্রুটিপূর্ণ বোলিং অ্যাকশনের কারনে বিশ্বকাপের মাঝপথে তাসকিন আহমেদ ও আরাফাত সানিকে নিষিদ্ধ করেছিল আইসিসি। শুক্রবার বিকেলে আবার তাদের বোলিং অ্যাকশনের পরীক্ষার খবরই স্বস্তির হাওয়া বইয়ে দিল বাংলাদেশের ক্রিকেট আকাশে। তাসকিন ও আরাফাত সানির বোলিং অ্যাকশন বৈধ ঘোষণা করেছে আইসিসি। আজ এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানিয়েছে আইসিসি।  
গত ৮ সেপ্টেম্বর অস্ট্রেলিয়ার ব্রিসবেনে বোলিং অ্যাকশনের পরীক্ষা দিয়েছিলেন বাংলাদেশের এই দুই বোলার। কয়েকদিন ধরেই তাদের বোলিং অ্যাকশনের পরীক্ষার খবরের জন্য অপেক্ষায় ছিল বাংলাদেশের ক্রিকেট। এমনকি তাসকিনের জন্য আফগানিস্তানের বিরুদ্ধে জাতীয় দলে জায়গাও ফাঁকা রেখেছিল বিসিবি। অবশেষে প্রত্যাশিত সুসংবাদই এসেছে। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে নিষিদ্ধ হওয়ার খড়গ থেকে মুক্তি পেলেন তাসকিন-সানি। আবারও সব ধরনের আন্তর্জাতিক ক্রিকেট খেলতে পারবেন তারা দুজন।
জায়গা রেখে দেওয়ায় আফগানিস্তানের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজ খেলাটা তাসকিনের জন্য এখন সময়ের ব্যাপার মাত্র। তবে সানি এখনই সুযোগ পাচ্ছেন না জাতীয় দলে। পরিবর্তিত অ্যাকশনে বাঁহাতি এই স্পিনারকে আরও পরখ করে নিতে চান নির্বাচকরা।
গত ৯ মার্চ ধর্মশালায় টি-২০ বিশ্বকাপে নেদারল্যান্ডসের বিপক্ষে ম্যাচে প্রশ্নবিদ্ধ হয় তাসকিন ও সানির বোলিং অ্যাকশন। পরে চেন্নাইয়ে অ্যাকশনের পরীক্ষা দেন দুজন। ১৯ মার্চ অবৈধ অ্যাকশনের দায়ে দুজনকেই বোলিংয়ে নিষিদ্ধ করে আইসিসি।
২১ মার্চ তাসকিনের নিষেধাজ্ঞার বিরুদ্ধে আপিল করে বিসিবি। দুদিন পর জুডিশিয়াল কমিশনার বহাল রাখেন নিষেধাজ্ঞা।
এরপর দেশে ফিরে বোলিং অ্যাকশন শোধরাতে কাজ শুরু করেন দুজন। অ্যাকশন নিয়ে কাজ করার সঙ্গে ঢাকা প্রিমিয়ার লিগে আবাহনীর হয়েও খেলেন তাসকিন। লিগে খেলেছিলেন সানিও। তবে কয়েকটা ম্যাচ মাত্র।
সর্বশেষ ‘টুডি’ প্রযুক্তির মাধ্যমে দুই বোলারের বোলিং অ্যাকশনের পরীক্ষা নেয় বিসিবি। পরেই তাদের অস্ট্রেলিয়ায় পাঠানো হয় পরীক্ষা দিতে।

ক্রিকেট এর আরো খবর